বিভাগ: সাহিত্য

হুজুগে

চাটিগাঁ থেকে বাহার ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ০২:০৭:০৪অপরাহ্ন কবিতা ৩ মন্তব্য
হুজুগে *** হৈচৈ পড়ছে দেখো চিলে নিয়েছে কান? হুজুগীদের রুখতে চাইলে সে কান ধরে টান! ইতা লিখলে ঐতা হবে লিখে ফেলো মন্তব্যে শত শত কমেন্ট নিয়ে পৌছতে চায় গন্তব্যে। আমগাছে টাকি মাছ গোল আলুতে আল্লাহ খাছ দিলে জপে যাও সোবহান আল্লাহ! ভার্চুয়াল জগতে ভেসে চলে ভেলা লুকাতে চায় সবে কতোটা একেলা। বাস্তবে পিছুটান মরীচিকায় দৌঁড়ঝাপ [ বিস্তারিত ]

লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-৫ শেষ পর্ব

নিতাই বাবু ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ১১:১৩:৩৯পূর্বাহ্ন গল্প ১৭ মন্তব্য
গল্পের চতুর্থ পর্ব এখানে➘ লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-৪ গল্পের চতুর্থ পর্বের শেষাংশ➷ মুহূর্তেই কোঁয়া কোঁয়া এক সাপের রূপধারণ করে ফেললো। জাহাজের নিচতলা থেকে লোকমান হেকিম দেখছে, জাহাজের জানালা বেয়ে এক বিশাল সাপ কুলসুম দরিয়ায় নামছে। কোঁয়া কোঁয়া সাপের রূপধারণ করে কুলসুম দরিয়ায় যখন নামছে, তখনই লোকমান হেকিম তাঁর সাথে নেওয়া ঔষধের শিশিগুলো রেডি করে ফেললো। [ বিস্তারিত ]

“বাবা যখন রাধুনী”

জাকিয়া জেসমিন যূথী ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ০৮:৫৬:৫৫পূর্বাহ্ন গল্প ৭ মন্তব্য
  সকাল থেকে কি হয়েছে জানিনা। আমি এমনিতেই ঘুম থেকে সকাল দশটার আগে উঠিনা। আগের রাতে মা বকেছিলো! “সারাদিন কম্পিউটার নিয়েই পরে থাকো! সংসারের কাজে একটুও মন দিও না! আমি কাজ করতে করতে মরে যাই!” কথাটা খুব গায়ে লেগেছিলো! সাথে সাথে কম্পিউটার বন্ধ করে দরজার ছিটকিনি লাগিয়ে দিয়ে শুয়ে পরেছি। অন্যান্য রাতের চেয়ে দুই ঘন্টা [ বিস্তারিত ]
হুমায়ুন আহমেদের অনেক বই আমার পছন্দ। তার মধ্যে ঐতিহাসিক কাহিনী সমৃদ্ধ বাদশাহ নামদার অন্যতম। এই বইটি ২০১১ সনের “একুশের বইমেলায়” প্রথম প্রকাশিত হয়। বাদশাহ হুমায়ূন ছিলেন এক বিচিত্র চরিত্রের অধিকারী। যেখানে তিনি সাঁতারই জানেননা, সেখানে সারাজীবন তাঁকে সাঁতরাতে হয়েছে স্রোতের বিপরীতে। তাঁর সময়টা ছিলো অদ্ভুত। সম্রাট বাবরের প্রথম পুত্র হুমায়ূন ছিলেন অলস ও আরামপ্রিয়।  সে [ বিস্তারিত ]

ভালবেসে তুমি আমায় আবৃত রেখো

কামরুল ইসলাম ১৩ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ০৭:১০:২২অপরাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
তুমি আমায় ভালবেসে আবৃত্ত রেখো ~ আমি তোমায় নতুন পৃথিবী দিবো, স্বপ্নে সাজানো ~ পাখি ডাকা নির্মল শুভ্র রাঙা প্রভাত ~ বর্ণালী বিকেল, আলপনায় সাজানো গোধলী ~ তারার ঝিলমিল আকাশ, মাধুরী ছড়ানো জোছনা ~ জোনাক পোঁকার মেলা, মেঘের লুকোচুরি চাঁদ ~ নিস্তব্ধ রাত, প্রাণে মোহন সুর ~ শুক তারার মিতালী, রাত জাগা পাখির কুহেলী ~ [ বিস্তারিত ]

লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-৪

নিতাই বাবু ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১১:৫৯:৩১অপরাহ্ন গল্প ২৭ মন্তব্য
গল্পের তৃতীয় পর্ব এখানে ➘ লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-৩ গল্পের তৃতীয় পর্বের শেষাংশ:➷ কুলসুম দরিয়ার মাঝে পৌঁছতে আর অল্প ক’দিনের পথ বাকি। এরপরই শুরু হবে কোঁয়া কোঁয়া আর লোকমান হেকিমের কেরামতি। কোঁয়া কোঁয়ার সাথে সেদিন লোকমান হেকিমের কথা-বার্তা এ-ই পর্যন্তই শেষ। মানে পাকাপাকি কথা। কোঁয়া কোঁয়া আর লোকমান হেকিমের কথা-বার্তার সময় বাদশা যে জ্ঞানহারা হয়ে [ বিস্তারিত ]

কৃষ্ণচূড়ার হাতছানি – (শেষ পর্ব)

মুক্তা মৃণালিনী ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১০:০৯:২২অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
দেড় মাস পরের কথা . . . . . শ্রাবণ মাসের তিন তারিখ। সকাল দশটা। সকাল থেকেই অঝোর ধারায় বৃষ্টি ঝরছে। রাস্তা-ঘাট সব বৃষ্টির পানিতে থৈ থৈ। চারিদিক বর্ষনমুখর। সােহিনীর মা, সােহিনীর বাবা, হাসনাত সাহেবের বড় দুই বােন, বোনদের জামাইরা, হাসনাত সাহেবের বড় ভাই আর তার ভাবীসহ দুই পক্ষের আরও অনেক অনেক আত্মীয় স্বজন হাসপাতালের [ বিস্তারিত ]

বিজয়ের মানবী

প্রদীপ চক্রবর্তী ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ০২:১৩:৪৩অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য
দুটি-দ্বারে দুটি জনপদ- একজন বিজয়ী অপরজন মানবী, দুজন দু-দ্বারে বসিয়া লিখিলেন মানবতার কবিতাখানি। কালের দ্বারায় দুজন আজ বিভক্ত হয়ে একজন হয়েছেন শাসক, অন্যজন শোষক। দুজনার সত্য আজ নির্ভর করে বিবেকের উপর, দুজনার সংশয় থেকে যায় তবুও তারপর। বিজয়ী ও মানবী দুজনার রক্তে মিশে গিয়েছে শাসক শোষিতের দূষিত রক্ত, দিনে দিনে দুজনার আজ বাড়ছে ভক্ত। আত্মহননের [ বিস্তারিত ]

স্ব রচিত তিনটি কবিতা

নাজমুল হুদা ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১২:৩৯:০৭অপরাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য
(০১) শব্দের গোলটেবিল … হঠাৎ বাংলার তিন শব্দ এক জরুরি গোলটেবিলে; খতিয়ে দেখা বললো- সুশীল গলায় আমার না এখন বিষণ কদর কথায়,ব্যথায় দিচ্ছে জামাই বাড়ির আদর তদন্ত ব্যঙ্গ করে বললো- পড়েছি তো জামাই আদুরীতন্ত্র চাচা আপন প্রাণ বাঁচা- নীতির নাই অন্ত স্ব-দোষে হৃষ্টপুষ্ট ইঁদুরের গর্তে সাপ রেখে- তবুও চালায় যন্ত্র বহিঃস্কার রেগে গিয়ে বললো- থামাও [ বিস্তারিত ]
সারাদিনের ব্যস্ততা শেষে ক্লান্ত-শ্রান্ত আমি’র তোমাকে খুব মনে পড়ে, মনে পড়ে তোমার সাথে কাটানো প্রতিটি মুহূর্ত। নির্জন রাতের নিস্তব্ধতায় ফিকে তুমি হয়ে ওঠো স্পষ্ট মাথা চারা দিয়ে ওঠে তোমাকে ছুঁয়ে থাকার আদম্য ইচ্ছে গুলো। তোমারও কি মনে পড়ে আমাকে? তুমিও কি ভাবো আমাকে নির্জনে গোপনে চুপিসারে? নাকি এই আমি বড্ড ম্লান হয়ে যাওয়া অপরিচিতা কেউ! [ বিস্তারিত ]

কৃষাণ

সঞ্জয় মালাকার ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ০৩:০৪:২১পূর্বাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য
রাখাল ছেলে,, ঐ যে দেখছিস সবুজ গাঁয়ে,সবুজ ভরা মাঠ, আবাদি জমি রঙিন ফসল-নেই ছেলেটার লাজ ঐ যে দেখছিস সবুজ গাঁয়ে-সবুজ ভরা মাঠ,, দীঘির জলে সাঁতার কাটা-সেই ছেলেটার স্বভাব! নদী,, ঐ খানেতে ছিল আমার সেই চপলা নদী দুই ধারেতে কাশ বন রোদের ঝিলিমিলি, কতো শহর ঘুরে এলাম, পাইনি তো সবুজ গাঁয়ের ছবি ? পানকৌড়ি আর মাছরঙ্গাদের,দৌরাত্ম্যের [ বিস্তারিত ]

অচেনা পদ্য

নীরা সাদীয়া ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১২:০৪:৪৩পূর্বাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য
(১) অচেনা টেলিফোন অচেনা স্বর কে যেন ডেকে যায় সকাল দুপুর। অচেনা মিসডকল, মায়াবী রাত চুপচাপ টুপটাপ একাকী চাঁদ। সুরেলা আবহ, রঙিন মন মেঘেতে ছেয়ে রয় একলা ভীষণ কখনো হাতে নিয়ে একঝুড়ি ফুল কে যেন থেমে যায়, ভেবে সব ভুল। (২) কখনো পাখি,কখনো আকাশ ক্লান্ত বিকেলে কাটে অবকাশ এক ঝাঁক পাতিহাঁস সাঁতরে বেড়ায় যাতনা ছিলো [ বিস্তারিত ]

অগ্নিকুসুম

শফিক নহোর ১১ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ১০:১০:৪০পূর্বাহ্ন গল্প ২০ মন্তব্য
১ম প্যারা : আলতাফ মাস্টারের পাঁচ মেয়ে পাঁচটা নাঙ ধরছে। আলতাফ মাস্টার বাজারে না গেলেও ঘরের ভেতরে বাজার থেকে , তাজামাছ , শুঁটকি মাছ , পুঁইশাকের ডগা , চিংড়িমাছ , কাঁঠালের বিচি ভাজি সব আসে । নাঙ থাকলে মায়া মানষীর কোনকিছুর অভাব হয়না । আলতাফ মাস্টার মেয়ে দিয়ে আড়াৎ বসাইছে । বড় মেয়ে সারাদিন দেখি [ বিস্তারিত ]

লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-৩

নিতাই বাবু ১১ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ০৯:০৮:২৬পূর্বাহ্ন গল্প ২৬ মন্তব্য
গল্পের দ্বিতীয় পর্ব এখানে➘ লোকমান হেকিমের কেরামতির গল্প-২  দ্বিতীয় পর্বের শেষাংশ➷ নিরুপায় বাদশা ভয়ে কাঁপতে কাঁপতে ঘরে থাকা খাটের এক কোণে বসে বসে ভাবতে লাগলেন, আজ হয়তো আমার নির্ঘাত মৃত্যু-ই হবে। বাদশা এমন দুশ্চিন্তা নিয়ে একসময় ঘুমিয়ে পড়লেও, সেই রাতে বাদশার তেমন ঘুম হয়নি! মৃত্যুও হয়নি। ভোর হতে-না-হতেই বাদশা আবার ছুটে গেলেন বন্ধু লোকমান হেকিমের [ বিস্তারিত ]

রাতের মায়া

সুরাইয়া পারভিন ১১ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ০৮:৪৪:৩৮পূর্বাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
জানালায় চোখ পড়তেই, অদ্ভুত ভালোলাগায় ভরে উঠলো মন! ঘর থেকে কয়েক হাত দূরে, নিয়ন বাতির আলোয় ঝলমল করছে- চিরচেনা পরিচিত আমার ছোট্ট শহর। অবাক হয়ে তাকিয়ে দেখছি আর ভাবছি মনে মনে, কৃত্রিমতাও যে হতে পারে অপার সৌন্দর্যের প্রতীক ভাবনাতেও তা আসেনি যেনো কোনোদিন। মধ্যরাতের নিয়ন বাতির ঝলকানিতে শুধু আমার জন্মস্থান নয় আমিও হয়েছি আলোকিত। আহ [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ