রোকসানা খন্দকার রুকু

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৪ মাস ২৬ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ৫৭টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ১৫২৪টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ১৪৫৫টি

ফিরব আবার

রোকসানা খন্দকার রুকু ২৮ নভেম্বর ২০২০, শনিবার, ০৮:০৮:২০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২১ মন্তব্য
আমি আজীবন ফিরবনা এমন প্রতিশ্রুতিতে আসিনি, আমি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ফিরব আবার শীতল মাটির পরে। কোন এক কার্তিকে আমার আগমন বলাবলি কতজনে, এমন অসময়ে মেয়ে সেতো অপয়া, অনটন, দূরদর্শা। মা মুচকি হেসেছিল, বাবা কপালে দিয়েছিল দীর্ঘ চুম্বন আমার মেয়ে, আমার অহংকার। শীতের আগমনী ঝরাপাতা আমার গায়ে ফুল হয়ে পরেছিল টুপটাপ, খেতের সোনালী ফসল ঝরিয়েছিল সোনা হাসি, গোয়ালের [ বিস্তারিত ]

প্রেমের কবুতর!

রোকসানা খন্দকার রুকু ২৭ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ১২:৪৪:২৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২১ মন্তব্য
প্রেমী কবুতর না কাক? “বুদ্ধিমানরা প্রেমে পরে একবার, বোকারা প্রেমে পরে দুইবার আর চরিত্রহীনরা প্রেমে পরে বারবার”। কবুতরের নাম প্রেমের কবুতর কেন? কিংবা আমরা কোন চমৎকার জুটি দেখলে কেন বলিজোড়া কবুতর। কারন তো অবশ্যই আছে। কবুতর প্রেমিক পাখি, একসময়ের প্রেমের চিঠিবাহকও ছিল । প্রেমের ব্যাপারে সে এতটুকু ছাড় দিতে নারাজ। প্রেমের যত ছলাকলা সবই তার [ বিস্তারিত ]
কিছু দেশ জনসংখ্যা ও জন্মহার বাড়াতে পুরস্কার ঘোষণা করে। আর আমাদের মত গরীব দেশগুলোতে কমানোর জন্য পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এনজিও তে চাকুরীর সুবাদে এ অভিজ্ঞতা অনেক আছে। বাঙালি কি জিনিস মাঠে গেলেই বুঝবেন। বোকা নয় কিন্তু অতি চালাক। সেমিনারের আয়োজন করা হল- জনসচেতনতা, বাল্যবিয়ে, জন্মনিয়ন্ত্রণ এসব নিয়ে। আপনার সমস্ত উপহার সামগ্রী( খাবার দাবার) নেবে। [ বিস্তারিত ]
আপনারা যারা প্রায়শই এ রোডে যাতায়াত করে থাকেন তাদের ভালোভাবেই জানার কথা। ফেসবুকেও অনেকবার দেখেছি কিন্তু করোনায় যাওয়া হয়নি বলে বোধগম্য ছিলনা। রংপুর থেকে অনেকেই এসে বলেন। একঘন্টা বিশ মিনিট এর রাস্তা আড়াই ঘণ্টা লাগে যেতে। ড্রাইভার যদি টাইম মেইনটেন করতে চান তাহলে হয় বাস খালে পড়বে, নয়ত আমার মত কোমর ব্যাথা রোগী পনেরদিন ব্যাথায় [ বিস্তারিত ]

আমাদের একদিন

রোকসানা খন্দকার রুকু ২০ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ০৮:১৮:১৩অপরাহ্ন ছোটগল্প ২০ মন্তব্য
  – (মেয়ে) এই নাও সাতসকালে তোমার  জন্য কুড়িয়ে নিয়ে এলাম। সাদা ফুল নাম জানিনা । লাল গোলাপ নয় কারন লাল মেয়েদের রঙ। – সুন্দর কিন্তু আমার যদি লাল গোলাপই চাই তখন কি হবে? আর এই অসাধারণ ফুলের জন্য কি করতে পারি! – কিছু হবে না। অসাধারণ ফুলের জন্য আজকের দিনের জন্য চা-কফি, রান্না সব [ বিস্তারিত ]

যদি কোনদিন!

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৯ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৬:৪০:২২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১২ মন্তব্য
বললে তুমি এসো তবে দুজনে মিলি, হও তুমি বিশাল সমুদ্র, আমি হই ডুবুরি। আপ্লুত আমি- আহ্বানে নিলাম টেনে, সমুদ্র সঙ্গমের সমস্ত আনন্দ; তটের নুড়ি পাথর বালুতে হল তোমার স্নান বেশ! আমার ও যে তাতেই পূর্ণতা, সুখ, পরম পাওয়া। তোমার আরও আরও চাই; তলদেশের অপার সৌন্দর্যও তোমার অজানা নয়। আমিও- বেশ তবে হোক আলিঙ্গন, কড়া আহবানে- [ বিস্তারিত ]

করোনা চুমু!

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৬ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ০৩:২৭:৫৮অপরাহ্ন রম্য ২৩ মন্তব্য
আজ লিখব চুম্বন রম্য- চুমু, চুম্বন, কিস্ কতনামেই আমরা বলি।যার যেটা বলতে ভালো লাগে। বেশ কিছুদিন আগের সেই ভাইরাল চুম্বন দৃশ্য নিশ্চয়ই মনে আছে সবার। অনেক আলোচনা- সমালোচনা লেখালেখি হয়েছে। মুসলিম একটা দেশে এমন ঘটনা ঘোর অন্যায়। আমরাও পাপীদের তালিকায় পরে যাচ্ছি। এমন অবস্থা যেন প্রকাশ্য চুমুর মত জঘন্য, অশ্লীল, জাত যাওয়া পাপ আমাদের দেশে [ বিস্তারিত ]

চাই আজ!

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৫ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ১০:২৬:১৫পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৬ মন্তব্য
জানতামই না পাথর সরালে ঝর্ণা পাওয়া যায়, স্নানে স্নানে নিজেকে করা যায় পবিত্র। হেঁটে বেড়িয়েছি  কতশত অমসৃণ পথ; এলোমেলো, অগোছালো, যেমন-তেমন, দেখেছি মরা গাছ আর শুকনো পাতার মরমর, শনশন। শুকিয়ে গেছিল চোখের কোল! তাই শিশির কণা গুলোকে মনে হত ফোঁটা ফোঁটা চোখের জল। জানতামও না তার সাথে হতে পারে সূর্যস্নান। ঘনবনের অন্ধকার পেরিয়েও পাওয়া যায় ছোট [ বিস্তারিত ]

কাব্য কবিতায় চল্লিশ

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৩ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ০২:২৬:২৮অপরাহ্ন গল্প ২৯ মন্তব্য
ঘটনা বহু বছর আগের। তাদের কাল্পনিক নাম দিলাম কাব্য ও কবিতা- আজ থেকে চল্লিশ বছর আগে চব্বিশ/পঁচিশ বছরের অবিবাহিত ছেলে মানে আইবুড়ো। এতবয়সী অবিবাহিত মেয়েতো প্রশ্নই ওঠেনা। ছেলের গতিতে চারিদিকে মেয়ে খোঁজার ধুম পরেছে। টাকা পয়সাঅলা বাবার একমাত্র ছেলের বিয়ে বলে কথা। এদিকে যার বিয়ে সে কারও চোখে কবিতা রচনা করতে পারছেনা। অনেক মেয়ে দেখা [ বিস্তারিত ]

আমি কেন নয়?

রোকসানা খন্দকার রুকু ১১ নভেম্বর ২০২০, বুধবার, ০৯:২৩:১৭অপরাহ্ন গল্প ১৯ মন্তব্য
” ছেলে আমার মস্ত মানুষ মস্ত অফিসার, মস্ত ফ্ল্যাটে যায়না দেখা এপার ওপার,,,আমার ঠিকানা তাই বৃদ্ধাশ্রম- বিখ্যাত চোখ ভাসানো গানের কথা। খালা কি বানাইছ? দাও খাইতে থাকি। = কি আর বানামু ওই প্রত্যেকবছর যা খাও তাই! – হুম তোমার এই চিতই পিঠা, ভাপা পিঠা, পাটিশাপটা খাওয়ার জন্যই তো শীতের অপেক্ষা করি। = আমিও খাওয়াবো বইলা [ বিস্তারিত ]

দুষ্টুমিষ্টি মা

রোকসানা খন্দকার রুকু ১০ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ০৮:১৮:২৩অপরাহ্ন রম্য ২৫ মন্তব্য
সকাল সকাল নেট অন করে পোস্ট ইন্জা ভাইজানের মা নেই। ভীষন কষ্ট পেলাম। আমাদের যাদের মা-বাবা এখনও বেঁচে আছেন আমরা সত্যিই ভাগ্যবান। শীত এসে গেছে, তার উপর করোনা প্রকোপ তাই বুড়ো বাবা-মায়ের একটু বেশি যত্ন নেয়া প্রয়োজন। নিজেরা আমরা বাইরে থেকে এসে অবশ্যই তাদের কাছে যাবার আগে করনীয় কাজগুলো করে নেব। বয়স হবার জন্য তারা [ বিস্তারিত ]

আহা! কি আনন্দ,,//

রোকসানা খন্দকার রুকু ৫ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০১:৪৪:৪৭অপরাহ্ন গল্প ২৩ মন্তব্য
রান্না হয়েছে সুগন্ধি চালের ভাত, খাসির রানের মাংস আর কচি মুরগীর ঝোল। রহিম শেখ তার ছয়ছেলেমেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে দস্তরখানা পেতে খেতে বসেছেন। খাওয়া শেষে মিষ্টি মুখ করে ঢেঁকুর তুললেন। দস্তরখানা আর মিষ্টি দুটোই সুন্নাত। আমাদের নবী অবশ্য পেটের একভাগ খালি রেখে খেতেন। মাঝেমাঝে উপোষ থাকতেন খাবারের অভাবে। করিম শেখের খাবারের অভাব নেই। করিম শেখ [ বিস্তারিত ]
শীত এসেই গেল! আমার পছন্দের ঋতু। কিন্তু বয়স যত বাড়ছে পছন্দ ততই বাঁধ সাধছে। কোমর ব্যথা চরম আকার ধারণ করেছে। বসলে উঠতে পারিনা। নামাজ চেয়ারে বসে। সারাদিন হট ওয়াটার ব্যাগ কোমরে দিয়ে শুয়ে থাকি। কি যে যন্ত্রণা যার ব্যথা আছে সেই বুঝতে পারবে। তো ঘটনায় আসি। ঘটনা দিন পনের আগের- কর্তার ফোনে জানলাম তিনি ভূরুঙ্গামারী [ বিস্তারিত ]

নামহীন!

রোকসানা খন্দকার রুকু ২ নভেম্বর ২০২০, সোমবার, ০২:১১:১০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৮ মন্তব্য
শুরুটা তুমিই করেছিলে; অনেকটা আমার অনিচ্ছায়।তারপর অনেক বারই বলেছি, আমাদের সম্পর্কের নাম কি বলবে? আমি দিয়েওছিলাম,তোমার পছন্দ হয়নি! বলেছ নাম আবার কি? বুঝে নিতে হয়! ভেবেছি কতবার কতভাবে এমন চাইনা, থাকবনা, দেবনা ঠাঁই দেবই-না। কি এক অজানা মোহে টেনেছ কাছে বারবার, যতবারই দুরে গেছি-যেতে চেয়েছি ততোবার, একেবারে ডুবে যাওয়ার আগ পর্যন্ত। তারপর আমার ফাগুনে, বর্ষায়, শরতে, হেমন্তে করেছ [ বিস্তারিত ]

তবুও চাই!

রোকসানা খন্দকার রুকু ১ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ১২:১৭:৫১অপরাহ্ন ছোটগল্প ২০ মন্তব্য
“পরের কারনে স্বার্থ দিয়া বলি এ জীবন মন সকলি দাও,তার মত সুখ কোথাও কি আছে আপনার কথা ভুলিয়া যাও। পরের কারনে মরনেও সুখ, সুখ সুখ করি কেঁদনা আর; যতই কাঁদিবে যতই ভাবিবে ততই বাড়িবে হৃদয় ভার” বড্ড অগোছালো/ এলোমেলো তুমি! – হ্যাঁ ঠিক তাই। জীবন সম্পর্কে উদাসীন কোনকিছুরই ঠিক নেই! সবসময় কি এত ভাব? – আমি [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য