সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

বেশ কিছুদিন অনুপস্থিতির পর আবার ফিরে এলাম আপনাদের মাঝে। বাবার অসুস্থতার কারণে এই করোনাক্রান্ত দিনেও সাড়ে তিনশো কিলোমিটার দূরের বাড়িতে যেতে হয়েছিল। বাবার শরীরের অবস্থা ভাল নয়, তাই মনটাও ভাল না থাকাটাই স্বাভাবিক। তবুও মধ্যবিত্ত বাধ্যতার কারণে কর্মস্থলে ফিরতে হল অন্যদের মতোই।

সাহিত্য- সংস্কৃতির মানুষ হিসাবে প্রকৃতির প্রতি দুর্বলতা আমার সেই ছোটবেলা থেকেই। কিন্তু আজ অতটা ভাল লাগছিল না। আমাদেরকে বহনকারী ট্রেনটি দুরন্ত গতিতে ছুটতে ছুটতে হঠাৎ যখন গতি কমিয়ে দিল, তখন মনটা একটু কৌতুহলী হয়ে উঠল। ততক্ষণে ট্রেনটি দাঁড়িয়ে পড়েছে যমুনা সেতু পশ্চিমপ্রান্ত স্টেশনে। হঠাৎই চিন্তা হল কোনদিন তো যমুনা বা তার তীরে গড়ে ওঠা জনপদ ও স্টেশনকে সেভাবে লক্ষ্য করা হয়নি। আজ না হয় একটু দেখে নিই।

বিশাল নদীর অপার উদারতা আর প্রকৃতির মায়াবী দৃশ্যপট মুহূর্তেই মনকে কিছুটা পাল্টে দিল। সম্পূর্ণ বিনা খরচে উপভোগ করলাম অসীম সৌন্দর্য। আনাড়ি ক্যামেরাম্যান হওয়া সত্বেও নিজের মোবাইল ক্যামেরাতে ঝটপট বন্দী করে নিলাম কিছু ছবি। পরক্ষণেই মনে হল একমাত্র প্রকৃতিই পারে মানুষের মনকে নিয়ন্ত্রণ করতে! ধন্যবাদ প্রিয় প্রকৃতি। ধন্যবাদ প্রিয় বাংলাদেশ।

৩১১জন ২১৪জন
16 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ