রোকসানা খন্দকার রুকু

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ১ বছর ৬ মাস ১১ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ১৬৫টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ৩৫০৪টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৩৫৬৬টি

স্কারলেট রোজ

রোকসানা খন্দকার রুকু ৬ জানুয়ারী ২০২২, বৃহস্পতিবার, ০৮:১৪:২০অপরাহ্ন গল্প ৭ মন্তব্য
উন্নত দেশের মানুষের নামের ব্যাপারে আমাদের মতো এতো বালাই নেই। জন্মের সময়ের নাম পছন্দ না হলে, তাঁরা চাইলেই নাম পরিবর্তন করতে পারে। আমাদের দেশে নাম পরিবর্তন করলে সেটি নিয়ে রীতিমতো কটাক্ষ বা হাসাহাসি করা হয়। এ দেশে নামের বেলায়ও ব্যক্তিস্বাধীনতা বলে কিছু নেই। গ্রামের দিকে নাম পরিবর্তনের একটি মজার ব্যাপার থাকে। মানে নামকে বিকৃত করা [ বিস্তারিত ]

তবুও ফিরে ফিরে আসি

রোকসানা খন্দকার রুকু ৩ জানুয়ারী ২০২২, সোমবার, ০৮:০১:১২অপরাহ্ন রম্য ৮ মন্তব্য
নতুন বছরের, প্রথম দিনেই যদি অর্থ  যোগের সম্ভাবনা থাকে তাহলে মন ফরিঙ তো উড়ে ফুড়ুৎ- ফারুত। আগের পনেরদিন থেকেই রাশি ফল দেখছি। বৃশ্চিক এর অর্থ যোগের বিরাট সম্ভাবনা রয়েছে। অন্য ব্যাপারে যেমনই কাটুক আমার মতো হাত খোলা মানুষের অর্থ যোগ হলো আগামীর ভালোর আভাস। ভাবছিলাম, কিভাবে অর্থ যোগ হতে পারে? ঠিক শেষ দিনই সম্ভাবনার ফোন [ বিস্তারিত ]

কিছুক্ষন ট্রেনে

রোকসানা খন্দকার রুকু ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ০৬:৫৮:০৩অপরাহ্ন গল্প ৭ মন্তব্য
ঢাকা টু কুড়িগ্রাম আন্তনগর ট্রেন তখনও চালু হয়নি। এর আগে ঢাকা রংপুর থেকে যাওয়া যেত। তবে কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়ার সর্ট- কাট উপায় ছিল। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা নাগাদ একটা বগি লেংটি সাপের মতো হেলে-দুলে এসে লোকজন ভরিয়ে নিয়ে পার্বতীপূর যেত। সেখানে অজগর সাইজের ট্রেনের সাথে এক হয়ে তারপর ঢাকা গমন। কোন কোন সময় পার্বতীপূর না [ বিস্তারিত ]

পৌষ তেষ্টা

রোকসানা খন্দকার রুকু ২১ ডিসেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ০৮:২৩:৪৪অপরাহ্ন গল্প ১০ মন্তব্য
প্রজাপতির ডানায় স্বপ্ন তুলে দেয়া ডাগর ভোর। এমন ডাগর ভোরে আমি রান্না করতে গিয়ে হাত পুড়ে, বরফ পানিতে ডুবিয়ে কষ্ট দমনের চেষ্টা করছি। অথচ এমন ডাগর শীত শীত ভোরে ঘুম ভেঙ্গে গেলেও বিছানা ছাড়তে মন চায় না। আর যুগল হলে তো কোন কথাই নেই! তারা ভোরবেলায় নতুন করে প্রেমময় খুনসুটিতে মেতে ওঠে। প্রথম প্রথম আমরাও [ বিস্তারিত ]

অর্কিডের সারাবেলা

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৩ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার, ০৭:৪৭:৪৮অপরাহ্ন গল্প ১৩ মন্তব্য
কিছুদিন পরপরই আমার ঘুমের সমস্যা দেখা দেয়। ঘুম হয় না বলেই মন খারাপ আর ঝিম মেরে বসে থাকি। কোন কিছুতে মজা পাইনা। অকারন মেজাজ খারাপ হতে থাকে। ডা: মজুমদার আগে থেকেই আমার ট্রিটমেন্ট করেন। তিনি জানতে চাইলেন,- অর্কিড, প্রেমে পড়েছ নাকি? এ বয়সে তো মানুষ মরার মতো ঘুমায়! আর তোমার ঘুম হয়না! এটা কোন কথা? [ বিস্তারিত ]

বেরসিক দুপুরে

রোকসানা খন্দকার রুকু ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ০১:২৮:০২অপরাহ্ন উপন্যাস ১৯ মন্তব্য
বিয়েটা পরে আর এগোয়নি। বাবা যেহেতু চাইতেন আমি ভালো কিছু করি তাই শাহরুখের চ্যাপ্টারে আগুন ধরিয়ে পড়ার টেবিলেই পরের কিছু বছর মুখ গুঁজে থাকতে হয়েছে। এর মধ্যে ভাইয়া বিয়ে থা করে নিজের মতো গুছিয়ে , নিজের সংসারে  ব্যস্ত। সেখানে আমাকে নিয়ে তার আর ভাবার সময়ও হয়তো ছিলো না। তাই যে সময় বিয়েতে স্যাটেল হবার কথা [ বিস্তারিত ]

লেখকের বন্ধু

রোকসানা খন্দকার রুকু ৮ নভেম্বর ২০২১, সোমবার, ০৮:৫২:৪২অপরাহ্ন গল্প ১৩ মন্তব্য
‘একটা ঝোলা ব্যাগ কাঁধে আর লম্বা চুল- দাঁড়িতে কিছু মানুষ নিজেকে লেখক হিসেবে দাবী করে। আজকাল আবার এই দলে যোগ হয়েছে মহিলারাও। টিভি সিরিয়াল দেখে বাকি সময়টুকু তারা ফেসবুকে এর, ওর লেখা কোট করে নিয়ে কিছুমিছু লিখে নিজেকে লেখক হিসেবে দাবী করে।’- এমন কথা শুনছিলাম বিয়ে বাড়ির স্বনামধন্য লোকেদের মুখে। আমি অনিন্দিতা হক, লেখালেখি করি। আমার [ বিস্তারিত ]

প্রিয় একুশ

রোকসানা খন্দকার রুকু ৩১ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ০৩:০৬:১৯অপরাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য
প্রিয় একুশ সাল, এবার শান্তি হলো তোমার? সেই বিশে খালি করতে শুরু করেছো আমার চারপাশ, প্রিয় বন্ধু, প্রিয় আত্নীয়, প্রিয় পরশী, জানা-অজানা সবকিছু কেড়ে কেড়ে। বিশ্বময় তোমার লালা ঝড়ে সবাই নতজানু তবুও যেন তোমার শান্তি নেই।   এক কোণে ছিলাম আমি আমার ‘ বুনোমাধব’ কে নিয়ে সুখের বসতে; একান্তে লুকিয়ে আমার হৃদস্পন্দনে; শেষ আশ্রয়ে। সেখানেও [ বিস্তারিত ]

বেরসিক দুপুরে- ২য় পর্ব

রোকসানা খন্দকার রুকু ২২ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার, ০৭:০০:০৮অপরাহ্ন উপন্যাস ১৫ মন্তব্য
গিয়ে দেখি আমার সহচর দুজন ক্যান্টিনেই বসা। আমাকে দেখে জমবে এবার টাইপের একটা হাসি দিলো পলিটিক্যাল সায়েন্সের হালিমা বানু। আমিও শুকনো হাসিতে তাদের বরণ করলাম। তাদের হাসির কারণ বুঝতে বাকি রইলো না। এক্ষুনি তারা আবারও বেরসিককে নিয়ে হাসাহাসিতে মেতে উঠবে। অন্যসময় হলে অন্যকথা, তবে আজ আমার মোটেও মুড নেই,হাসি ঠাট্টার। আর আমি কেনই বা তাদের [ বিস্তারিত ]
থার্ডইয়ারের মেয়েদের পরিসংখ্যান পড়ান সামায়রা ম্যাম।তার কাছে পয়সা মূখ্য নয়, তিনি পয়সা নেন না, পড়ান সময় কাটাতে। তাছাড়া কাউকে শেখাতে পারার মধ্যে ভীষন আনন্দ কাজ করে। পডানোতে শিক্ষকদের এমন আনন্দই থাকা দরকার। আর একটি থাকা দরকার তা হলো শিক্ষার্থীর প্রতি আন্তরিকতা, কাছে টেনে নিয়ে সমস্যার সহজ সমাধান করতে চাওয়ার মনোভাব। সামায়রা ম্যামের সবচেয়ে প্রিয় মেয়েটি [ বিস্তারিত ]

বেরসিক দুপুরে

রোকসানা খন্দকার রুকু ১৩ অক্টোবর ২০২১, বুধবার, ০৭:৪৭:৫২অপরাহ্ন উপন্যাস ২১ মন্তব্য
একটা খরখরে বিশ্রী রোদের দুপুর ছিলো সেদিন। এমন দুপুরে  মেজাজ এমনিই বিগরে থাকে। নাকে মুখে ফোঁটা ফোঁটা লবনাক্ত ঘাম চাইলেও এডিয়ে যাওয়ার উপায় থাকে না। এমন দুপুরে যদি কারও প্রেমিকের সাথে প্রথম পরিচয় হয়। তাহলে সেটা সাধারণত গল্প উপন্যাসে চরম বেমানান। যতো প্রেমের উপন্যাস আজ অবধি পড়েছি সবগুলোতেই রোমান্টিক একটা সময় থাকে। সেটা অবশ্যই বর্ষা [ বিস্তারিত ]

একটা নাম দাও

রোকসানা খন্দকার রুকু ১০ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ০৩:৩১:১০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৫ মন্তব্য
দেখছি, ভালোও লাগছে; মজাও পাচ্ছি তোমার সেই চিরচেনা ব্যস্ততা, খুনসুটিময় সংলাপ, বিগলিত আহ্লাদী সুর ও কনকনে প্রেম, যা কিছুদিন আগে আমার জন্যও ছিলো। উহ্ শব্দের শশব্যস্ততা, কষ্ট পাবার রঙগুলিও ভীষন চেনা। আর ওই আগলে রাখবার যে সবুজ সোনালীকে বারবার বেঁচে খাও এদোরে ওদোরে, আর কতোকাল তা বেচাবেচি করবে এভাবে? গন্তব্য বলে একটা শব্দ তো আছে? [ বিস্তারিত ]

তবুও শীত নামবে

রোকসানা খন্দকার রুকু ৫ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার, ০৩:৩০:৫৮অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৭ মন্তব্য
তোমার সাথে কি কথা হয়? তোমার ভাষায় আজাইরা কিছু সংলাপ, আমার অনবরত উচ্ছসিতো বলে যাওয়া আর তোমার বিরক্তিকর হুম, হ্যাঁ, শুনছি, বলো। একসময় নিস্প্রুভ প্রতিপক্ষে পরাজিত আমি খান্ত দেই বলা যায় পাবার খাতা আমার পুরোই খালি, আমাদের সংলাপ আপাতত: এই!   জানিনা কি থাকে তোমার ওই অবহেলায়, এডিয়ে যাওয়া হুম, হ্যাঁ, শুনছি, বলো নামক কিছু [ বিস্তারিত ]

শিক্ষাগুরুর মর্যাদা

রোকসানা খন্দকার রুকু ১ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার, ০৭:২৭:৪০অপরাহ্ন সমসাময়িক ২২ মন্তব্য
বাদশাহ আলমগীর- কুমারে তাঁহার পড়াইত এক মৌলভী দিল্লীর। একদা প্রভাতে গিয়া দেখেন বাদশাহ- শাহজাদা এক পাত্র হস্তে নিয়া ঢালিতেছে বারি গুরুর চরণে পুলকিত হৃদে আনত-নয়নে, শিক্ষক শুধু নিজ হাত দিয়া নিজেরি পায়ের ধুলি ধুয়ে মুছে সব করিছেন সাফ্ সঞ্চারি অঙ্গুলি। শিক্ষক মৌলভী ভাবিলেন আজি নিস্তার নাহি, যায় বুঝি তার সবি। দিল্লীপতির পুত্রের করে লইয়াছে পানি [ বিস্তারিত ]

দেশ, ধর্ম, নারী

রোকসানা খন্দকার রুকু ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ০৪:১৬:২১অপরাহ্ন সমসাময়িক ১৬ মন্তব্য
ইতিহাসে দ্বিজাতি তত্বের ভিত্তিতে ভারত পাকিস্তান ভাগ হয়ে দুটো দেশ হয়েছিলো। যিনি এনীতির প্রবক্তা তার যুক্তি ছিলো মুসলমানদের ধর্ম নষ্ট হচ্ছে।হিন্দুদের সাথে থেকে থেকে মুসলমানরা তাদের কালচার গ্রহন করছে। বুঝে না বুঝে হিন্দু- মুসলিমরা মেনে নিয়ে আন্দোলনে নেমেছিলো ফলাফল আমরা সবাই জানি। পরবর্তীতে এটি একটি ভুল সিদ্ধান্ত ছিলো এ নিয়েও আফসোসের শেষ ছিলো না। ফাটল [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য