ভালোবাসি মেঘ

তৌহিদ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ১০:১১:০৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩২ মন্তব্য

পৃথিবীর বিরান কোণে নির্বাক নিশ্চুপ শেষ নমষ্কারে নতজানু হয়েছিলাম আদিকালের অন্তিম পর্বের শুরুতে। দিনরাত্রির হিসেব ভুলে গিয়ে বহমান নদীর স্রোতের মত জপেছি প্রেমময় শাব্দিক কাব্যকথা। কালের গহ্বরে পাথুরে গুহার শক্তপোক্ত দেয়ালে অমোচনীয় ছবি এঁকেছি যুগলমিলনের। যার সবই এখন স্মৃতি!

রঙধনুর সাতটি রঙকে চিনেছি প্রেমিকার মুখাবয়বে লাজলজ্জার প্রস্ফুটিত আবর্তে। আমি দেখেছি নিশুতি শ্যামার রুদ্র আস্ফালন। সকাল-সন্ধ্যা বিশ্ব লিপিকার পাতা ভরিয়েছি কবিতায় লেখা ললাটের কালো তিলের সৌন্দর্য। বিশ্ব আমাকে পেয়েছে প্রেমিক রুপে আর তোমাকে ধারণ করেছে এ যুগের ক্লিওপেট্রার তৈলচিত্রে।

পাশাপাশি কাছাকাছি রসনিমগ্ন অমৃতময় মুহূর্তগুলি বিশালাকার সৃষ্টি-স্রোতের মধ্যে নিরর্থক নয়, ক্ষণিকও নয়। তারা নিখিল বিশ্বের একত্র গাঁথা। চাইলেই কি মন থেকে সব মুছে ফেলা যায়? অবচেতন মনের আহাজারি যেন ভিসুভিয়াসের মত তপ্ত। হিমালয়ের ক্ষুরধার শীতলতার কাছে এখন আমি মরচে ধরা একটি খণ্ডমাত্র।

নানা ঋতুর পরিবর্তে আমার কাছে ছায়া হয়ে আসে যে মেঘ ইদানিং আমি নতুন করে তার প্রেমে পড়েছি। বৃষ্টি হয়ে যতবার ঝরে পড়ি বাষ্পাকুল মেঘ আমাকে ততবারই কাছে টানে। এ এক অমোঘ শৃঙ্খল! যেনো কঙ্কালমালী নানা পথে ছড়িয়ে দিয়েছে নিজের শত শত ইতিহাসের অর্ধলুপ্ত অবশেষ। আমি হয়েছি ঢালতলোয়ার বিহীন এক রক্তক্ষরিত সেনাপতি।

যদি মিশে যাই মাটির সাথে জেনো বিদায়কালে রেখে গেলাম প্রেমের শেষ প্রণতি। অবনত দিনাবসানের বেদীতলে অপেক্ষায় থেকো পুস্পবৃষ্টির। চলে গিয়েওতো যাইনি, যেতে পারিনি। তোমার কাছে থেকে যাওয়ার সম্ভাব্য প্রস্তুতি পর্বে আমি নিজের অজান্তেই বলেছিলাম- ভালোবাসি মেঘ!

রোম জ্বলেছে, লাইলী-মজনু অমর হয়েছে। সাহারার বুকে মরীচিকায় ভীত না হয়ে ললিত কঠোরের ভীষণ মধুরা সেজেছি আমি। মেঘের সাথে সন্ধিপত্রে তোমাকেই দিয়ে রেখেছি আমার পাণিপ্রার্থী ক্ষমতার একমাত্র অধিকারিণী। স্বাক্ষর করেছি একটিমাত্র বাক্য- “চাহিবামাত্র ইহার বাহককে ভালোবাসা দিতে বাধ্য থাকিবে!”

২৯০জন ৩৫জন
0 Shares

৩২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ