বিভাগ: গল্প

ক্রাইম রিপোর্টার শান্তা : পর্ব ৩ ও শেষ

আরজু মুক্তা ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০১:০৭:৩৪পূর্বাহ্ন গল্প ১ মন্তব্য
কালাম দরজা খোল। না, আপা। নিজের জীবন তো নিজেই শেষ করছি। তারপরেও চাইনা, আপনার রিপোর্টের কারণে আমার বাচ্চা দুটার জীবন নষ্ট হোক। কথা দিচ্ছি,  আমি তোমার ছবি ছাপাবো না। না, আপা! আপনি নামও দিতে পারবেন না। ঠিক আছে। আপা, কীভাবে এই পেশায় আসলাম সেটার থেকে বড় কথা হলো, কখনো ছেলেমেয়েকে বাস স্ট্যান্ড, রেলস্টেশন, চায়ের দোকান [ বিস্তারিত ]

এক মুঠো ভালোবাসা (শেষ পর্ব)

ইঞ্জা ২ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ০২:০৫:৪২অপরাহ্ন গল্প ২৬ মন্তব্য
এরপর কি হলো মম? এরপর ছায়ার পেটে তুই যতই বড় হচ্ছিলি ততই ছায়ার মেজাজ খিটখিটে হয়ে উঠতে লাগলো, মেজাজ উঠলে হাতের কাছে যা ছিলো তাই ছুড়ে ভেঙ্গে ফেলতো, মাঝে মাঝে একদম চুপ মেরে যেতো। ডাক্তার বলেছিলো তোর বাবাকে, তোকে নেওয়াটাই চরম ভুল ছিলো ছায়ার, কারণ ছায়ার অপারেশনের পর ও বাচ্চা নেবে তাই কল্পনা করতে পারেনি [ বিস্তারিত ]
জমিদার হরিবাবুর এক বাল্যবন্ধু নবীনবাবু তাঁর বসবাস উত্তরবঙ্গে। বয়স প্রায় আশির কাছাকাছি। ওকালতি করে সংসার চলে। বড্ড পেঁচুক মানুষ। লোকে প্যাঁচাল নবীন বলে ডাকে। কথায় কথায় প্যাঁচ ছাড়া আর কিছু বলার থাকে না তাঁর। আজ ছুটি বিধায় বাড়িতে বসে পত্রিকা পড়ছেন। পত্রিকার হেড লাইনে ভেসে উঠলো, আনন্দপুরের জমিদার হরিবাবুর বাড়ি আজ হতে ভূতবাড়ি নামে নামকরণ [ বিস্তারিত ]

অধরা প্রেম

সুপর্ণা ফাল্গুনী ৩১ মে ২০২০, রবিবার, ০৪:৫৯:৪৬অপরাহ্ন গল্প ১৭ মন্তব্য
আজ সুতপার মনে পড়ছে যারা তাকে ভালোবেসে বিয়ে করতে চেয়েছিল তাদের কথা। তারা সবাই উচ্চশিক্ষিত, সুদর্শন , সুপুরুষ ছিল। কিন্তু রাজীবকে ভালোবাসতে গিয়ে তাদের সবাইকে হেয় করেছে বলা যায় রাজীবের প্রতি গভীর ভালোবাসা, অন্ধবিশ্বাস থেকে তার এই আচরণ। কিন্তু রাজীব কথা দিয়েও কথা রাখেনি। তার নাট্যগ্রুপের একজনের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সুতপা কখনো ‘ভালোবাসা’ নামক [ বিস্তারিত ]

এক মুঠো ভালোবাসা (৪৫তম পর্ব)

ইঞ্জা ৩০ মে ২০২০, শনিবার, ০৮:১৬:২৭অপরাহ্ন গল্প ২০ মন্তব্য
এক মাস পরঃ অনিক ছায়া গত সপ্তাহে ফিরে এসেছে নিউইয়র্কে, ছায়া ব্রেকফাস্ট রেডি করে অনিককে ডাক দিলো, অনিক এসে বসলে ছায়া ব্রেকফাস্ট সামনে এগিয়ে দিয়ে নিজের প্লেটে অল্প ভেজিটেবল নিয়ে লুচি দিয়ে খেতে শুরু করলো। কি ব্যাপার তুমি আজ অল্প ভেজিটেবল নিলে? শরীরটা তেমন ভালো লাগছেনা অনিক। অনিক দ্রুত ছায়ার মাথায় হাত দিয়ে দেখলো, কই [ বিস্তারিত ]
সম্পর্কে তিনি আমার মামা হোন। আমার মায়ের কাজিন। একদিন হঠাৎ করেই মামার মাথায় ভুত চাপলো। মামা (তুকতাক)তন্ত্রমন্ত্র শিখবেন। যেই ভাবনা সেই কাজ। মামা যথারীতি কোনো এক তান্ত্রিকের  কাছ থেকে তালিম নিতে শুরু করলেন। বেশ কিছুদিন শেখার পর এবার মামার এপ্লাই করার পালা। সেদিন ছিল অমাবস্যার রাত। চারিদিকে অমানিশার ঘোর অন্ধকার। এমন ঘুটঘুটে অন্ধকার রাতে কবরে [ বিস্তারিত ]

মশাটির নাম ঝাঝাঝুঝু

আতা স্বপন ২৭ মে ২০২০, বুধবার, ১০:২১:০১অপরাহ্ন গল্প ১০ মন্তব্য
মা মা ও মা কোথায় তুমি। প্রচন্ড খিদে । খেতে দাও। সবেত স্কুল থেকে এলি। আগে হাতমুখে পানি দে। ফ্রেস হ। নাবিল নামের ছেলিটি তখন স্কুল বেগ বিছানায় ছুরে ফেলে বাথরুমে ঢুকল। খুব জোরে বাথরুমের দরজা আটকালো। ঠিক তখন্ই শুনতে পেল- দড়জা এতো জোড়ে লাগানো অভদ্রতা। কে কে? কথা বলল? ধুত কে আবার হবে। বাথরুমেতো [ বিস্তারিত ]
বাগানবাড়ির ভূতের লাইব্রেরি ভাঙাচোরা ও শ্রীহীন। তারমধ্য চারদিক জুড়ে অন্ধকার হয়ে আছে গাছগাছালিতে। কয়েকশো বছর পূর্বের বাড়ি কোনরকম দাঁড়িয়ে আছে। এ বাড়িতে মোটেও সংস্কার কাজে হাত দেন নি হরিবাবু। লাইব্রেরির ভেতর ভূতপ্রেতের কারুকার্যে ভরপুর। এসবের উপর তলানি পড়ে আছে। বইগুলো প্রাচীন বটগাছের কাঠের সিন্ধুকের ভেতর থাকায় কোনকিছু নষ্ট হয়নি। এ বাগানবাড়ির লাইব্রেরির একপাশে থাকতো যতীন্দ্রনাথ [ বিস্তারিত ]
ঘোর অমাবস্যা, তারমধ্যে ঘড়ির কাটায় বারোটা বেজে পনেরো মিনিট। লালমোহন শালুক কাপড় পরে তৈরি হচ্ছে বাগানবাড়ির অশ্বত্থ গাছের নিচে বসে তার জামাইবাবুকে নিয়ে প্লানচেটের মাধ্যমে ভূতপ্রেতের আবাহন করতে। চারদিক জুড়ে অন্ধকার নেই আকাশে তারারত্নের আনাগোনা। পুরো শহর ঘুমঘোরে আচ্ছন্ন। হরিবাবু ভিন্ন রঙের রঙ দিয়ে আবাহনী দাগ টানছেন।  লালমোহন প্লানচেটের আবাহনী শুদ্ধতার মন্ত্র দিয়ে পবিত্র করছে। [ বিস্তারিত ]

এক মুঠো ভালোবাসা (৪৪তম পর্ব)

ইঞ্জা ২০ মে ২০২০, বুধবার, ০৫:৩৭:৪২অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
এক সপ্তাহ পরঃ সকাল নয়টার সময় অনিকের ঘরের সবাই ব্রেকফাস্ট করছে, এই সময় কলিংবেলের শব্দ হলে ঘরের কাজের ছেলেটা গিয়ে দরজা খুললো, কিছু সময়ের মধ্যেই ও ফিরে এসে অনিককে বললো, ভাইজান দুইজন মানুষ এসেছেন আপনার সাথে দেখা করতে।  অনিক অবাক হয়ে বললো, কে এসেছেন জিজ্ঞেস করেছো? সোহেল সাহেব। ওহ আচ্ছা আসছি, উনাদেরকে বসাও আর কফি [ বিস্তারিত ]

ইদের গল্প  : তবু খোঁজে চাঁদ 

মাহবুবুল আলম ১৯ মে ২০২০, মঙ্গলবার, ০৯:৩১:১৭অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
মাহবুবুল আলম।। ঢাকার বুকে এমন নীল আকাশ এর আগে কোনোদিন দেখেছে কিনা এ মুহূর্তে মনে করতে পারছেনা মারজিয়া। পুরো আকাশ গাঢ়ো নীল সামিয়ানায় ঢেকে দেয়া হয়েছে যেন। কারওয়ান বাজার ও এর আশপাশের এলাকায় এখন লোডসেডিং চলছে । মারজিয়া আজ একটা এ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে এসেছে কারওয়ানবাজার রেলবস্তিতে। লোডসেডিং এর কারণে পুরো এলাকাটি ঘুটঘুটে অন্ধকারের চাদরে ঢাকা। সন্ধ্যা [ বিস্তারিত ]

এক মুঠো ভালোবাসা (৪৩তম পর্ব)

ইঞ্জা ১৭ মে ২০২০, রবিবার, ০৯:৩৫:৫৫অপরাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
ছায়া তুমি চাও ভালো কথা, কিন্তু এক পার্সেন্টের উপর ভর করে তুমি বাবাকে প্রমিজ করতে পারো না। দেখো এই মুহূর্তে বাবার জন্য আমার মাথায় যা এসেছিলো তাই বলেছি, কিন্তু এখন আমি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছি, আমি মা হবো, তোমার সন্তানের মা।  অনিক মাথায় হাত ভুলিয়ে দিয়ে বললো, আচ্ছা হতে পারলে হবে, এখন এ নিয়ে টেনশন করোনা।  [ বিস্তারিত ]
অদ্ভুত কথা কেন বারবার বলতে যাও বিনু। আমি একজন জমিদার আমার মুখের উপর তোমার কোন কথা মানায় না। দূর গাঁ হতে এসেছে বলে কিছু বলতে যাচ্ছি না। না হলে বাড়ির কালোবিড়াল দিয়ে ঝেঁটিয়ে বিদায় দিতাম দুজনকে। আজ্ঞে কর্তামশাই আপনার কালোবিড়াল নাকি রাতের বেলা কালোভূত হয়ে যায়! কে বলে বিনু এমন উদ্ভট কথাবার্তা? আজ্ঞে কর্তামশাই কে [ বিস্তারিত ]
দুপুর ১২ টা। বান্ধবীর বাসা থেকে বের হয়ে কালামের বাসায় গেলাম। ওর বৌ বললো, ” আফা ওনার তো ব্যবসা, আসতে ৩/৪ টা হবে।” কিসের ব্যবসা ওর? ডিস আর হোটেলের। আচ্ছা। ভাবলাম, এই ফাঁকে রমযানের বৌদের খবর নিলে কেমন হয়? কিন্তু এমন এক মহিলা দরকার যাকে সবাই এক নামে চেনে। একটু খু্ঁজতে পেয়েও গেলাম। আসিয়া বেগমকে। [ বিস্তারিত ]

এক মুঠো ভালোবাসা (৪২তম পর্ব)

ইঞ্জা ১৩ মে ২০২০, বুধবার, ১০:১৫:০০অপরাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
ডাঃ তৌফিক অনিকের বাবাকে খুব ভালো করে চেক করে অনিককে নিয়ে বের হয়ে এসে নিজ চেম্বারে গিয়ে বসলো। কি বুঝলে বন্ধু। আনকেল এখন অনেক সুস্থ, আশা করছি দুই একদিনের মধ্যে উনি আরও সুস্থ হয়ে যাবেন, এরপর আমরা উনাকে ঔষধপত্র দিয়ে রিলিজ করে দেবো। সত্যি বলছিস? হাঁ বন্ধু, রিলিজের পনেরো দিন পর আনকেলকে আবার ভর্তি করিয়ে [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ