সোনেলা ব্লগে যারা লিখছেন তাদের অনেকেরই প্রবীণ ব্লগারদের সামান্য কথাতেই কিংবা অতি অল্পেই যাদের মন খারাপ হয় বা হচ্ছে তাদের জন্য আমার এই কথাগুলো উৎসাহব্যঞ্জক হতে পারেঃ

এই সোনেলা ব্লগেই আমি যখন নিজের লেখালিখি শুরু করেছি তখন থেকে আজ পর্যন্ত আমাদের সিনিয়র ব্লগারদের এত এত ঝাড়ি খেয়েছি শুধুমাত্র নিজের অজ্ঞতা এবং ভুলত্রুটির কারনে। আমারও মন খারাপ হয়েছে, এখনও হয়। তবুও সোনেলায় লেখা থেকে নিজেকে বিরত রাখিনি। কারন আমি বুঝতে শিখেছি প্রবীণ লেখকগণ মন থেকেই চান যাতে আমি নিজের সাহিত্যচর্চা বজায় রাখি এবং তারা যেটুকু কড়া ভাষায় উপদেশ দেন তা আমার ভালোর জন্যই দেন।

ব্যক্তিগত মান অভিমানকে একপাশে রেখে এখনো সোনেলাকে ভালোবেসে সবাইকে সম্মান করছি বলেই আজ কিছুমানুষ অন্তত এটুকু জানেন যে তৌহিদ নামে একজন ব্লগার আছেন এবং তিনি লেখালিখি করেন। সোনেলা এর জন্যতো আমার কাছ থেকে কোন অর্থ নেয়নি এবং আমারো কোন অর্থ উপার্জিত হয়নি। তবে জীবনের সবচেয়ে বড় সম্মানটি কিন্তু আমি সোনেলা থেকেই পেয়েছি আর তা হলো লেখক হিসেবে নিজের স্বীকৃতি। আমার কাছে অর্থের চেয়ে এটিই জীবনের অন্যতম বিশাল প্রাপ্তি।

ইদানিং লক্ষ্য করছি, ব্লগে অনেক ব্লগার বিশেষ করে নতুন লেখক যারা লিখছেন তারা সোনেলা ব্লগের নীতিমালা মেনে চলছেননা। নিয়মানুবর্তিতা, শৃঙ্খলা জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। নিয়মের মধ্যে না থাকলে আপনি আমি যে কেউই গড্ডালিকায় প্রবাহিত হতে বাধ্য। আর যেহেতু তারা নতুন তাই তাদের ব্লগের নীতিমালা স্মরণ করিয়ে দেয়া ব্লগ কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব এবং কর্তব্য। ব্লগ কারো ব্যক্তিগত মান অভিমানের জায়গা নয় এটি সবারই বুঝতে হবে।

যেকোন ব্লগ তাদের নিজস্ব নীতিমালায় চলে। সোনেলাও এর ব্যতিক্রম নয়। বরং অন্যান্য ব্লগের চেয়ে সোনেলার নীতিমালা যা আমাদেরই ব্লগারদের নিজস্ব মতামতের ভিত্তিতে গঠিত হয়ে ব্লগ সাইটটিতে যোগ করা হয়েছে। এই নীতিমালা সবার জন্যই গ্রহণযোগ্য এবং সাবলীল বিধায় সোনেলায় আগত প্রত্যেক ব্লগার এটিকে সম্মান এবং শ্রদ্ধা দেখিয়ে আসছেন।

মনে রাখবেন, সোনেলা আমাদের সবার ব্লগ। আমরাই সমন্বিতভাবে সোনেলাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো এটাই প্রত্যেক ব্লগারের নিকট সোনেলা কামনা করে। সোনেলা বিশ্বাস করে আমাদের উঠোনে বিচরণকারী প্রত্যেক ব্লগার তার নিজ ব্যক্তিগুণে গুণান্বিত এবং তাদের নিজস্ব লিখনশৈলী দ্বারা সে নিজেই পাঠকসমাজে সমাদৃত এবং গ্রহণযোগ্য করে গড়ে তুলতে সর্বদা সচেষ্ট এবং লেখকগন নিজেরাই এক্ষেত্রে সক্ষম।

সোনেলা আমাদের সবাইকে তার নিজের প্লাটফরম উন্মুক্ত করে দিয়েছে যাতে আমরা আমাদের সাহিত্যানুশীলন চালু রাখতে পারি। এখানে কেউ লিখলে সোনেলার যেমন অর্থ উপার্জন হয়না, তেমনি যিনি লিখছেন তিনিও নিশ্চই অর্থ প্রাপ্তির আশায় লিখছেননা। লিখছেন নিজের সাহিত্যকে পাঠকের কাছে সমাদৃত করার উদ্দেশ্যে। নিজেদের লেখকীয় সত্ত্বাকে অর্থ উপার্জনের মাধ্যম হিসেবে কেউ যদি সোনেলা ব্লগকে বিবেচ্য মনে করেন তাহলে সোনেলা তাদের জন্য উপযুক্ত প্লাটফরম নয়। সেটি অবশ্যই আপনাদের বুঝতে হবে।

একজন নবীন লেখক হিসেবে অন্য যেকোন প্রবীণ ব্লগারকে সম্মান করা আমাদের সকলেরই অবশ্য কর্তব্য। কারন তারাও একদিন আমাদের অবস্থানে ছিলেন। কাঠখড় পুড়িয়ে সাধনা করে আজকের এই অবস্থানে এসে যদি কোন সিনিয়র ব্লগার আমাদের কোন উপদেশ দেন তাহলে সেটিকে সহজভাবে মেনে নেবার ক্ষমতা নিজের মধ্যে জাগ্রত করা উচিত। দু’কলম লিখেই জাহির করছেন নিজেকে!! দু’বছর পরেতো আপনাদের পা’ই মাটিতে পড়বেনা।

লেখক হিসেবে নিজেকে প্রকাশ করার আগে একজন বিনয়ী মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা আমাদের সবারই নিজ দায়িত্ব। বিনয় এমনি এমনিই আসেনা। তাকে অন্তরে লালন করতে হয়, ধারণ করতে হয়। সোনেলা তার ব্লগারদের নিজেদের আত্মসংযমী হয়ে সকল আত্মঅহংকার ত্যাগ করার দীক্ষা দেয় সবসময়। আপনারা অনেকেই ব্লগে নতুন, তবে যারা অনেকদিন থেকেই সোনেলায় আছেন তারা বিষয়টি অনুধাবন করতে পারেন মনেপ্রাণে। কারন আমরা প্রত্যেকেই সোনেলার নীতিমালার প্রতি যথেষ্ঠ শ্রদ্ধাশীল।

সোনেলার নীতিমালাঃ

এই লেখায় ক্লিক করে নীতিমালা আরো একবার পড়ুন।

তাই সোনেলার নীতিমালার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন। আমরা নিজেরাই যদি নিজেদের সম্মান করতে না পারি তাহলে পাঠক কি আপনাকে আমাকে সাহিত্যপ্রেমী লেখক হিসেবে তাদের হৃদয়ে স্থান দেবেন? বিষয়টি কিচ্ছুক্ষণের জন্য হলেও আমাদের সবার ভাবা উচিত।

৪৯৬জন ২৪৯জন
37 Shares

৪৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য