সিকদার সাদ রহমান

সাদা মাটা বাংগালী

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৬ মাস ৬ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ২৩টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ১৩৪টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ২৫৮টি

হাজার বছরে বঙ্গবন্ধু

সিকদার সাদ রহমান ১৫ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:৪৬:৪৮অপরাহ্ন সমসাময়িক ৭ মন্তব্য
আজ যারা আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে সক্রিয়, ভবিষ্যতেও কি তারা এভাবেই দলের সাথেই থাকবেন? নাকি সাস্থ্য বেশি ভালো হয়ে যাওয়ার কারনে ডায়াবেটিস সহ ভিন্ন ভিন্ন রোগের অজুহাতে দূরত্ব বজায় রাখবেন? কারন প্রকৃত দল প্রেমীদের অবস্থা এখন খুব খারাপ। ত্যাগী নেতাদের বংগবন্ধু ও তার কন্যা সঠিক মূল্যায়ন করলেও মাঠ পর্যায়ের নেতৃত্বে সুবিধাভোগী দের অত্যাচারে দলীয় কর্মীদের হায় হায় [ বিস্তারিত ]

অণু কবিতা

সিকদার সাদ রহমান ১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১২:১৮:০৭পূর্বাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য
  এক রাশ ফুল হাতে একদিন দু পায়ে হেটেছিলাম। সময়ের অন্তরালে সে ফুল বাসি হয়ে যায়। বৃথা শ্রমে পদযুগল ও পথ থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। মন থেকে যায় সেই বালুচরে! কথার পর কথা গুলো যেদিন হারিয়ে যাবে, সেদিন খুঁজতে এসো নীল নদের দেশে। প্রতিক্ষার অন্তর কাটবেনা জেনো, কোন দাম্ভিক ফেলে আসা দুঃসময়। ১৬-০৭-২০১৭

কেউ একদিন

সিকদার সাদ রহমান ১৫ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ১১:৩২:৫৪অপরাহ্ন কবিতা ৫ মন্তব্য
  কবিতা লিখতে লিখতে একদিন বিলীন হয়ে যাবো একদিন হারিয়ে যাব নীলিমায়। কেউ একদিন আমাকে খুঁজবে আমার কবিতায়, কিংবা ডায়েরির পাতায়। একদিন হারিয়ে যাবো নীল সাগড়ের দেশে একদিন আমায় খুঁজতে গিয়ে কেউ কুড়িয়ে আনবে ঝিনুক। একদিন প্রজাপতির কাছে ডানা ধার চাইবো। নীল আকাশে ডানা মেলে দেব। একদিন শান্তির কলেবরে অশান্তির কাছে চাইবো ক্ষমা। হার মেনে [ বিস্তারিত ]

এক লক্ষ কল্লা

সিকদার সাদ রহমান ১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০৭:০৩:০৬অপরাহ্ন সমসাময়িক ১০ মন্তব্য
  পুরা ফেইজবুক টাই কল্যাময়। ভাড়ামি বা এড়েমির একটা সীমা আছে। মানুষ পারেও! কোন একটা হুজুগ পেলেই তার পিছনে আন্দাজে দৌড়াবে। যদিও এ এচরিত্র বাংগালীদের নতুন নয়। হয়তো অনেকেই শামছুর রহমান এর “পণ্ডশ্রম” (কান চিলে নিয়েছে চিলে) কবিতাটা পড়েছেন। বাস্তবেও এরকমটাই হচ্ছে আজকাল।কোথাকার কান, কোথাকার মাথা! পুরো ফেইজবুক কল্যা কাটার পোষ্ট এ ভেসে যাচ্ছে। অথচ [ বিস্তারিত ]

আমার বড্ড ভয়

সিকদার সাদ রহমান ৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ১০:৪৩:১৫অপরাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য
আমার ও মেয়ে আছে! বয়স মাত্র দুই। আমার বড্ড ভয়, মেয়ে বড় হচ্ছে! আমি খেয়াল করে দেখি, কত গুলো চোখ তাকিয়ে থাকে মেয়েদের দিকে নির্লজ্জ ভাবে। রাস্তায় চলার সময় বাসে বসার সময়, রিক্সায় যাবার সময়, আমার চোখের সামনেই ঘটে চোখে চোখে ধর্ষণ। তাকিয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার নেই। আমি ভীতু! আমার কিছু বলার নেই! রাস্তায় [ বিস্তারিত ]

ভ্রান্ত জীবন

সিকদার সাদ রহমান ৬ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ১১:১৫:৩৯অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
  সময় যুদ্ধে সময়ের কাছে পরাধীন ভেবে ভেবেই সময় পার শৈশব থেকে কৈশোর গেল যৌবন কি থাকবে চিরকাল? এভাবেই চলে আসবে একদিন বয়স্ক ভাতা আর বৃদ্ধাশ্রম। হাতের মুঠোয় বেতের লাঠি। তিন পায়ে ভর দিয়ে যুদ্ধ হবে কোন মতে দাঁড়ানোর। বিশ্বযুদ্ধ জয় করে ঘরে ফেরা সৈন্যের আবার যুদ্ধ্যে লিপ্ত হতে হয় আমরন। প্রেয়সীকে কাছে পাবার স্বপ্ন [ বিস্তারিত ]

ঘৃনা

সিকদার সাদ রহমান ২৯ জুন ২০১৯, শনিবার, ১১:০৭:২৫অপরাহ্ন কবিতা ১৬ মন্তব্য
  সে আমায় এক বার ধংস করেছে, আমি হয়েছি ধংসিত। হয়েছিলাম নিপিড়িত। তার নিপিড়নের নিগৃহনে তার অবহেলায় মৃত্যুর দ্বার দেখেছিলাম। তার অবহেলা আমায় ধংস করেছে আমি হয়েছি বঞ্চিত হয়েছিলাম নিন্দিত বনমালী ডুবে গিয়েছিলাম জলে জড়িয়ে ছিল চোরকাঁটা আর চোরাবালি আমি ধংসের নেশায় হয়েছি উম্মত্ত। তিলে তিলে বার বার ধংসের নেশায় সৃষ্টি করে যাই প্রেম অবিরত। [ বিস্তারিত ]

শুধু তুমি নেই

সিকদার সাদ রহমান ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ০৫:৩৮:২৭অপরাহ্ন কবিতা ১৯ মন্তব্য
  সত্যিই অবাক লাগে আমরা একই পৃথিবীতে আছি! অথচ আমাদের কথা নেই, দেখা নেই…. একে অপরকে জানা নেই । পোস্ট অফিস তোমাকে খুঁজে পায় না, ফোন নম্বর টাও জানা নেই। হরি রাম পুর গ্রামে একবার লোক পাঠিয়েছি পদ্মার ভাংগনে সে গ্রাম ও নেই। চারপাশ জড়িয়ে থাকে হাজার মানুষ তবুও কেনো লাগে আমার কিছু নেই? অবশেষে [ বিস্তারিত ]

বৃষ্টি

সিকদার সাদ রহমান ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার, ০২:০৩:৩৯পূর্বাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য
কেমন রয়েছো আজ? কেমন রয়েছে শরীরের সেই ভাজ? কেমনে নাচো বৃষ্টির তালে তালে, কেমনে সাজো বৃষ্টির সেই সাজ? কেমন করে বর্ষা দেখো চেয়ে গড়িয়ে নামে তোমার শরীর বেয়ে, কেমনে দেখ মেঘ গুর গুর করে, অঝোর ধারায় বারি যখন ঝরে। কেমনে আজো লতায় পেঁচিয়ে থাকো কেমন করে লজ্জালু মুখ ঢাকো, কেমন হলে শ্রাবন বেলায় ভার ত্রস্তে [ বিস্তারিত ]

অগোছালো

সিকদার সাদ রহমান ১৪ জুন ২০১৯, শুক্রবার, ১২:৫৩:২৮পূর্বাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য
  কিছু জিনিস গোছানো যায় না তোমার ভালবাসা গুলো বড্ড অগোছালো কিন্তু অভিশাপ গুলো কেন দাও গুছিয়ে? তোমার আবেগী চোখের কার্নিশ বেয়ে গড়িয়ে পড়া জল গুলো বড্ড অগোছালো গোছানো ছিল ঠোট বাকানো হাঁসি। জীবনের গভীরে প্রবেশ করা ঘর বাধাঁর স্বপ্ন গুলো খুব করে গোছানো কিন্তু ঘরের মধ্যে আসবাব গুলো বরাবরই অযত্নে অগোছালো। জীবন দেখেছি, গোছানো [ বিস্তারিত ]

একটা বকুল গাছ

সিকদার সাদ রহমান ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ০৬:২৬:৫৯অপরাহ্ন কবিতা ২৫ মন্তব্য
  জানি তোমারো একদিন মন খারাপ হবে, চশমাটা নামিয়ে.. শাড়ির আঁচলে মুছবে চোখ। এলিয়ে দেয়া চেয়ারের বা পাশে তাকিয়ে আমায় খুঁজবে তোমার দীর্ঘশ্বাস! ডায়েরির পাতায় কালো অক্ষরে অনেক অভিশাপ লিখে রেখেছি বে নামে, প্রতিদিন নিজেই গালমন্দ শুনি নিজের কাছে। তবুও মন খারাপ হয় না আমার। কোনো শীতের মাঝ রাতে হিমাদ্রি অনুভবে আমার কলরবে যদি মন [ বিস্তারিত ]
  ফিরিয়ে দাও মোরে দশটি বছর, আর একটি বার প্রেম করতে চাই! তাঁর দীঘল কালো চুলের ভাঁজে চার আংগুলের কাঁকন হতে চাই। ভ্রমর কালো, হরিণ ধাঁচের চোখের মাঝে ঘুম হারাতে চাই। আমি একবার শুধু প্রেমে পরতে চাই! হাজার রঙের স্বপ্ন বোনা, বেলায় বেলায় প্রহর গোনা, চোখ বুঁজে তার কন্ঠ শোনা, লোকে বলে এসব কিছুর- বয়স [ বিস্তারিত ]

স্বীকারোক্তি

সিকদার সাদ রহমান ১২ মে ২০১৯, রবিবার, ০২:০০:২৯অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
  মধ্য রাতের বিবসনা ভালবাসায় আমি উম্মত্ত সত্ত্বায় তোমায় চেয়েছিলাম প্রেম দর্শনের চূড়ায় ছিল গাহন। হ্যা আমি ভালবেসেছিলাম! লাল বসনার আভায় ঘেরা অস্থির শরীরের ভাজ আর কারুকাজে নির্লিপ্ততায় মুগ্ধ হয়েছিলাম, বলতে দ্বিধা নেই আমি ভালবেসেছিলাম। তোমার শরীরের ঘ্রাণ নাসিকায় আছে লেগে এক একটি চুম্বন দাগ কেটে আছে কলিজায়, অস্তিত্বের সর্ব বৃহৎ লড়াইয়ে আমি পরাজিত ছিলাম [ বিস্তারিত ]

আশা

সিকদার সাদ রহমান ৭ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ১০:৫০:৪৫অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য
♥#আশা♥ আশায় রইলাম বেঁধে বুক শত তৃষ্ণা অবহেলায় পাব সুখ, ডুবে যাওয়া কায়া মাঝ দরিয়ায় কে আসছে ঐ, ঝাপসা দেখায় হয়তোবা আশা, ভাসছে ভেলায়। ক্ষীণ দৃষ্টি কোন মতে চায় আসে যদি কেহ, এ অবেলায়। অলীক কল্পনাও এক ধারা চাওয়া, কে করবে বিচার, যত পাওয়া না পাওয়া? পরিশ্রান্ত বিশ্রাম দেহে অকাল প্রয়াত কালে কাল যায়, আসে [ বিস্তারিত ]

শ্রমিক

সিকদার সাদ রহমান ৪ মে ২০১৯, শনিবার, ০২:০২:২৬অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
♥#শ্রমিক ♥ কোন এক চৈত্রের খা খা রোদ্দুরে আমি ঘর্মাক্ত শ্রমিক। মাথায় এক পরিবার বোঝা আর ক্লান্ত হওয়া সময় কপাল থেকে ঘাম টেনে নামিয়ে ফেলি দু আংগুলে। দম ফালানের সময় নেই রোদ বৃষ্টি ঝড় কিংবা কোন ভুলে। খরতাপে সামান্য বিশ্রামের আশে কখনো রমনায় কিংবা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সবুজ ঘাসের উপরে এলিয়ে দেই দেহ। আমরা শ্রমিক, ইতর [ বিস্তারিত ]

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য