লাল সবুজের এই পতাকার জন্য ১৯৭১ সনে এক সাগর রক্ত দিতে হয়েছিল আমাদের। শুধু মাত্র দেশ মাতাকে মুক্ত করার জন্য যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পরেছিল এই দেশের দামাল ছেলেরা। বাবা মা ভাই বোন স্ত্রীর ভালোবাসার টানকে উপেক্ষা করে ঝাঁপিয়ে পরেছিল যুদ্ধে।রণাঙ্গন থেকে মুক্তিযোদ্ধারা চিঠি দিয়েছেন তাঁদের প্রিয় জনকে। চিঠিতে যুদ্ধের অবস্থা , মুক্তিযোদ্ধাদের দেশের প্রতি ভালবাসা স্পর্শ [বিস্তারিত]

কিছু কথা @ এজহারুল এইচ শেখ

এজহারুল এইচ শেখ ৫ জানুয়ারী ২০১৩, শনিবার, ০৪:৩১:০১অপরাহ্ন কবিতা ৪ মন্তব্য
কাদা মনে তোমাকে আমি কিছু বলতে চেয়েছিলাম, জলের গভীরে বুদ বুদের মত কিছু কথা! হৃদয় তলে ভেসে উঠতে না উঠতেই, চোখের জলে বৃষ্টি হয়ে গেল! হিলিয়াম তো কোনো দিন বৃষ্টি হয়নি……
প্রথম আলো ব্লগে “ছবি কন্যা” খেতাব পাওয়া জনপ্রিয় ব্লগার ছবি আপু। যদিও তিনি “এই মেঘ এই রোদ্দুর” নিক’টা নিয়ে বিভিন্ন ব্লগে ও ফেসবুকে লেখা-লেখি করেন। লেখা-লেখির সাথে সমান তালে আঁকা-আঁকিতেও পারদর্শী! এম.এস পেইন্টের যেখানে আমি ভালো মতো একটা সরল রেখাও টানতে পারিনা সেখানে তিনি দিব্যি এঁকে ফেলেন নিজের পোর্ট্রেটসহ হরেক রকমের মনকাড়া ছবি। সত্যি অবিশ্বাস্য [বিস্তারিত]

শশ্মানে শিশির বিন্দু

এজহারুল এইচ শেখ ৪ জানুয়ারী ২০১৩, শুক্রবার, ০৯:৪০:৩১অপরাহ্ন কবিতা ৪ মন্তব্য
বিবশ রজনীতে আমি পথ খুঁজেছি তোমার, খাল -বিল বন্ধুর মাঠ পেরিয়ে গাড়ির নেমপ্লেটে, আমি তোমার নাম জানতে ছেয়েছিলাম! চুন-সুরকির দেওয়ালে চুয়ে পড়ে রোদ, চোখে ঝাপ পড়া বিড়ালের সজাগ কানে বসাবো বলে! যোনিমুখের ফিনকিবাধা রক্ত কালের ধোয়াঁটে জমেছে পলি, গঙ্গার গর্ভে শকুন-নাকে মিথেনের গন্ধ! বালিকা-মেঘের কান্না, শুক্নো তালপাতায় ভাঁজে বদ্ধ! শিকেয় মা হাড়ি না তুলে রাত্রি [বিস্তারিত]

ব্লগার ইমন জুবায়ের আর নেই

জিসান শা ইকরাম ৪ জানুয়ারী ২০১৩, শুক্রবার, ১১:২০:২১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১২ মন্তব্য
আল্লাহ ইমন জুবায়েরের আত্মার শান্তি দান করুন। আমীন! কিছু মানুষ নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান হয়ে যান । ব্যাক্তি হয়ে যান দেশ কাল পাত্রের চেয়ে বড়। বাংলাদেশ নামক ছোট আমাদের প্রিয় দেশটির পরিচয় দিতে গিয়ে এখনো দু এক দেশের মানুষকে বলি ” শেখ মুজিবের বাংলাদেশ ” । দীর্ঘ দিন যে ব্লগে একসাথে ছিলাম সেই ব্লগে ছিলেন ব্লগার [বিস্তারিত]
নীল আকাশের বুকে, কসাঁই দ্রোপদীর সতীপর্দা কাঁটে, পাতে সারা আকাশ জুড়ে সামিয়ানা! কোথাও কোনো রোদের দেখা নেই, রোদ খায় মেনিনজেশের তলায় লুকিয়ে থাকা এক ঢেবা পোকা! উস্কো- খুস্কো মাথা চুলকে চুলকে চোখদূটির পীতবিন্দু মডার্ন কবি ধারে দিয়েছে মাকড়সার ফাঁদে সেই আদিকাল থেকে,চক্রবৃদ্ধিতে সকালে বিলিয়নডলার, চায়ের কাপে আর লাল কার্পেটে বেশ কুড়মুড়ে খাস্তা শকুন্তলার লোনা জল! [বিস্তারিত]
  হারানোর পাল্লাটা একটু বেশি ভারীতো তাই বেদনাভরা মন নিয়ে লিখতে পারছিনা। যাক এটাই হয়তো বিধির বিধান।মেনে নিতে কষ্ট হয়, তবু মেনে নিতে হয়। পুরনোকে ভুলে নতুনের অপেক্ষায়…. আমি আমার ফেসবুক বন্ধুদের কাছ থেকে শেয়ার করলাম। বেলুন ফাটাতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।  🙂 এখানে ক্লিক করুন হ্যাপী নিউ ইয়ার টু অল সোনেলা ফ্রেন্ড।    

বীজের খোঁজে @ এজহারুল এইচ শেখ

এজহারুল এইচ শেখ ১ জানুয়ারী ২০১৩, মঙ্গলবার, ১০:৪৯:২১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫ মন্তব্য
ছেড়াঁ ছেড়াঁ মেঘের সুখ, ভাঙা কলসি রেখে এসেছি, ফেলে আসা ভাঙাচোরা রাস্তায়! হাড়গিলে জীর্ন সন্ধ্যায়, জ্বালাবে কে ?নতুন প্রদীপ আলো! চলো সবাই, খুজে চলি অনন্ত কালের যাত্রায়! যদি খুঁজে পাই, ভালোবাসায় ভেজা কোনো ভোরে , নতুন কোনো বীজ !মায়ের গর্ভে, শিশু তারই অপেক্ষায়!চলো যায় , দিগন্তের পথে,আগামীর সূর্য তারই প্রতীক্ষায়! (নতুন ২০১৩ ইংরেজী বর্ষের আমার [বিস্তারিত]
 ** মাত্র দুই বছরের ছোট বড় পিঠাপিঠি ভাইবোন আমরা। বড় হয়েছি একই আলো বাতাসে । ১৯৭১ এর যুদ্ধের দিনগুলোতে ওর ছোট হাত আমার ছোট হাত দিয়ে শক্ত করে ধরে হেটেছি গ্রাম থেকে গ্রাম। শুধু যে আমার ছোট বোন তা নয় – বন্ধুর মতই বড় হয়েছি। আমাদের দুজনের সব কথাই আমরা একে অন্যের কাছে শেয়ার করেছি। [বিস্তারিত]

ব্লটিং পেপার

এজহারুল এইচ শেখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১২, সোমবার, ১২:১৪:২৪অপরাহ্ন কবিতা ৪ মন্তব্য
শালা ব্লটিং পেপার! ভালো জিনিস ঢাললেও ভালো! খারাপ আঁকলেও ভালো! সামনেই থার্মল পাওয়ার! যত অঙ্গার-কলঙ্ক ঢালো সব সফেদ হয়ে ওড়ে! জিগোলরা সব মানুস হয়ে, কবিতার পাড়ায় আড্ডা পড়ে! থার্মল পাওয়ারের পাশে, ভাগ্নির ভাঙা বাড়ি! ছেলে ফর্সা!ভাগ্নি কালো! ভাগ্নি এখন বাড়িতে! কি রে মামা আর কদ্দিন? দেখ এ বার তোদের দিকে দেখ! না ওদিকে তোর জন্য [বিস্তারিত]
১. বিবেকের ঘরে তালা দিসি কান্দো এবার বইয়া, হুনুম না আর কিছুই আমি যতই যাও কইয়া! ২. দেখি তোমার মেকি হাসি এ্যাঁ কি ছলনায়, একই অঙ্গে কত যে রূপ কত মহিমায়! ৩. ধূর শালা! লিখুম না আর যা-ই লিখিনা ছাই, সব লেখাতেই তোমার গন্ধ তোমায় খুঁজে পাই! ৪. তোমার জন্য হৃদয় আমার হইলো তামা তামা, [বিস্তারিত]
শনিগ্রহ থেকে বার্তা এসেছে,এ বছর বাংলা সাহিত্যের হিম্যানদের সবাইকে নোবেল কমিটি একটি করে নোবেল দেবে! আর কোনো বিভাগে নোবেল দেওয়া হবে না!শুধু বাংলা সাহিত্য বিভাগেই নোবেল দেওয়া হবে!কারন হিম্যানদের সাহিত্য ভাবনার চেয়ে জীবনদর্শনে ভীষণ ফিউশন!আর হিম্যানদের জীবনদর্শন এতোই রহস্যময় যে জীবনদর্শন গুলো নাসার গবেষণাগারে পাঠানো হবে,মহাজাগতিক রহস্য উদঘাটনের জন্য!কারন এখনো মহাজাগতিক রহস্য ব্ল্যাকহলে!
১. সে-ই জানেরে সে-ই জানে মন পুড়ে যায় যার, বুকের ভেতর আর কিছু নাই শুধুই হাহাকার। ২. হ্যালো ম্যাডাম আর পারিনা ইতনা জ্বালা বুকে! ক্যামনে কমু আই এম ইন লাভ আন্ধাইর দেখি চউক্ষে। ৩. তোমার দেয়া স্বপ্ন বীজে আজও করি চাষ, বন্ধ্যা বীজে হয়না ফসল কি যে সর্বনাশ। ৪. শীতে কাঁপায় হাড্ডি মাংস তুমি কাঁপাও [বিস্তারিত]

রঙ চাই

নীলাঞ্জনা নীলা ২৮ ডিসেম্বর ২০১২, শুক্রবার, ০৮:১৮:৫৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১৫ মন্তব্য
ছবি আঁকা হবে , তাই রঙ চাই ওই রঙ-এর জন্ম কারখানার বন্ধ-ধোঁয়াটে পরিবেশে নয় গাছের পাতা থেকে নেবো সবুজ আকাশ দেবে নীল মেঘের থেকে কালো মাটি দেবে পিঙ্গল বেলী ফুলের থেকে সাদা আর লাল নেবো এই শরীরের সতেজ রক্ত থেকে তারপর চিত্রকরকে দেবো এমন পেইন্টিং পেপার প্রকৃতি এবং রক্তের রঙ মিশিয়ে তোমার ছবি আঁকা হবে [বিস্তারিত]
এইটা হল আমার দাদির কবর! ঐ হল আমার দাদা, শুয়ে আছে!শহরের মর্গ না!বা বৃদ্ধাশ্রম!আর এই যে সবুজের মায়ায় জড়ানো রোদের হাসিতে,হিজল-পলাশ-শিমূলের কোলে,দোয়েল নাচে কোয়েল আমার দাদির গান গায়! দাদা,অলক্ষ্য বাতাচে মুচকি হাসে, ফিঙে শোনে আর বাবুই দাদির নকশীকাঁথা বোনে! এই হল আমার স্বর্গ,কল্লোলিনী কংসাবতীর আঁচলে ঢাকা সবুজ বাঁশ বাগানে! দাদা নাকি দাদির জন্য কৃষনচূড়ার ডালে, [বিস্তারিত]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ