নিজের লিখনশৈলী দিয়ে পাঠকদের হৃদয়ে স্থান তৈরী করে নেয়া এটি প্রত্যেক লেখকেরই একটি স্বপ্ন। দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে এই স্বপ্নকে বাস্তবে পরিণত করেছেন তিনি। ঋতু বৈচিত্রের মত সময়ের পরিক্রমায় সোনেলাকে রঙবেরঙের লেখা দিয়ে সাজিয়ে চলেছেন নিত্যদিন। তার মন্তব্যে অথবা লেখায় পাঠক খুঁজে পান উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা।

পাঁচ বছর ছয় মাস আগে সোনেলায় নিবন্ধন করেছিলেন তিনি। তবে প্রথমে এসেই কিন্তু তিনি লেখা দেননি। সবার লেখা পড়তেন। ব্লগিং কি, অন্যান্য লেখকগন কিভাবে ব্লগিং করেন এসবই জানার চেষ্টা করতেন তিনি। সোনেলায় প্রথম ঠাডা শিরোনামের লেখাটি দিয়ে তার পথচলা শুরু হয়ে তা অদ্যাবধি চলমান।

তিনি এ পর্যন্ত মন্তব্য করেছেন ৮২২৩ টি এবং মন্তব্য পেয়েছেন ৮০০৩ টি। এ সংখ্যাটি দেখলেই বোঝা যায় সোনেলাকে তিনি ভালোবাসেন এবং ব্লগারদের অত্যন্ত স্নেহ করেন। বিভিন্ন সময়ে ব্লগ, ব্লগার, ব্লগিং এসব বিষয়ে তার লেখা একজন ব্লগারকে সঠিক দিক নির্দেশনা দিয়েছে ও দিচ্ছে।

এসব কথা যার সম্পর্কে লিখছি তিনি আমাদের সকলের প্রিয় ব্লগার ইঞ্জা ভাই। আজ তিনি তার অন্যতম পাঠকপ্রিয় ধারাবাহিক গল্প রঙধনু আকাশ (১৪তম পর্ব) লেখাটির মাধ্যমে সোনেলায় নিজের তিনশ’তম পোষ্টের মাইলফলক স্পর্শ করলেন।

প্রিয় ব্লগার আপনাকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।

ইঞ্জা ভাই সদালাপী, অমায়িক সজ্জন একজন মানুষ। একজন ব্লগার হিসেবে তার সবচাইতে বড় গুণ হচ্ছে লেখার সমালোচনাকে ইতিবাচকভাবে গ্রহণ করতে পারার ক্ষমতা। আমি দেখেছি যেকোনো মন্তব্যকে খুব সুন্দরভাবে নিজস্ব ব্যাখ্যায় তিনি পাঠককে বুঝিয়ে দেন যা তার নিজের ব্যক্তিত্ব এবং মুন্সিয়ানাকেই প্রমাণ করে। একজন ভালো ব্লগারের এটি অনেক বড় একটি গুন। আপনার এ গুনটি দেখে আমার কিন্তু খুব হিংসে হয়!

ইঞ্জা ভাই সর্বদা অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী একজন মানুষ। যেকোন অন্যায়, অসাধুতার বিরুদ্ধে সোনেলায় তার লেখা সমসাময়িক বিষয়ের পোষ্টগুলিই তা প্রমাণ করে। বর্তমান সময়ে করোনা নিয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু লেখা পাঠকদের মাঝে দারুণ সাড়া ফেলেছে।

ভ্রমণ তার অস্থিমজ্জায় বিরাজ করে। তার লেখা ভ্রমণ গল্পের ভক্ত আমি। দেশবিদেশের বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণের চমৎকার সব অভিজ্ঞতা তিনি পাঠকদের সাথে ভাগাভাগি করতে ভালোবাসেন। আর সে কারনেই পাঠকগণ বাস্তবতার নিরিখে লেখা অসাধারণ সব ভ্রমণ গল্প পড়তে পারেন। সোনেলায় প্রকাশিত ধারাবাহিক গল্পগুলিতেও তার এই ভ্রমণ অভিজ্ঞতার ছোঁয়া খুঁজে পাওয়া যায়।

ধারাবাহিক গল্প রচনায় ইঞ্জা ভাইয়ের জুড়ি মেলা ভার। তার লেখা ধারাবাহিক গল্পগুলির মধ্যে ভালোবাসি তোমায়, নদী, জলতরঙ্গ, এক মুঠো ভালোবাসা অন্যতম। রঙধনু আকাশ শিরোনামে বর্তমানে যে ধারাবাহিক গল্পটি লিখছেন সেটিও অত্যন্ত পাঠকপ্রিয় এবং সুখপাঠ্য হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এর কারনটা সহজেই অনুমেয়। অত্যন্ত সহজ সরল বর্ণনায় লিখিত গল্পের চরিত্রগুলো যেন আমাদের চেনা, ঘটনা সমূহ আমাদের অত্যন্ত পরিচিত। মনে হয় যেন আমরা এসব গল্প আমাদের চোখের সামনেই ঘটতে দেখছি।

সোনেলা ব্লগে লেখার জন্য আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে প্রথম যে মানুষটি আমাকে উদ্বুদ্ধ করেছিলেন তিনি ব্লগার ইঞ্জা ভাই। তার সম্পর্কে আমার অনুভূতি হচ্ছে – “ইঞ্জা ভাই” বলে যখন ডাক দেই মনে হয় “এই যে আমি” বলে যেনো তিনি পাশের ঘর থেকেই সাড়া দিচ্ছেন। এ কথাটির অর্থ এটাই- যেকোনো সময় যেকোনো সমস্যা কিংবা পরামর্শে তিনি সর্বদাই অগ্রগামী একজন মানুষ। সেই মানুষটিকে নিয়ে লিখতে পেরে ভালো লাগছে। সোনেলায় আমার সহব্লগার হিসেবে তাকে পাশে পেয়ে সত্যিই আমি গর্বিত ।

ইঞ্জা ভাই, ভালো থাকুন সবসময়। আপনি ও আপনার পরিবারের সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করছি।

৩৫৫জন ২জন
0 Shares

৮২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ