সাদিয়া শারমীন

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৭ মাস ২৫ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ১৭টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ২১৫টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৩০০টি
প্রিয় পোস্টঃ ১টি

ইমারত

সাদিয়া শারমীন ৭ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার, ১২:৫৩:৫৭পূর্বাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
উঁচু উঁচু ইমারতে ভুলে গেছি আকাশটা। মেঘেদের আনাগোনা, বৃষ্টির লীলাখেলা, রংধনুর সাত রং, কিম্বা গোধূলী বেলা। উঁচু উঁচু ইমারতে ডানা মেলা পাখিটা, ভুলে গেছি শৈশবের  লাল-নীল ঘুড়িটা। আরো ভুলে গেছি আমি বাতাসের সুঘ্রাণ, বিকেলের সোনা রোদ, ডুবে যাওয়া সূর্যটা।  

খাদ্য রসিক বাঙালি!

সাদিয়া শারমীন ২৩ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৯:৩৪:৫৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৫ মন্তব্য
ভোজন রসিক বাঙালি খাইতে আর খাওয়াইতে বেশ ভালোবাসে। টক,ঝাল,মিষ্টি কত প্রকার রান্না যে বাঙালি জানে তাহার হিসেব মেলা দুস্কর। শুধুমাত্র যদি মিষ্টান্নের কথায় ধরি তাহা হইলে বোধ করি রসগোল্লার নামখানাই প্রথমে আসিবে। রসগোল্লা আর বাঙালি একে অপরের সাথে অতোপ্রতোভাবে জড়িত। রসে টইটুম্বুর রসগোল্লা যখন হাঁড়ির মাঝ খান দিয়া উঁকি ঝুকি মারিয়া তাকায় তখন পেটে ছুঁচোর [ বিস্তারিত ]

অশনী সংকেত

সাদিয়া শারমীন ২৪ জুন ২০২০, বুধবার, ১২:১৭:৫৮অপরাহ্ন কবিতা ১৬ মন্তব্য
বড় অস্থির সময়! মন ভার করা প্রতিটি মূহুর্ত। মৃত্যূর অপেক্ষায় প্রহর গুণছি সবাই। জীবনের রং ও ফিকে হয়ে গেছে, কেটে গেছে ছন্দ আর সুর। কবিতাও আজ দিশেহারা, হারিয়েছে শব্দগুলো। প্রিয়জন হারাবার শোক, স্তব্ধ নগর,স্তব্ধ জনপদ! শহর সেজেছে মৃত্যূর মিছিলে । সময় যেন এখন অশনি সংকেতের!

কিশোরী বেলা

সাদিয়া শারমীন ৯ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ০৮:৫৭:২৬অপরাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
তখন সবে কিশোরী বেলা দূরন্ত আর চঞ্চলতা, দুষ্টু,লাজুক চোখের মাঝে কখনও সংশয়ের খেলা।  তখন সবে কিশোরী বেলা উচ্ছ্বলতায়  মনটা ভরা, হঠাৎ মনে বিষাদও আসে কষ্ট গুলো দেয় পাহারা।  হঠাৎ,হঠাৎ উদাস হওয়া কোথাও যেন হারিয়ে যাওয়া, কিসের টানে,কিসের নেশায় ইচ্ছে, তারে কাছে পাওয়া। তখন সবে কিশোরী বেলা অভিমান আর অনুযোগে, অনুভূতির মিশ্র খেলা। তখন সবে কিশোরী বেলা।

শহুরে বৃষ্টি

সাদিয়া শারমীন ২৪ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার, ১০:৫৯:৫২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৩ মন্তব্য
শহুরে বৃষ্টির এক অন্যরকম মাদকতা আছে।সারাদিন টানা ঝুম বৃষ্টি,আর তার ভিতর কর্মব্যাস্ত মানুষ । হুড তোলা রিক্সার টুং টাং আর বৃষ্টির সুরের ঐকতানে মুগ্ধ কপোত,কপোতি। ভাঙা রাস্তায় জমে থাকা নোংরা পানিতে দাপাদাপিতে ব্যস্ত শিশুর দল।ছাদের কার্ণিশে ঝিমোতে থাকা জুবুথুবু দাঁড় কাক দম্পতি বৃষ্টি থামার অপেক্ষায়।।পাড়ার নেড়ি কুকুরও আশ্রয় নেয় কোনো এক ছাউনিতে মানুষের সাথে। টং [ বিস্তারিত ]

সিঁড়ি

সাদিয়া শারমীন ১৭ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার, ০১:২৮:৩৭অপরাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
সিঁড়িঃ সাদিয়া শারমীন। তোমার বাড়ির সিঁড়িটায় কত লোকের আসা যাওয়া- কত বার নেমে গেছ তুমি এই সিঁড়ি দিয়ে পথে-প্রান্তরে,মিছিলে,মিটিং এ। শোভিত করেছ রাজপথ,জনসভা। এই সিঁড়ি দিয়েই কতবার ফিরে এসেছ বন্দীদশা থেকে,প্রিয়জনের কাছে। এই সিঁড়ি দিয়েই তোমার ছোট্ট রাসেল খেলতে গেছে খেলার মাঠে। তোমার প্রিয় খুকু আর রোজি এই সিঁড়ি দিয়ে পা রেখেছিল নতুন জীবনে। আবার [ বিস্তারিত ]

ফাগুন এলেই

সাদিয়া শারমীন ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৮:৩২:৪৩অপরাহ্ন কবিতা ১৯ মন্তব্য
ফাগুন এলেই আগুন ঝরে শিমূল পলাশ বনে, ফাগুন এলেই রঙের পরশ রাঙিয়ে যায় মনে। ফাগুন এলেই কোকিল ডাকে,গাছে গাছে ফুল, ফাগুন এলেই কষ্ট মোচন,ভাঙে মনের ভুল। ফাগুন এলেই কাঁচের চুড়ি সঙ্গে রঙিন ফিতে, ফাগুন এলেই আমরা সবাই বন্ধু কিংবা মিতে। ফাগুন এলেই শহীদ মিনার,ভাষার কথা বলে, ফাগুন এলেই ভাইয়ের রক্ত,বুকে তুফান তোলে। ফাগুন এলেইঃ সাদিয়া [ বিস্তারিত ]

তুমিই আমার বেণীমাধব

সাদিয়া শারমীন ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৮:৩৫:০৯অপরাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য
তুমিই আমার বেণীমাধবঃ সাদিয়া শারমীন। সেদিন ছিল পহেলা শ্রাবণ, ছাতিম গাছের নিচে- বৃষ্টিতে ভিজেছিলে, কদম ফুলটা নিয়ে। তোমার দেয়া বকুল মালা, খোঁপায় গুজিনি। নিন্দা হবে বলে। মনে মনে ডেকেছি তোমায় “বেণীমাধব।” কারণ- “আমি তখন নবম শ্রেণী,আমি তখন ষোল, তোমার,আমার প্রণয় খেলা তখন শুরু হল।” আমারও যে তোমায় ভেবে অংক হত ভুল। জীবন খাতার প্রতিটি পাতা [ বিস্তারিত ]

মেয়ে

সাদিয়া শারমীন ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, মঙ্গলবার, ০৬:৩৮:৩৪অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
  এ্যাই মেয়ে, বৃষ্টিতে ভিজেছিলে? রেখেছিলে চোখ খোলা জানালায়?শুনেছিলে কি বৃষ্টির ছন্দ? পেয়েছিলে মাতাল করা সোঁদা মাটির গন্ধ? ও মেয়ে, কান পেতেছিলে বাতায়নে? কেউ কি এসে যায়নি বলে, চুপি চুপি? ভালবাসি, ভালবাসি। এই যে মেয়ে, তুমি কি একটু ভাবুক হবে? আলতো পায়ে মেঘ কে ছোঁবে? মেঘের জলে পা ভিজিয়ে, মেঘ বাহনে দূরের দেশে পালিয়ে যাবে [ বিস্তারিত ]

শৈশব

সাদিয়া শারমীন ১ ফেব্রুয়ারী ২০২০, শনিবার, ০৯:০৩:১১অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য
চোখ বুজলেই দেখতে পারি বিশাল,সবুজ মাঠ, শিশির ভেজা ঘাসের ডগা, স্নিগ্ধ ভোরের সাজ! চোখ বুজলেই দেখতে পারি শ্যাওলা ধরা দেয়াল, সেই দেয়ালের ওপাশেতে, দুষ্টু মিষ্টি কোলাহলে, মনটা বেখেয়াল! চোখ বুজলেই দেখতে পারি আকাশ জোড়া মেঘ, মেঘ বাহনে,দূরের দেশে, বৃষ্টিস্নাত তনু মনে হঠাৎ নিরুদ্দেশ! চোখ বুজলেই দেখতে পারি আমার ছেলেবেলা, শৈশবটা দিচ্ছে উঁকি, সকাল-সন্ধ্যা বেলা! শৈশব# [ বিস্তারিত ]

প্রশ্ন

সাদিয়া শারমীন ২৪ জানুয়ারী ২০২০, শুক্রবার, ০৮:৩৫:৫৭অপরাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
একটা কথা শুধাই যদি তোকে- হঠাৎ যদি আকাশ জুড়ে মেঘগুলো সব হুড়মুড়িয়ে বৃষ্টি নামায় শহর জুড়ে ভিজবি নাকি আমায় নিয়ে? একটা কথা শুধাই শুধু তোকে- গনগনে এক দুপুর রোদে, ব্যস্ত শহর,ব্যস্ত ভীড়ে, পাশাপাশি হাঁটতে গিয়ে হঠাৎ যদি যায় হারিয়ে, হন্যে হয়ে খুঁজে ফিরে পারবি আমায় চিনে নিতে? একটা শুধাই এবার তোকে- হঠাৎ যদি ঘুমটা ভাঙ্গে [ বিস্তারিত ]
বাতাসে শীতের গন্ধ জানান দেয় পৌষ মাসের।পৌষ এলেই হিমেল হাওয়া খবর নিয়ে আসে শীতের ।কুয়াশার চাদরে মোড়া ভোর বেলায় উঁকি দেয়া  সূর্যের আলো শিশির ভেজা ঘাসের আলিঙ্গনে দারুণ এক শোভা ছড়াতে ছড়াতে প্রকৃতিকে সাজিয়ে তোলে অপরূপ সৌন্দর্য্যে।ঘন পাতার ফাঁক দিয়ে এক চিলতে সোনালী রোদ্দুর উঁকি দিয়ে জানান দেয় সৃষ্টিকর্তা কত সুন্দরই না করেছেন শীতের সকাল।ভোরের [ বিস্তারিত ]

শহুরে জীবন

সাদিয়া শারমীন ৫ জানুয়ারী ২০২০, রবিবার, ১২:৪৯:২৮অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৬ মন্তব্য
কুয়াশায় ঢাকা সূর্যটা বারবার জানান দিয়ে যায় শীত টা বেশ জেঁকে বসেছে শহরের গায়। শহুরে ব্যস্ত জীবনও থমকে আছে শীতের কারণে। তবুও জীবন ছুটে চলে,জীবনের নিয়মে। কুয়াশা ঘেরা প্রকৃতি যেন স্তব্ধ। দূরে কোথাও ধোঁয়ার কুন্ডলী দেখা যায়।হয়তো রক্ত হীম করা ঠান্ডার প্রকোপ থেকে বাঁচতেই আদূল গায়ে আগুনের তাপ পোহায় কিছু ছেলে-বুড়োর দল।সঙ্গে পাড়ার নেড়ি কুকুরও [ বিস্তারিত ]

নিরুদ্দেশ হব

সাদিয়া শারমীন ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ১১:০৯:৫৭অপরাহ্ন কবিতা ১৬ মন্তব্য
ল্যাম্পপোস্টের অচেনা আলোয় রাতের গন্ধ মেখে নিরুদ্দেশ হতে চাই ।  নিরুদ্দেশ হতে চাই তোমার সাথে। শেষ রাতের নিস্তব্ধতাকে সঙ্গী করে নিরুদ্দেশ হতে চাই তোমার সাথে। ভোরের স্নিগ্ধতা মেখে ,শিশিরভেজা ঘাস মাড়িয়ে নিরুদ্দেশ হতে চাই,অচেনা কোনো গাঁয়। দূরন্ত কিশোরীর মত এক ছুটে নিরুদ্দেশ হতে চাই।নিরুদ্দেশ হতে চাই তোমার সাথে। পৃথিবীর চিরচেনা কোলাহল, আর নিয়মের বেড়াজাল দূরে [ বিস্তারিত ]

জোড়া শালিক

সাদিয়া শারমীন ২৫ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০৩:৫২:২১অপরাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
টানা বারান্দার একপাশে কাঠের চেয়ারে বসে ঝাপসা চোখে দূরে তাকিয়ে রহিমা বেগম।সামনের আঙিনায় দুটো শালিক খাবার খোঁজায় ব্যস্ত।শীতের সকালের সোনালী রোদ খয়েরী শালিক দুটোকে আরো বেশি সুন্দর লাগছে। শালিক দুটোকে দেখে রহিমা বেগমের মায়ের কথা মনে পড়ে গেল। মা সবসময় বলতেন,জোড়া শালিক দেখলে নাকি যাত্রা শুভ হয়। যখন তাঁর ষোল বছর বয়স,যাত্রা শুরু করেছিলেন শ্বশুর [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য