এ মোর স্বপ্নের রানী, কতদিন হয় না দেখা তোমার পানে। মনে হয় কত যুগ হলো পার আমার এ ভাঙা পায়ে হোঁচট খাওয়া মনে। অথচ এই আমি নিরন্তর তোমার বুকে রঙ ছড়িয়ে খেলেছি হোলি ৫০ তম এ চিঠি খানি লিখব বলে। তীরে এসে কুলে ভিড়ব বলে অনাহুত ঝড় ঝাপ্টা পিছু টানে মোরে।

ভালোই তো ছিলাম প্রতিসপ্তাহে একটি করে লিখতাম চিঠি আকাশের ঠিকানায় য় ফেইস বুকের কল্যাণে। বন্ধুর আবদার মিটাতে গিয়ে তোমার বুকে সাঁতার কাটি দিবানিশি আমারি অজ্ঞতার ভুলে। অনভিজ্ঞতার কারনে চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়ে হুমড়ী খেয়ে ভেঙেছি পা, নাক ও মুখ। তোমার বুকে কত অভিজ্ঞ লোক সাঁতার কাটে আমি ও এই সৌভাগ্যবানদের একজন হতে চেয়েছি।

সবাই আমার প্রেরণার উৎস ছিল। তাদের আবদার মেটাতে গিয়ে কাজে দিয়েছি ফাঁকি। তবুও দিইনি কান্তি। তোমার অভিজ্ঞ গুনীদের অনুসরণ করতে গিয়ে কে কিভাবে লিখে কিভাবে মন্তব্য করে অথবা প্রতিউত্তর দেখার ছলে দিনে বার বার করেছি বিচরণ তাদের নাট্যশালায়। অথবা বাসার নেটওয়ার্ক বিড়ম্বনায় বার বার আঙুল নিয়েছি নিষিদ্ধ জায়গায় নিজের অজান্তে বা ভুলে। যাতে সহসা তোমার দেখা মেলে।

এই একটি ক্ষমার অযোগ্য অপরাধে মিডিয়া ট্রায়াল হলো। তাও সহজ সরল মনে জানতে চাইলাম। রিলোড বা রিফ্রেশ মানে দুইটি সিম্বল কোথায় থাকে ? এই অজ্ঞতার অমার্জনীয় ভুলে লজ্জায় মাথা হেট হয়ে যায়।

মানুষ যখন বিপদে পরে খড় কুটা নিয়ে বাঁচতে চায়। আমি ও বাঁচতে চেয়েছি তোমাকে নিয়ে। টেলিভিশন আর মিডিয়ার শব যাত্রা বাদ দিয়ে এই করোনা কালে। তোমার কাছে আশ্রয় চেয়েছি কারণে অকারণে গৃহবন্দী হলাম বলে। সে যদি হয় অপরাধ ক্ষমা করে দিও প্রিয়তমা। অনেকের কাছে আজ আমি এক অপান্তেয় নিষিদ্ধ আর ভবঘুরে।

প্রিয়তমা, বই আর কাগজ পড়া ছিল নেশা দুরন্ত ছেলেবেলায়। সংবাদ , বাংলার বাণী আর একতা ছিল প্রিয় প্রত্রিকা। মানুষ যখন প্রত্রিকা বন্ধ করে করোনাকালে আমি এখনো পড়ে যাই নিরন্তর। জনকন্ঠ আমার নিত্যসঙ্গী, আমার প্রেম , পারি না বাদ দিতে। আমি লিখতে পারি, টাইপ করতে পারি না, বুড়ো আঙুলে লিখে যাই মোবাইলে রিদমিকে কিনা হয়নি জানা। প্রুফ রিডিং এর জন্য ছোট মেয়ের পিছনে ধর্ণা দিই। এর পরও সবার লেখায় দিনে ২/৩ বার করে গিয়েছি। পড়েছি বারবার। আর নিজের লেখা প্রিয়তে নিতে গিয়ে গুগলে গেলেই আসত তোমার কাছে লেখা আমার প্রেম পত্র খানি।

তোমার পাশে থাকার জন্য মন্তব্য করেছি ২০৮১ বার প্রতিউত্তর পেয়েছি ১৩৯৪ বার। অর্থাৎ ৬৮৭ জন গুনী স্বজনের মন জয় করতে ব্যর্থ হয়েছি।আমি মনে করেছিলাম এটাই তোমাকে ভালবাসার মাপকাঠি।
জানি না তোমার মন পাওয়া যদি ব্যর্থ হই তবে ক্ষমা করে দিও।

পরিশেষে শরৎবাবুর ভাষায় বলি
“বড় প্রেম শুধু কাছেই টানে না দূরেও ঠেলে দেয়।
প্রিয় গানের কলি দিয়ে ইতি টানি।
হয়তো কাছে নাহি পাব তবু ও
তোমায় আমি দূর থেকে ভালবেসে যাব।
হয়তো দেখা নাহি পাব তবুও তোমায় আমি
সময় আর সুযোগ বুঝে উঁকি দিয়ে যা-ব।
কাজের ফাঁকে ব্যস্ত সময় ঠেলে।

প্রিয়তমা, তুমি দীর্ঘজীবি হও !
সবাই ভাল থাকবেন। শুভ কামনা।

আমার প্রোফাইলটা ফিচার করতে চেয়ছিলাম। জানি না বলে দেয়া হয় নি। তাই কপি পেষ্ট করলাম।
* নিবন্ধন করেছেনঃ ৫ মাস ১৪ দিন আগে
* পোস্ট লিখেছেনঃ ৪৯টি
* মন্তব্য করেছেনঃ ২০৮১টি
* মন্তব্য পেয়েছেনঃ ১৩৯৪টি
প্রিয় পোস্টঃ ৫৫টি

২৪৮জন ৯৭জন
0 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য