বিভাগ: গল্প

কাকতাড়ুয়া

তারিক ৩ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ০৯:২৯:৪১অপরাহ্ন গল্প ২৫ মন্তব্য
নতুন বাসায় ওঠার পর থেকেই কেন জানি আমার রাতের ঘুম পালিয়ে গেছে। প্রতি মধ্যরাতে আমি চুপিচুপি ব্যলকনিতে গিয়ে পায়চারি করি৷ মাঝেমধ্যে বোকার মত আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকি। নতুন বাসার চারপাশে অনেক গাছগাছালি আর তাতে প্রতি রাতে বিভিন্ন প্রজাতির পাখিরা এসে আশ্রয় নেয়। রাতে ওরা কত কিচিরমিচির করে। আমি মনযোগ দিয়ে শুনি। ওই পাখিদের মধ্যে কিছু [ বিস্তারিত ]

অস্পৃশ্য

জাকিয়া জেসমিন যূথী ২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৮:৪৩:৫০অপরাহ্ন গল্প ২৫ মন্তব্য
কিছুদিন হলো একজন আমাকে ডিস্টার্ব করছে। কোত্থেকে আমার আইডি পেয়েছে জানিনা। জিজ্ঞেস করলে বলেও না। মেয়ে আইডি বলে মনে হয়। আমি অনলাইন এসে ঢুকতেই সেই মেয়ের কাছ থেকে আমার উইন্ডোতে ছুটে আসে, হাই, হেলো, কি করছেন? মেয়েটার যেন আর কোন কাজকর্মই নেই! সারাদিনই বোধহয় অনলাইনে থাকে। কোত্থেকে আমার আইডি পেলো তা বলবে না। নিজের ছবি [ বিস্তারিত ]

পোস্টমর্টেম

তারিক ২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৬:৩৯:৪১অপরাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
তড়িঘড়ি করে হসপিটালে চলে এলাম। একটা লাশের পোস্টমর্টেম করতে হবে। লাশটি এক মধ্যবয়সী নারীর। বয়স নাকি ৩৫/৩৬ এর কাছাকাছি। যদিও আমি নিজে লাশটি দেখিনি। প্রতিটি পোস্টমর্টেমের আগে আমি বেশ টেনশনে ভুগি। কেন জানি মানুষের শরীরে কাটাছেঁড়া করতে আমার ভীষণ কান্না পায়। একজন ডাক্তার হিসেবে অবশ্য এসব কথা কারো সাথে শেয়ার করা যায়না। তবে এর একটা [ বিস্তারিত ]

হিমু-রুপার কথোপকথন

নৃ মাসুদ রানা ২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৭:৩৬:১১পূর্বাহ্ন গল্প ২৩ মন্তব্য
কিছু কথা ছিলো। হিমু – হুমম, বলুন। রুপা – সিগারেট? হিমু – প্রতিদিন এক প্যাকেট। রুপা – অন্য কোন নেশা আছে? মানে… হিমু – হুমম, একদম ঠিক ধরেছেন। সপ্তাহে দু-তিনবার হিরোইন, মদ আর গাঁজা…। রুপা – আর কিছু আছে? হিমু – নেশা উঠলে মাথা ঠিক থাকে না। রুপা – প্রেমটেম করেন নাকি? হিমু – করতাম। [ বিস্তারিত ]

দ্বিতীয় জীবন

তারিক ২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ১২:৩০:১২পূর্বাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
অস্ট্রেলিয়ায় আজ আমার প্রবাস জীবনের ৯ বছর পূর্ণ হলো। বেশ অভিমান নিয়েই দেশ ছেড়েছিলাম। সময়ের সাথে সাথে অভিমান গুলো হারিয়ে আবার মায়া সে জায়গা দখল করেছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আর ২৩ দিন পর আবার দেশে ফিরবো। অনেক তো হলো। ক্যানবেরার রাস্তায় সকাল সন্ধ্যা ট্যাক্সিক্যাব চালিয়ে এই ক বছরে বেশ ভালোই টাকা জমিয়েছি। দেশে ফিরে [ বিস্তারিত ]

একজন ভোলাচাঁদ

সাবিনা ইয়াসমিন ১ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ০৩:১৮:৩৫পূর্বাহ্ন গল্প ৩০ মন্তব্য
ভোলাচাঁদের সাথে নন্দিনীর প্রেম জন্ম-জন্মান্তরের। এক জনমে ভোলাচাঁদের প্রেমের পাল্লা ভারি, তো পরের জনমে নন্দিনীর। এই জনমে আবার তারা দুজন দুজনার হয়ে জন্মেছে। প্রতি জনমের মতো এবারেও তাদের মিলিয়ে দিয়েছে তাদের অদৃশ্য শুভাকাঙ্ক্ষী। প্রেমে অনুরাগ থাকবে, অভিমান থাকবে, আর খুনসুটি থাকবে না তা-কি হয়!! কেমন যাচ্ছে তাদের বিংশ শতাব্দীর প্রেম? নন্দিনী কিছুদিন ধরে ভোলাচাঁদকে খুব [ বিস্তারিত ]

অপেক্ষা

ইসমাইল জসীম ২৯ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১২:৩০:২২অপরাহ্ন গল্প ১১ মন্তব্য
নিয়মের চাকায় চলতে চলতে মানুষের জীবনে কেমন জানি একঘেয়েমি চলে আসে। মানুষ চায় একটু পরিবর্তন। একটু বৈচিত্র্য। একটু নতুনত্ব। পেছনে ফিরে তাকা। অতীত ভেবে কিছুটা রোমাঞ্চিত হওয়া। সুপর্ণাও তার ব্যতিক্রম নয়। দশটা ছয়টা অফিস, সাংসারিক টুকিটাকি কাজ বৃদ্ধ মা বাবার সেবা, সামলাতে সামলাতে সে যেন অনেকটা হাঁপিয়ে ওঠেছে। আজ পূর্ণিমা রাত। চিকমিক করা জোছনার আলো [ বিস্তারিত ]

১০০০ টাকার নোট

নৃ মাসুদ রানা ২৮ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১২:৩১:৪৯অপরাহ্ন গল্প ১৫ মন্তব্য
কয়েকজন বন্ধু পাত্রী দেখে এসে বলাবলি করছিলো – কার কেমন লেগেছে? ১ম বন্ধুঃ ভালোই। তবে আরেকটু ফর্সা হলে ভালো লাগতো। ২য় বন্ধুঃ শ্যামলা বর্ণের হলেও মেয়েটি দেখতে বেশ। আমার ভালো লেগেছে। ৩য় বন্ধুঃ কেমন যেন একটু বেঁটে বেঁটে লাগলো। আর বাড়ির পরিবেশটাও ভালো না। ৪র্থ বন্ধুঃ এখানে বিয়ে করা যাবে না। যা খাওয়াদাওয়ার অবস্থা। ইতিমধ্যে [ বিস্তারিত ]

জিনান কি সত্যিই পরী দেখেছিলো

ইসমাইল জসীম ২৮ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:৪৮:২৩পূর্বাহ্ন গল্প ১০ মন্তব্য
ছোটবেলা থেকে জিনান পরীদের কথা শুনে আসছিলো তার মা ও দাদু-নানুর কাছে। পরি নিয়ে কতো গল্প পড়েছে সে গল্পের বইয়ে। বাবা দেশে থাকলে জিনাকে তো পরীরানীর গল্প বলেই বলেই ঘুম পাড়াতো। লালপরী, নীলপরী, ফুলপরী, পরীরানীসহ আরো কত পরীর গল্প। জিনান এখনো ছোট । সবে তৃতীয় শ্রেণিতে উঠলো। বাবা থাকেন দেশের বাইরে । জিনানের অনেক দিনের [ বিস্তারিত ]

অনুপমার অব্যক্ত প্রেমের গল্প

সুরাইয়া পারভিন ২৭ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১০:২৫:২৭অপরাহ্ন গল্প ৩৪ মন্তব্য
অনুপমার অব্যক্ত প্রেমের গল্প কে ওখানে দাঁড়িয়ে আছে, কে? পিছনের অবয়ব দেখে মনে হচ্ছে ,সে আমার কত যুগের চেনা। যেনো কতো শত বছর ধরে জানি তাকে । কে, কে ওখানে দাঁড়িয়ে আছে অমন পাশটি ফিরে একবারও ঘুরছে না, তাকে দেখবো কি করে? নাহ এ তো দেখছি ফিরছেই না। যাই আমি না হয় সামনে গিয়ে দেখি, [ বিস্তারিত ]

বেশি বুদ্ধি কুঁকড়ি-মুকড়ি

নিতাই বাবু ২৭ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০৭:১২:২২অপরাহ্ন গল্প ২৫ মন্তব্য
একজন সরকারি চাকরিজীবীর সন্তান বলতে একটি ছেলেই ছিলো । একটি মেয়ের জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার দরবারে অনেক বাসনা করেছিল, কিন্তু মেয়ে আর তাঁদের ভাগ্যে জোটেনি। বৃদ্ধ বয়সে চাকরিজীবী লোকটা মারা গেলো। মৃতব্যক্তির একমাত্র ছেলে ওয়ারিশ সূত্রে তাঁর স্থাবর অস্থাবর টাকা-পয়সা সম্পত্তির মালিক হলো। ছেলেটা তাঁদের গ্রামের বাড়ির জমিজমার দলিলপত্র বুঝে নিলো। সরকারি চাকরিজীবী লোকটা মারা যাওয়ার [ বিস্তারিত ]

অনু গল্প (ভোলা যায় কি প্রথম প্রেম?)

সুরাইয়া পারভিন ২৬ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১১:১৩:২০অপরাহ্ন গল্প ২৫ মন্তব্য
হঠাৎ এক যুগ আগের স্মৃতির করিডোরে এসে দাঁড়িয়েছে পুষ্প। এখনো বাদলের জন্য পুষ্পের বুকের বাম অলিন্দে চিনচিন ব্যথা অনুভূত হয়। নিঃশব্দে চুপিসারে হুহু করে কেঁদে ওঠে মন। মনে পড়ে যায় ফেলে আসা বিষণ্ণ অতীত। যে অতীত কখনো সুখের স্মৃতি হয়ে আবার কখনো বিরহ হয়ে ধরা দেয় পুষ্পের কাছে। এক যুগের ও বেশি সময় হয়ে গেছে [ বিস্তারিত ]

প্রিয়তমেষু..অন্তরে আত্মার ঠাঁই

নৃ মাসুদ রানা ২৬ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:৩৯:২২অপরাহ্ন গল্প ১১ মন্তব্য
অঝোরে কেঁদে কেঁদে মুখে মাখা ফর্সা করা পার্লারের রুপগুলো ধুয়েমুছে যাচ্ছে। বান্ধবীরা বারবার বলছে এতো বেশি কাঁদিস না মেকআপ নষ্ট হয়ে যাবে। কিন্তু কে শোনে কার কথা? – এই মেঘলা শুনতো। মেঘলা – কি বলবি বল? আমার একটি কাজ করে দিবি? মেঘলা – কি কাজ বল? না, তেমন কিছু না। তুই একটু রুমিকে ডেকে দে। [ বিস্তারিত ]

ক্যারিয়ার

শিপু ভাই ২৫ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৮:৫৯:৩২অপরাহ্ন গল্প ৭ মন্তব্য
শায়লা একটা মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির একজন এক্সিকিউটিভ। খুব ভাল স্যালারী।সামনে প্রমোশন। মেধাবী শায়লা ক্যারিয়ার অরিয়েন্টেড ছিল বরাবরই। এখন সুপ্রতিষ্ঠিত। ওর আন্ডারে কাজ করছে প্রায় শ খানেক লোকজন। শায়লার এই উন্নতিতে সবাই খুশি। অফিসেও ওকে সবাই সম্মান করে, জুনিয়র কলিগরা ভয়ও পায়। এই ৩২ বছরেই ও ঈর্ষনীয় অবস্থান তৈরি করেছে। পরিবার স্বজনরা ধন্য ধন্য করছে। কিন্তু অফিস [ বিস্তারিত ]

মাধবীলতা – দ্বিতীয় অংশ

মাহবুবুল আলম ২৫ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ০৫:৪৫:৩৫অপরাহ্ন গল্প ৬ মন্তব্য
শামীমের বাবা বারেক সরকার সুধির রায় বাল্যবন্ধু। এক সাথেই বেড়ে ওঠা। একসাথেই লেখা পড়া। উনিশ’শ চৌষট্টি সালের হিন্দু-মুসলিম সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার পর তাদের বন্ধুত্ব আরো দৃঢ় হয়। কেননা, সেই ভয়াবহ দাঙ্গার সময় বারেক সরকার আপন স্বজনের মতো নয়নপুর গ্রামের হিন্দুদের; দাঙ্গাকারীদের আক্রোশের হাত থেকে আগলে রাখেন। তাদের এলাকার অন্যান্য গ্রামে এ দাঙ্গায় বেশ কিছু লোক আহত [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ