নিবিড় রৌদ্র

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৭ বছর ৬ মাস ২৩ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ১৫টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ২৯টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৯৭টি

স্বাধীনতা

নিবিড় রৌদ্র ২৬ মার্চ ২০২২, শনিবার, ০৪:৪৫:১৭অপরাহ্ন কবিতা ২ মন্তব্য
স্বাধীনতা, এ কি তবে শ্রীহীন শৃঙ্খলহীনতা, রাজন? স্বাধীনতার মানে কি তবে শ্রেণি-জাত বিভাজন? স্বাধীনতা কি অপারগ ফসল- অরাজক মনে মনে? স্বাধীনতার মরমী- ব্যর্থতা ক'জন বাঙালি জানে? স্বাধীনতা কি রাষ্ট্র-ক্ষমতার বেদখল সংবিধান? না কি স্বাধীনতা মুক্তি-বারতার বিকৃত অভিধান? স্বাধীনতা কি লজ্জাহীনতা, অপদেবতা ভজন? না কি স্বাধীনতা স্বাদহীনতায় নবরুচিতা সৃজন? রক্তক্ষয়ী এ লড়াই ইতিহাসে সস্তা হাসি অভিমান [ বিস্তারিত ]

সুবর্ণলতা

নিবিড় রৌদ্র ২২ মার্চ ২০২২, মঙ্গলবার, ০৯:১৭:১৩পূর্বাহ্ন সাহিত্য ৩ মন্তব্য
সুবর্ণলতা, ঘুমের আবেশে অবেশেষে গতরাতে স্বপ্নে পৌঁছে গিয়েছিলাম তোমাদের গ্রামের পাশে যে গ্রামটি- সেই গ্রামে; সোনামুখী, রায়কালি নাম, না কি তুলসীগঙ্গা, নাগরনদীর তীরবর্তী গ্রাম আমার এইমুহূর্তে ঠিক মনে পড়ছে না তার নামটি। সেখানে মাটির ঘর একটা থেকে আরেকটা কিছুটা দূরত্ব নিয়ে দাঁড়িয়ে, মাঝখানে শিম আর মটরশুঁটির ছাউনিতে ঘনসবুজ ছায়া বুনো হাতির মত কান নেড়ে নেড়ে [ বিস্তারিত ]
আজকে চারপাশে হায়েনাদের যে আস্ফালন ঠিক এই রক্তবীজটিই বপিত হয়েছিল একাত্তরের ১৪ই ডিসেম্বর। পরিবেশ পরিস্থিতি বদলে যাওয়ার সাথে পদ্ধতিটা শুধু বদলে গেছে। ১৬ ডিসেম্বরে আমরা শুধু একটা আলাদা মানচিত্র পেয়েছিলাম, দেশের অভ্যন্তর কি সেই মূলমন্ত্রে আজও স্বাধীন হতে পেরেছে? একটি স্বাধীন দেশে স্বাধীনতা মানে কি মানবিক কিংবা অবকাঠামোগত উন্নয়নে পদে পদে বাধা? স্বাধীনতা মানে কি [ বিস্তারিত ]

সমস্যা

নিবিড় রৌদ্র ৭ ডিসেম্বর ২০২০, সোমবার, ০৯:৫৪:৪৬অপরাহ্ন কবিতা ১৪ মন্তব্য
বলতে পারেন সমস্যা কই, শরম লাগলে আস্তে কন ডিপ্রেশনে বাঁচতাছেন না? হতাশ? বিষাদ? খারাপ মন? বুক ধরফর? হাঁটু কাঁপে? ভাল্লাগে না সারাদিন? ঘুম আসে না? মাথা গরম? ঘাড়ে ব্যথা চিনচিন? ক্ষুধা মন্দা? পেটে ডাক? বারেবারে টয়লেটে যান? কান ফরফর? নাকে মাংশ? চোখে দেখেন দুইটা চান? দাঁতে পোকা? মাড়িতে ঘা? বাতের জ্বালা যন্ত্রণা? জয়েন্টে পেইন? স্পাইনে [ বিস্তারিত ]

শরৎ-স্মৃতির কাব্য

নিবিড় রৌদ্র ১৪ অক্টোবর ২০১৬, শুক্রবার, ০৭:৪৭:৫১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৩ মন্তব্য
নীল আকাশে কাল-ধোয়াটে ছায়া কম্পিত কাশফুলেদের শাদাবনে রৌদ্র স্তম্ভিত নগরে সে কাশবন কোথায় সে ছিল ঐ গ্রামে আমি তাকে পেয়েছিলাম জন্মদিনের দামে।   জন্মেছিলাম সাতাশ আশ্বিন শরতের এক ভোরে জরায়ূ ছিঁড়ে আঁতুর ঘরে মায়ের আঁচল জুড়ে সে দাবিতে বলতে পারি, শরৎ আমার দৃতা পুত্র দেহে জড়ানো মা'র ধূসর-শাড়ির কাঁথা।   ঢাকায় যখন শরৎ খুঁজে তাকাই [ বিস্তারিত ]

দুষ্প্রাপ্য চিঠি !

নিবিড় রৌদ্র ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬, শনিবার, ০৬:৩৭:০১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৫ মন্তব্য
বেলা শেষে সন্ধ্যা নামে রাত্রি আসে ঘনায়ে পাখির ঘুমে জোনাকআলো কি গান যায় শুনায়ে? সে কথাতো আর ভাবিনা সেই রাত্রিও আসেনা নীরবতার কাব্য কেন... তবুও ভালবাসেনা? আমায় কি তার আগের মত আর লাগেনা ভাল? চোখের নিচে জ্বলাপ্রদীপ তাও মিলিয়ে গেল! কেমন যেন বিষাদ রেখা কেউ দিয়েছে টেনে অদ্ভুতুরে নয়ন তলে কি লেখা সে জানে? জীবন [ বিস্তারিত ]

সোনার মেয়ে!

নিবিড় রৌদ্র ৩০ আগস্ট ২০১৬, মঙ্গলবার, ০৯:৪৩:২২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৬ মন্তব্য
আকাশ নিলো পর্দা টেনে চাঁদ উঠিলো জেগে সোনার মেয়ে দেখবে বলে ঢেউ লাগিলো মেঘে,   তারার বনে ছুটোছুটি মনের ভিতর ভয় তাই দেখে চাঁদ লুটোপুটি হাসিতে খুন হয়,   হাওয়া দিলো দোলা গায়ে শীতল পরশ বুলে সোনার মেয়ে দেখার ছলে নৌকা ভিড়ে কুলে   চাঁদ হাসিলো নাও ভাসিলো ফুলে হাওয়ার দোল কখন আসবে সোনার মেয়ে [ বিস্তারিত ]

অবাক হাসি!

নিবিড় রৌদ্র ১১ জুলাই ২০১৬, সোমবার, ০৭:৩০:২৭অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৪ মন্তব্য
এখন আর অবাক হইনা মানুষ দেখে এখন আর অবাক হইনা হৃদয় থেকে অনুভূতি যাই হোক অবাক হওয়ার কিছু নেই বরং অবাক হতে হয় অবাক হয়েছি শুনলেই! এখন অবাকে আর ভ্রুক্ষেপ করিনা আক্ষেপে শোধ নিতে মৃত্যুকেও ছাড়িনা জন্মের প্রতিশোধ নিতে মৃত্যুকে খুঁজেছি সেই জন্ম নিয়েই তো প্রথম অবাক হয়েছি!   ইস্যুর নিচে যেমন করে ইস্যু চাপা [ বিস্তারিত ]

শৈশব…।

নিবিড় রৌদ্র ৬ জুলাই ২০১৬, বুধবার, ১২:৫০:০২পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৮ মন্তব্য
অত্যন্ত মনে পড়ে সেই প্রত্যন্ত দিনগুলোকে জীবন বড্ড সরল রূপকথা- প্রথা- শোলকে উড়ন্ত ঘুড়ি দূরন্ত বক তেঁতুলের ডালে পেঁচার নোলক সকালে শিশির মাড়িয়ে- উত্তরে ধানক্ষেত পেরিয়ে মাঠে- গিয়েছি কুমারের হাঁটে- জেলের ঘাটে বেড়িয়েছি এ মেলা ও মেলা গিয়েছে বেলা কেটে।   সন্ধ্যায় ঘরে ফেরা পাখি আঁধারে ডাকাডাকি আমি যতটুকু পারি পা টিপে উঁকি মেরে দেখি- [ বিস্তারিত ]

তবুও যদি!

নিবিড় রৌদ্র ১৫ জুন ২০১৬, বুধবার, ০৮:০৬:৪৭অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১০ মন্তব্য
তবুও যদি ভাল থাকি চেষ্টা করি একটু ভালবাসা পেতে যা যা সবিনয় বন্ধ ঘরে অন্ধকারে ছায়া ধরি খানিকটা বৃষ্টি হলেই ভেজার অভিনয়।   তবুও সকাল সন্ধ্যা আসে ঝড়ো হাওয়ায় হার মেনে নেই, উঠে দাঁড়াই আবার লড়ি একটুখানি সুরই যে ঢের চাওয়া পাওয়ায় হাল বেঁধে দেই ভুলে গিয়ে- ভাঙাতরী, তীরের খুঁজে ফিরে আসি ভিড়ের ভিতর একা [ বিস্তারিত ]

গানের মত করে!

নিবিড় রৌদ্র ৪ জুন ২০১৬, শনিবার, ০১:৩৫:১৫পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৪ মন্তব্য
কোন দোষে যে দূরে সরাও কোন গুণে যে কাছে পাই ভুল শুদ্ধের সংজ্ঞা আমার কোনটাই যে জানা নাই দূরে আছ তাও জানি তবুওতো আমার রাই, আমি শুধু তোমায় আমার নিজের গানে রাখতে চাই। হঠাৎ যেমন বৃষ্টি এসে জানালার কার্নিশ ঘেষে ভিঁজিয়ে যায় এক ঝটকায় এলো বিছানা তেমনি কি তুমিও নও হঠাত এসে কথা যে কও [ বিস্তারিত ]

এবার বর্ষায়..!

নিবিড় রৌদ্র ২৯ জানুয়ারী ২০১৬, শুক্রবার, ১০:৩৯:২৫পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৫ মন্তব্য
এবার বর্ষায় নদী দেখিনি যৌবনে ঢেউ পলিজলে দুলছে কেউ দূরে মাঝি, জেলের ছেলে, ও পাড়ার কিশোরের দল সাঁতার খেলে রাজহাঁস ভাসে, হাসে পূবের হাওয়া এবার হয়নি যাওয়া। সেই ডুবন্ত মাঠ নৌকোর ঘাট শ্যামলিমা ছায়ায়, থৈ থৈ মায়ায় বটগাছ দাঁড়িয়ে জলান্ত ছাড়িয়ে কিশোরী দুপুরের রোদে ভিজে একধ্যানে কি খুঁজে মন গুঁজে কাজে, জলের গভীরে ঘাসের নুপুর [ বিস্তারিত ]

প্রজাপতির কবিতা!

নিবিড় রৌদ্র ১৩ ডিসেম্বর ২০১৫, রবিবার, ১১:৫১:২৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৫ মন্তব্য
প্রজাপতি - নিবিড় রৌদ্র প্রজাপতি প্রজাপতি রঙিন পাখা মেলে যাচ্ছো উড়ে কোথায় এদিক ওদিক দোলে? সঙ্গে নেবে আমায়? আমিও উড়বো কিছুক্ষন, নাইবা হলাম উড়তে যেয়ে পাখির মত দক্ষ- বিচক্ষণ প্রজাপতি প্রজাপতি নাও না আমায় দলে কোন মায়াতে মাতাল হয়ে এড়িয়ে যাও চলে? মানুষ মাঝে প্রেম নেই সোনা প্রজাপতি আমার মানুষ কেবল স্বার্থ বুঝে আর্থ হৃদয় [ বিস্তারিত ]

আমার স্মৃতি কথা!

নিবিড় রৌদ্র ১২ ডিসেম্বর ২০১৫, শনিবার, ০১:২১:২১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১২ মন্তব্য
স্নিগ্ধ আলোক ছুঁয়ে ফুল গাছটা নূয়ে হিমেল আদর বা'য়ে ভেজা মাটি পায়ে শিশির, মেঘ আর সোনারোদের প্রীতি এইটা আমার সকাল বেলার স্মৃতি। বেলা বাড়তো যখন উজ্জ্বল নীল গগন বিদ্যালয়ে বইয়ের পাতায় আলো খুঁজার লগন ছুটির দিনে উড়ি, ডাঙ্গুলী আর ঘুড়ি এমনি করে দুপুর আসতো বাড়ি। কাঠফাটা রোদ নামে নির্জন পাড়া গ্রামে বিষন্নতা কিনতে হতো অল্প [ বিস্তারিত ]
তিনজন বসে আছি ত্রিলোকে আমি, তুমি ও- ঈশ্বর। এক তৃষ্ণার্থ প্রেমচাতক এক নিরবঘাতক বরাবরই আরজন অচেতনে- অহেতুক! আমরাই মুখরিত জীবনের উপাধেয় উপাদান, অথচ বেড়ে চলে জীবনের নিরবতা কোলাহল কেড়ে নেয় প্রাণ। তোমার প্রেমে অকালে ত্রিকালদর্শী ঈশ্বর, বিশ্বাসে অবিশ্বাসী, অথচ কথা ছিল মুছে যাবে মৃত্যুর দাগ অথচ কথা ছিল বইবে না রক্তের বান! বিশ্বাসী নই বিশ্বাসেও [ বিস্তারিত ]



লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য




ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ