মারজানা ফেরদৌস রুবা

###"আমার দেশ আমার অহংকার"

###"মুক্ত করো ভয়, আপনা মাঝে শক্তি ধরো, নিজেরে করো জয়"

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৪ বছর ৮ মাস ২১ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ১৭৮টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ১৬৬৩টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ২৬১০টি
কে কী ভাবছেন জানিনা। কিন্তু আমি ভাবছি, রাষ্ট্রকে ব্যর্থ প্রমাণ করতে একশ্রেনি না হয় মরিয়া। তারা গুজব রটিয়ে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে চাইছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ? তাদের কী এতোটাই বোধ আক্কেল কমে গেলো যে খোদ রাজধানীর কেন্দ্রবিন্দুতে বসবাসকারীরাও এ ধরণের গুজবে প্রভাবিত হয়ে একটা মানুষকে এভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলতে পারে! কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছি না, বরং [ বিস্তারিত ]

প্রথা!

মারজানা ফেরদৌস রুবা ১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:২৬:৩১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৬ মন্তব্য
বাবার পাঠানো ইফতারি নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে গালমন্দ, নববধূর আত্মহত্যা! https://www.ppbd.news/whole-country/106330 ঘটনাটি সিলেটের জৈন্তাপুরে ঘটেছে। ‘প্রথা’ নামের জগদ্দল পাথরের নিচে আর কতো বলি হবে এদেশের নারীরা? সামাজিক রীতিনীতির নামে চাপানো এসব নিয়মের বেড়াজাল ভাঙতে আর কতোকাল লাগবে? এই মেয়েটা অল্পবয়সী বলেই হয়তো মনস্তাত্ত্বিক দুর্বলতার কারণে সহ্য করতে পারেনি শ্বশুরবাড়ির গালমন্দ। আর অল্পবয়সী-ই বা বলছি কেনো? এদেশে [ বিস্তারিত ]
পিতামাতার ভরণপোষণ বিধিমালা খসড়া: পুত্রবধূও বাধ্য সেবা দিতে।” সম্প্রতি এই শিরোনামে পত্রিকান্তরে জানা গিয়েছে যে পিতা-মাতার ভরণপোষণ সংক্রান্ত একটি খসড়া বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। পরবর্তী অংশ- আজ আসি, খসড়ার আরো একটি বিষয় প্রসঙ্গে। খসড়ায় কিন্তু বলা হয় নাই, সন্তান লায়াবল। বলা হয়েছে পুত্র ভরণপোষণ দেবে। আর সেবার ক্ষেত্রে পুত্রবধূর উপর আইনি বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। [ বিস্তারিত ]
“পিতামাতার ভরণপোষণ বিধিমালা খসড়া: পুত্রবধূও বাধ্য সেবা দিতে।” সম্প্রতি এই শিরোনামে পত্রিকান্তরে জানা গিয়েছে যে পিতা-মাতার ভরণপোষণ সংক্রান্ত একটি খসড়া বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। পিতা-মাতা! সন্তান জন্মদানের মাধ্যমেই মানব-মানবী পৃথিবীতে এই শ্রেষ্ট কৃতিত্বটি অর্জন করেন। ঠিক এই কারণেই ‘মায়ের চেয়ে মাসির দরদ’ বা ‘পিতার চেয়ে চাচা বড়’ হতে পারেন না। অর্থাৎ সন্তানের সাথে পিতামাতার যে [ বিস্তারিত ]

নীলিমার প্রেম! (পর্ব-৩)

মারজানা ফেরদৌস রুবা ৪ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১১:০২:৫১অপরাহ্ন গল্প ৭ মন্তব্য
কদিনের মধ্যেই ফরহাদ জানতে পারে তার নামে মামলা হয়েছে। যোগাযোগ করে নীলিমার সাথে। নীলিমা এবার জোসেফের পরামর্শমতো কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী এগোয়। ফরহাদ জানতে চায়, মামলা দিয়েছো কেনো? -কি করবো? তোমার কোন খোঁজ পাচ্ছিলাম না। -আসবো, এদিকটা একটু সামলে নিয়েই আসবো। -ঠিক আছে, তুমি আসো। -মামলা মাথায় নিয়ে আসবো? কি করে? -আচ্ছা, ও যখনতখন তুলে নেয়া যাবে। [ বিস্তারিত ]

নীলিমার প্রেম! (পর্ব-২)

মারজানা ফেরদৌস রুবা ১ এপ্রিল ২০১৯, সোমবার, ০৯:৫০:৩৯পূর্বাহ্ন গল্প ২ মন্তব্য
পর্ব দুই.. এদিকে মা-মেয়ে দু’য়ের সংসার যখন নীলিমা-ফরহাদ যুগলের সংসারে রুপ নেয়, তখন খুব স্বাভাবিকভাবেই দু’য়ের যৌথ উদ্যোগে এর আরেকটু ব্যাপ্তি ঘটে। পুরোনো বাড়ি ছেড়ে তারা নতুন বাড়িতে উঠে। নীলিমাও যেনো নতুন করে আবার হারিয়ে যাওয়া সংসারের স্বাদ খুঁজে পায়। ভালোই চলতে থাকে দুজনের যৌথ জীবন। ফরহাদ মাঝেমধ্যেই ছুটিতে দেশে যায়, আসে। দেখতে দেখতে শীলাও [ বিস্তারিত ]

নীলিমার প্রেম! (পর্ব-১)

মারজানা ফেরদৌস রুবা ২৮ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০৯:৩৪:৫৩পূর্বাহ্ন গল্প ৫ মন্তব্য
অবশেষে নীলিমা তার প্রাপ্যতা বুঝে নিয়ে ফরহাদকে বিদায় দিলো এই বলে যে, “যাও, তুমি বরং এখন তোমার অসুস্থ বউয়ের কাছেই যাও। এখন তোমাকে তাঁর বেশি দরকার আর আমার দরজা তো খোলা রইলোই।” “আচ্ছা যাই, ক্ষমা করো।” বলে ফরহাদ নিজ দেশে ফেরার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করলো বাসস্ট্যান্ডের দিকে। নীলিমা ফরহাদের চলে যাওয়ার দিকে অপলক তাকিয়ে থাকলো ততোক্ষণ, [ বিস্তারিত ]

নারীবাদ!

মারজানা ফেরদৌস রুবা ২৭ মার্চ ২০১৯, বুধবার, ০১:৪৬:৩৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৮ মন্তব্য
প্রথমেই বলে নেই আমাদের দেশে ‘নারীবাদ’ এবং ‘ব্লগার’ শব্দ দুটোকে মানুষ বরাবরই অপব্যাখ্যা করে, বাঁকা চোখে দেখে। বলা যায়, শব্দ দুটো কখনোকখনো ‘গালি’ অর্থে আবার কখনোকখনো প্রতিপক্ষকে টার্গেট করতেও ব্যবহৃত হয়। অথচ শিক্ষাদীক্ষায়, শৌর্যেবীর্যে উন্নত দেশগুলিতে তা আক্ষরিক অর্থেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। ২০১৩ সালের পর ব্লগার বলতেই মানুষ বুঝতো নাস্তিক। হায়! হায়! শিক্ষিত সচেতন লোককেও [ বিস্তারিত ]
দেশে এতো এতো শিশুসন্তান ধর্ষণের শিকার হচ্ছে এ নিয়ে একটিবারও যাদের কথা বলতে দেখিনি, তারাও এবার আকাশের (আকাশ-মিতু) ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ব্যক্ত করে আকাশ-বাতাস কাঁপিয়েছেন। জন প্রতিক্রিয়া: আকাশ স্বেচ্চায় সজ্ঞানে হতাশা থেকে অপমানবোধে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় বহুগামিনি স্ত্রী মিতু বিদ্বেষে ফেসবুক উত্তাল। ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন! আত্মহত্যায় প্রত্যক্ষ ভূমিকা না থাকলেও প্ররোচনার অভিযোগে অপরাধীর সাজা [ বিস্তারিত ]
ধানাইপানাই করে এদেশে রাজনীতি করার দিন যে শেষ হয়ে গেছে, এখনো যদি উপলব্ধি করতে না পারেন তো অতলে হারিয়ে যাওয়া ছাড়া আপনাদের আর কোন গত্যন্তর দেখছি না। টিভি স্ক্রিনে দেখছি, গণফোরামের নবনির্বাচিত সদস্যরা শপথ নেবেন বলে ইংগিত দিয়েছেন ড. কামাল হোসেন। বলি কি, আপনারাও নিন। হোক না ৫টিই আসন, তবুও নিন। সংসদের ভেতরে-বাহিরে থেকেই জন [ বিস্তারিত ]

হেফাজত সমাচার!

মারজানা ফেরদৌস রুবা ৫ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার, ০৯:৪০:৪৮পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, এদেশ ১২ মন্তব্য
রাজনীতিতে দাবার চালে যে যতো পরিপক্ক, খেলা তার পক্ষেই যায়। মাত্র পাঁচ বছরের ব্যবধানে পুরো ব্যাপারটা বিপরীতমুখী অবস্থানে গিয়ে দাঁড়িয়েছে! রাজনৈতিক ক্যারিশমাটা এখানেই। যদিও আপাত দৃষ্টিতে এই অবস্থানের নেগেটিভ দিকটাই আমরা চোখেচোখে দেখতে পাচ্ছি, কিন্তু পজিটিভ সুফলটা ভোগ করতে আমাদের বোধহয় আরও ১০/১৫ বছর অপেক্ষা করতে হবে। আমি নিশ্চিত এই কটা লাইন পড়েই আপনারা আমার [ বিস্তারিত ]
কোটা বাতিল নিয়ে দেশব্যাপী অনেক তুলকালাম হলো! সব ধরণের কোটা বাতিল করে গতকাল পরিপত্রও জারী হলো। এতে করে মুক্তিযোদ্ধা কোটার পাশাপাশি আদিবাসী কোটা, প্রতিবন্ধী কোটাও বাতিল হলো। আর নারী কোটা না হয় এখনকার জেনারেশন দরকারই মনে করে না। যাহোক, অনেককিছুই হয়েছে, হবে কিন্তু দেশকে মুক্তিযুদ্ধের আলোকেই এগিয়ে নিতে হবে। আর দেশকে মুক্তিযুদ্ধের আলোকে নেতৃত্ব দিয়ে [ বিস্তারিত ]
নভেম্বর ২০০৯, ‘প্রথম আলো’তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন- “পেঁপের পর রাবারের জিন নকশা উন্মোচন করলেন বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম উন্মোচিত হোক আমাদের পাটের জিন নকশা” তাতে চোখ পড়ে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় মাকসুদুল আলমকে তিনি দেশে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে দায়িত্ব দেন পাটের জীবন-নকশা উন্মোচনের। বাংলাদেশের কৃষি মন্ত্রণালয়ের আর্থিক সহায়তা পেয়ে বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম একদল তরুণ [ বিস্তারিত ]

দুর্জন বিদ্বান হলেও পরিতাজ্য!

মারজানা ফেরদৌস রুবা ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, সোমবার, ০৯:৩৮:৩৪পূর্বাহ্ন সমসাময়িক ৪ মন্তব্য
“দুর্জন বিদ্বান হলেও পরিতাজ্য!” এই বাক্যটির সারবত্তা বিবেচনায় না নিলে খেসারত কিন্তু আপনাকেই গুনতে হবে। কদিন যাবত কয়েকজন বিদ্বান ব্যক্তির ঐক্য আমাকে ভাবিয়ে তুলেছে। ভাবনাটা এজন্য যে তারা বিদ্বান বটে তবে তাদের হিতাহিত জ্ঞান প্রশ্নবিদ্ধ। এজন্যই জ্ঞানীদের বানি, “দুর্জন বিদ্বান হলেও পরিতাজ্য”। দুর্জনদের মিলিত ঐক্য আপনাকে কোথায় নিয়ে যেতে পারে, ফলাফল অনুমান করতে চাইলে তাদের [ বিস্তারিত ]
আমি এবং আমার কলিগ দুজন মিলে সিনিয়র এক কলিগের গাড়ীতে করে বাসায় ফিরবো বলে রওয়ানা হয়েছি। সেদিনটা সম্ভবত ২০১৬ সালের শেষদিক ছিলো। এটাওটা নিয়ে আলাপচারিতা একসময় রাজনৈতিক আলোচনায় গিয়ে প্রাণ পায়। সেসময়ে তৎকালীন প্রধান বিচারপতি বিভিন্ন সভা-সমাবেসে বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। তাই নিয়েই আলাপ জমে উঠেছে। কলিগ দুজন তাঁর ভূয়সী প্রশংসায় পঞ্চমুখ। কিন্তু আবার নিজেরাই প্রশ্ন [ বিস্তারিত ]

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য