সুপর্ণা ফাল্গুনী

এ জীবন একবার চলে গেলে আর ফিরে পাবো না-তাই কেউ কাউকে কষ্ট না দেই, অপমান না করি। অহংকার, লোভ, হিংসা ত্যাগ করি।

কাঙ্খিত স্বাধীনতা

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৩:১৫:১৪অপরাহ্ন কবিতা ২৭ মন্তব্য
আজো হামিদুর,মতিউর,মুন্সি রউফের আত্নারা ডুকরে কেঁদে মরে। ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্ত আহাজারি করে বারেবারে। আজো বাতাসে লক্ষ লক্ষ মা-বোনদের আত্নচিৎকারে কেঁপে উঠে, এদেশের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে থাকা নরপিশাচদের অট্টহাসির ফোয়ারা। আজো এখানে সেখানে লাশের অর্ধগলিত দূর্গন্ধ নাকে এসে ছুঁয়ে যায়। অলিতে-গলিতে হায়নার দল ওৎ পেতে থাকে, শিশু-কিশোরী-নারীর নরম মাংস ছিঁড়ে ছিঁড়ে খাবে বলে। আজো মন্দিরে [ বিস্তারিত ]

খুউব জানতে ইচ্ছে করে

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:৫৪:২৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২২ মন্তব্য
আকাশ হঠাৎ একদিন মৌরিকে একটি পাপা মিলনের গোলাপ হাতে দিলো। মৌরি তখন ক্লাস নাইনের ছাত্রী। সে কিছুটা ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলো। কিন্তু আকাশকে কোনো প্রশ্ন করলো না। মনের মধ্যে একটার পর একটা উত্তর সাজাতে লাগলো। ফলাফল- মৌরি বুঝে ফেললো আকাশের মনবাসনা। কিন্তু সে তাকে কিছুই বুঝতে দিলো না কারণ সে চায়নি আকাশের সাথে সম্পর্ক হোক। যাই [ বিস্তারিত ]

স্বার্থপরতা

সুপর্ণা ফাল্গুনী ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার, ০৩:৪৯:৫৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৪ মন্তব্য
যখন থেকে বুঝতে পেরেছি, বলতে শিখেছি অনেক বন্ধু পেয়েছি, খেলার সাথী পেয়েছি। সোজা কথায় খেলার জন্যেই বন্ধুত্ব করা। ছেলেবেলা টা আসলে এমন করেই বন্ধুত্ব হয়, তখন তো বন্ধু কি জিনিস সেটাই বোঝার কথা নয়। এভাবেই সময়ের স্রোতে ভেসে স্কুল জীবনে প্রবেশ করা। পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত ছেলে মেয়ে একসাথে পড়া হলেও বন্ধুত্ব মেয়েদের সাথেই করা হতো। [ বিস্তারিত ]

প্রেমের নানান রং

সুপর্ণা ফাল্গুনী ২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৯:৪৯:৪৯অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৮ মন্তব্য
সুদীপ্ত আজ দীর্ঘ বিশ বছর প্রবাস জীবন যাপন করছে। ঘরে সুন্দরী, শিক্ষিতা স্ত্রী আর ফুটফুটে দুই সন্তান রেখে প্রবাসে একাকী জীবন পার করছে। ষোলো বছরের সংসারে ভালোবাসা, সুখের কোনো অভাব সে পায়নি। তবুও বুকের পাঁজরের কোথায় যেন লুকিয়ে আছে একটা চিনচিনে ব্যথা, শূণ্যতার বাসা। সুদীপ্তের ও একটা বাল্যপ্রেম ছিল। ওর ই এক কাজিনের সাথে। আত্নীয়তার [ বিস্তারিত ]

এলোমেলো সন্ধ্যা

সুপর্ণা ফাল্গুনী ২৯ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৮:১৭:২১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৯ মন্তব্য
জীবন বহতা নদীর মতো বয়েই চলে। জীবনের বাঁকে বাঁকে কত শত ঝড়-ঝঞ্জাট ওলোটপালোট করে জীবনের গতিপথ স্তব্ধ করে দেয়। তবুও কী জীবন-নৌকা থেমে যায়! প্রকৃতি চলে প্রকৃতির নিয়ম মেনেই।কারো জীবনযুদ্ধের পরিনতি হয় স্বপ্নে ঘেরা বাসর ঘরে আর কারো পরিনতি অসীমে বিলীন হয়। বালুচরে বাঁধা স্বপ্ন তাসের ঘরের মতো ভেঙে যায় দু’দিনেই। আশাহত মন সিন্দুকে নিজেকে [ বিস্তারিত ]
ঐশী-যখন ওর বাবা মারা যায় তখন ওর বয়স ৬/৭।পিতৃবিয়োগ বা মৃত্যুর মর্মার্থ কিছুই তেমন বুঝতোনা বা বোঝার কথাও না। চার বোনের মধ্যে সে দ্বিতীয়। বাবার মৃত্যুর পর সবাই যে যার মতো করে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে,আবার অতি আপনজনকেও কাছে পায়নি বাবার অভাব পূরণের জন্য। জমিজমা যা ছিল ঐশীর মা এদিক ওদিক করে, টুকটাক কাজ করে জীবনের [ বিস্তারিত ]

স্বপ্নের দ্বার

সুপর্ণা ফাল্গুনী ২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১০:২৪:১৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩২ মন্তব্য
আজকের সকাল টা অপূর্ব। বুকের ভেতরে বিরাজ করছে আত্মবিশ্বাস। আমি পারবো। আমি পারি। পূর্ব দিগন্তে জেগে ওঠা ভোরের সূর্যের মতো আমারও ভেতরটা জেগে উঠতে শুরু করেছে অপার বিস্ময়ে। . মাস কয়েক আগেও কি জানতাম এতটা পরিবর্তনের আভাস? শুধু আত্মবিশ্বাসের জায়গাটা সঠিক, স্থির ছিলো। মনের ভেতরে এইটুক আস্থা চারিত্রিক গঠনেরই অংশ, কোনকিছুতে হাত দিলে তার শেষ [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য