স্বপ্ন || ৯ (ব্লগারদের সম্মিলিত গল্প)

শিরিন হক ৬ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৫:৩৬:০৯পূর্বাহ্ন গল্প ৬৫ মন্তব্য

কিছু #স্বপ্ন   থাকে আজন্ম ব্যাধির মতো। কিছু স্বপ্ন তো থেকেই যায় বাঁচার রশদ নিয়ে। ভেজা কদমের শরীর চুয়ে পড়ছে বর্ষার জল তুবুও সে স্বপ্নকে বুনে যায় সবুজ পাতার আড়ালে। রোদের দেখা যাদি পাই আমিও হাসবো সেই প্রত্যাশায়…

স্বপ্নকে সাথী করে  পুরাকালের মূর্তির মতো ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে পোড়াইট -কাঠ -পাথরের শহর।
বর্ষার জলে মুছে যায় ডাহুকী রাত।পরাজিত সময়ের সম্মুখে তবুও স্বপ্ন।
স্বপ্ন দেখতে ভুলে গেছি। অস্হির সময়ে কি স্বপ্ন দেখবো?
মৃত্যর মিছিলে মৃত্যুর স্বপ্ন ছাড়া আর কিছু ভাবতে যে পারিনা সোনেলা ব্লগ। ব্লগ বন্ধুরা আপনারা বলছেন লিখতে?
তাও হপ্পন নিয়া? একটু লিখালিখি করি কবিতার আদোলে বাট গপ্পো লিখতে বসেলে আমি শেষ।

ব্লগারগন সমবেত কন্ঠে – কেনো?আপনার লিখার হাত বেশ ভালো।

একে তো মোবাইলে লিখতে গেলে একশোটা বানান ভুল টাইপিং হয় (বজ্জাত মোবাইলের জন্য)। দুই বড় কিছু লিখবার ধৈর্য আমার কম।
তার উপর রান্দোনের কাম নিছি। রাইন্দা মানসের বাড়ি বাড়ি হোম ডেলিভারি দিচ্ছি। বোজেন তো করোনা কালিন সময়ে নিজের পেটের ধান্দা করা হলো অন্যের ও উপকার হলো। অনেক অনেক চাপ কাজের।শেখ হাসবিনা,ওবামা শাকিব আল হাসান সহ সকলের জন্য আমি নিজ হাতে রান্না করে তাদের জন্য পাঠাই। আমার খাবার ছাড়া তাদের নাকি অন্য খাবার মুখে রোচেনা😏
আমার থেকে শর্ষে তেল নিয়ে প্রাণ গ্রুপ সেই তেলে ভ্যাজাল মিশিয়ে বিক্রি করে জানেন!ব্লগে তাই আসা হয়না।

ব্লগারগন- আপনি লিখতে শুরু করেন সমস্যা নাই।পারবেন।

হ কইছে! আপনাদের মতো চ্যাতা চ্যাতা ব্লগারদের ভেতর আমার স্বপ্ন চুনাপুঁটির মতো হবে। মানসম্মান নিয়া টানাটানি।টাকাকড়ি তো পামুনা একটাও এখানে লিখে।তার উপর ব্লগে সময় দিতে পারিনা এখন একখান স্বপ্নের কেচ্ছা নিয়া হাঠাৎ হাজির হলে ইঞ্জা ভাই বলবেন -বইন লিখছেন ভালো।  (পাম দেবার জন্য  ) তয় নিয়মিত ব্লগে লিখা চাই আপনার।আপি প্লিজ ব্লগে একটু সময় দিয়েন। 😏

সাবিনা আপা একই কথা কইতে ছাড়বেন না। তবে আমার গল্পে বিশাল একখান প্রেরনামুলক মন্তব্য করবেনই হে। (বুদ্ধিচীবী সুন্দরী মহিলা )

জিসান সাহেব বলবেন, এইডা কোনো স্বপ্ন হইলো?
হেলাল সাহেব বলবেন – স্বপ্ন দেখে যান সফলাতা আসবে।আপনার হপ্পনের মানে টা কি বলবেন আপা?

বন্যা ইসলাম নো কমেন্ট ইনবক্সে নক দিয়া কইবে ভালো। এখানে ভালো তো কইলামই তয় কমেন্ট করতে পারমুনা  তাউল্লা গড়ম আছে। খাড়াও পান খাইয়া আহি।😋

তৌহিদ ভাই স্বপ্নের আকাশে যাবেন হারিয়ে বলবেন আপা কি করে লিখলেন এমন স্বপ্ন?আপনি এত গভীরে ভাবেন কি করে ভাবতেই আমি তব্দা খেয়ে যাই! ভাগ্গিস বিয়ে করেছি নচেৎ…………. থাউক কইলাম না।😍
তয় আপনার সর্ষে তেল মাথায় দিয়া আমার মাথয় নতুন চুল উঠতে শুরু করেছে।

সূপর্ণা দি তো- কি ভালো কি ভালো করতে করতে
আমারে স্টার বানিয়ে দিবেন রাতারাতি।বেশম খেতেও পারেন।😛 তেলের বিজনেস শুরু করলেন শেষমেশ🤔

মমি ভাই বিড়িতে একটা টান দিয়া কইবে ও মোর খোদা আমহে গল্প না লিখে কেনো কবিতা লিখেন। দুটোতেই সমান দক্ষতা আপনার (মুই তো নাই শরমে শ্যাস)😚 আপনার রান্নার হাত বেশ ভালো সেদিনের পুঁই পাতুরীর কাব্য টা বেশ মজার ছিলো।

প্রদিপ বাবু, নিতাই বাবু – কৃঞ্চ কৃঞ্চ নাম জপে বলবেন দিদি অসাধারণ! (সব পাম)

দুই সুরাইয়া, সুপর্নাদি, আরজু মুক্তা ফুআম্মা, রেহানা বিথী উকিল আপু, নীরা সাদিয়া সহ
অন্যান্য ব্লগার যারা আছেন দু’ একজন কিছু বলে চলে যাবেন। বাকিরা ফিরেও তাকাবেনা কারন আমি নিয়মিত আসিনা ব্লগে।তাদের লিখা পড়িনা কাজেই আমার লিখা কেনো পড়বে অন্যেরা😥

ব্লগারগন সমবেত কন্ঠে -আসবেন মাঝে মাঝে ভালোইতো লিখেন।

আপনারা পাম দেন খালি। দেকমুনে।হপ্পনের গপ্প লিখার স্বপ্ন যার মাথায় আসছে হেরে আল্লায় হেদায়াত করুন।আমার মতো অলস মানুষরে হের লিখানোর বুদ্ধি ছাড়া আর কিছুই না। যতসব আজগুবি চিন্তা স্বপ্ন নিয়া গপ্পো!
ক্যান আর কিছু কি ছিলোনা।  থিম হবে সাদা “সাদা হোল হোল হোন্দের মৈদ্যে হুতা ভরা” নয়তো “হোল হোল হ্যাচানো হ্যাচানো ” তা না স্বপ্ন!এত স্বপ্ন দেখে কি লাভ সেই তো সাকাল হলে রান্না -বান্না, খুন্তি- কড়াই নিয়া যুদ্ধ শুরু রাত হলে তাকিয়ে থাকি নিরবতার গলিত শব্দে।দূর জোনাকির গল্পেরা কিলবিল করে আহত সময়য়ের অনুকুলে।কতদুর দৃষ্টি নিয়ে হেঁটে যাবো স্বপনের শহরে। আমার স্বপনেরা আজ শিউলিতলা কাদামাখা মাটিতে ডানা ভেঙ্গে পড়ে আছে নিরব নিথর দেহে।

ব্লগারগন – আপা আপনার হোমডিলিভারির খাবার কবে খাওয়াবেন?

(খাবারে গন্ধে বুজ্জি পাম দিসে সবাই আসল কথা এতক্ষণ পর বোজলাম।)প্রত্যেকের জিভে জল 😋আল্লাহ!
সব লোবার গুষ্টি।

জিসান ভাইয়ের ইটভাটায় যেদিন আমরা সবাই পিকনিকে যাবো সেদিন সবাইকে পিৎজা খাওয়াবো।

তুমি এতরাতে মোবাইলে কি করো?

রিফাত- বন্যার সাথে চ্যাট করছি।(বন্যা ইসলাম)

হ আমারে সময় না দিয়া বান্ধুবীর সাথে কথা বলছো? দেখি তো কি কথা (থাবা দিয়া মোবাই টা হাতে নিয়া)ওমা!
এসব কি! রিফু, সোনা, মুনু, চুনু, জান!
কি? ওরে নিয়া তুমি আজকে ঘুরতে গেছো? আমারে বলনিত!
শাড়ি নুপুর কিনে দিসো?রিক্সায় ঘুরেছো?
আর কি কি করেছো বলো? হ কিছু করোনি বল্লেই হলো? ছি ছি! তোমার সভাব আমি জানি।
কি করেছো আগে বলো?
আমারে তো জম্মেও একটা ফিতা কিনে দাওনি।
তোমারা প্রেম করো আমি জানি তয় এতদুর যাবা আমি ভাবতেও পাড়িনি।
থাকো তোমার পিরিতের লিপিরে নিয়া। ওরে এখুনি জিগাই কেমনে মিতা হইয়া সে আমার সাথে এমন বেইমানি করলো?
বন্ধু কিসের বন্ধু?
জাানিয়ে গেলে কি হতো? আমি কি বাধা দিতাম?
এতো কিছু তলে তলে। আমার কাছে ভালোমানুষ সাজা। আজ থেকে  তোমার সংসার আর করমুই না!

জোড়ে জোড়ে রিফাত কে মারছি আর বলছি তুমি কি করলা এটা। খুন করমু তোমারে আজকে আমি! হাউমাউ করে কান্তাছি। ভেতরে খুব কষ্ট হচ্ছে। এত কষ্ট জোড়ে জোড়ে চিৎকার করছি।

হঠাৎ ঘুমের ভেতের রিফাত ঠ্যালা দিয়ে জাগিয়ে বলছে এই কি হইছে মারো ক্যানো?

ঘুম ভাঙতে রিফাতকে জড়িয়ে ধরে বলি তোমার সাথে সত্যই কি মিতার বন্ধুত্ব?
রিফাত-তুমি কি স্বপ্ন দেখছো তোমার মিতারে নিয়া। এতো জোড়ে কেউ মারে? আমার নাকটাই আর একটু হলে ফাটিয়ে দিতা।

সোনেলার ব্লগারদের নিয়ে প্রথমে সুন্দর একটা স্বপ দেখেছি। সমস্ত ব্লগারগন সমবেত কন্ঠে আমার সাথে কথা বলেছে, মনে হয়েছে একটি কন্ঠ। অত্যন্ত মিস্টি সোনেলা কন্ঠ।
পরে তোমাকে  আর মিতাকে নিয়ে আউলাঝাউলা স্বপ্ন দেখে তোমারে মারছি। মিতা স্বপ্নের কথা শুনলে কইবে অসতাগ ফিরুল্লাহ ও কি হপ্পন দেকলা মিতা।
হা হা হা!

চলবে –

স্বপ্ন || ৮ (ব্লগারদের সম্মিলিত গল্প)

৪৩০জন ২৯জন
0 Shares

৬৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য