প্রথমেই সোনেলার সকল ব্লগারদের কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি দেরীতে এই পোষ্ট দেবার জন্য। আমাদের প্রিয় লেখকগন আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আসলে দৈনন্দিন ব্যস্ততার ফাঁকে ফাঁকে আমরা সবাই সাহিত্যচর্চা করি এবং এই ব্লগকে ভালোবেসেই আমরা নিজেদের সন্তানতুল্য লেখাগুলিকে সোনেলায় পোষ্ট করি। ফলাফলে পাঠকদের কাছ থেকে যে অভূতপূর্ব সাড়া পাই তা ভাষায় বর্ণনা করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।

সেই একই ভালোবাসা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে সোনেলা ব্লগ কর্তৃপক্ষ হেমন্ত বন্দনা উৎসবের আয়োজন করেছিলো। যদিও অন্যতম একজন এডমিন হিসেবে হেমন্ত বন্দনা উৎসবের উদ্যোক্তা ছিলাম আমি নিজেই তবে সোনেলার সকল এডমিন, বিচারক, মডারেটর আমাকে যে পরিমান সহযোগীতা করেছেন তা অস্বীকার করি কিভাবে? অন্তর থেকে তাদের সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানাছি।

এবার আসি লেখক এবং পাঠকদের কথায়। সাহিত্যচর্চায় নিজেকে প্রকাশ করতে হলে যেমন একটি মাধ্যম (হতে পারে ব্লগ, সংবাদপত্র, মিডিয়া ইত্যাদি) দরকার ঠিক তেমনি সেই মাধ্যমেকেও কিন্তু একটি প্রকৃয়া এবং নীতিমালার মধ্য দিয়ে নিজেকে পরিচালনা করে সকল সাহিত্যপ্রেমী লেখক এবং পাঠকদের স্বীকৃতি দিতে হয়। এক্ষেত্রে সোনেলা ব্লগ সফলতার শীর্ষে কারন বাংলা ভাষাভাষী আর দশটি ব্লগের চেয়ে সোনেলা এগিয়ে আছে প্রথম সারিতে। যার কাছে তার লেখকগনই হচ্ছে যাদুর কাঠি স্বরুপ, যাদের ছোঁয়ায় সোনেলা আজ এই পর্যন্ত আসতে পেরেছে। আপনাদের কাছে আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই।


সোনেলার পাঠক সংখ্যা কোন দেশে কতজন তা এখানে দেখানো হলো।

সোনেলা ব্লগের নিত্যদিনের লেখার সংখ্যা এবং পাঠক সংখ্যা দেখে সমমনা যে কেউ এই ব্লগ সম্পর্কে পরিস্কার একটি ধারণা পেয়ে যাবেন। আপনাদের জানার জন্য বলিছি- এই মূহুর্তে বিশ্বের ৫৬টি (আজকের ডাটা অনুযায়ী) দেশের বাঙালীগণ প্রতিদিন সোনেলার ওয়েবসাইটে আসছেন আমাদের লেখা পড়ার জন্য। এর চেয়ে বড় কিছু আর কিইবা চাইবার আছে?

সেই ভালোবাসা আর প্রাপ্তির সাহস বুকে নিয়ে আপনাদের সবার সহযোগীতা এবং অংশগ্রহণে সোনেলা ব্লগ সফলভাবে হেমন্ত বন্দনা উৎসব উৎযাপন করতে পেরে যারপরনাই আনন্দিত এবং উচ্ছ্বাসিত। হেমন্ত বন্দনা উৎসবে আপনাদের অভাবনীয় সাড়া আমাদের গর্বিত করেছে। আনন্দিত করেছে আমাদের পাঠকদের।

তবে একটি বিষয়ে কিঞ্চিত মনোবেদনা রয়েই গিয়েছে। আপনাদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে হেমন্ত বন্দনা উৎসবের সময় বাড়ানোর পরেও অনেক লেখক লেখা দিয়ে হেমন্ত বন্দনায় অংশগ্রহণ না করে আমাদের পাঠকদের বঞ্চিত করেছেন। সেই সাথে নিজেদের লেখাগুলি আপনাদের ফেসবুক ওয়ালে এবং সোনেলা গ্রুপে শেয়ার না করে হেমন্ত বন্দনা উৎসবের নিয়মের লঙ্ঘন করেছেন যা কিছুতেই কাম্য নয়। ব্লগ কর্তৃপক্ষ নিয়মাবলীর বিষয়ে যথেষ্ট কঠোরতা অবলম্বন করে সবসময়। তবে প্রথববার বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে এটি আপনাদের সতর্ক করে দিলাম। অনুরোধ, দয়াকরে কেউ নিয়মের ব্যত্যয় ঘটাবেন না

যারা হেমন্তবন্দনা উৎসবে প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় হয়েছেন যথাক্রমে- মাহবুবুল আলম, অনন্য অর্ণব এবং রেহানা বীথি আপনাদের সবাইকে অভিনন্দন। পাশাপাশি হেমন্ত বন্দনায় যারা লেখা দিয়ে সোনেলাকে সমৃদ্ধ করেছেন তাদের সাবাইকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আপনাদের জন্য সারপ্রাইজ অপেক্ষা করছে প্রিয় ব্লগারগণ।

হেমন্ত বন্দনা উৎসবের সাফল্যের এই ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে সোনেলা ব্লগ কর্তৃপক্ষ পৌষসংক্রান্তি উৎসব পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এবারের পৌষসংক্রান্তি উৎসবে অংশগ্রহণকারী ব্লগারদের জন্য ব্লগ কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে অতি শীঘ্রই দারুণ সারপ্রাইজিং একটি ঘোষণা আসছে। কে কি বিষয়ে লিখবেন এখন থেকেই চিন্তা করা শুরু করে দিন। অপেক্ষার ফল মিঠা হয় জানেনইতো।

আজ এ পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন। শুভ ব্লগিং।

৬৮৪জন ৪৩১জন
100 Shares

৩৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য