নাসির সারওয়ার

একজন পাঠক।

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৪ বছর ১১ মাস ১৭ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ২৪টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ১২৭৯টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ১০৬৪টি
কবি হবার স্বপ্ন ছিলো (কবি হবো), কিন্তু স্কুলের ইংরেজি স্যার হতে দিলেন না। ইচ্ছে ছিলো পুলিশ হবো (পুলিশ হবো), কিন্তু মানুষ পেটানোর জন্য আধুনিক প্রযুক্তির কথা শুনে বাদ সাধলেন কর্মকর্তারা। আরে, কিছুতো একটা হতে হবে! নেমে পড়লাম ব্লগার হতে। শুনেছি ব্লগার হবার জন্য কোন ধরাবাঁধা নিয়ম নাই। যাহা ইচ্ছে তাহাই লেখা যায়। এ সুযোগ আমি [ বিস্তারিত ]

মৃত্যুর কাছাকাছি

নাসির সারওয়ার ১ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ১২:১৩:৫১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৫ মন্তব্য
  প্রকৃতির সৌন্দর্য দেখতেই আমরা অভ্যস্ত। কিন্তু তার যে একটা কদর্য রূপও আছে, তা আমরা দেখতে চাই না। দেখাতো দূরের কথা আমরা তা নিয়ে কথা বলতে বা শুনতেও চাইনা। তারপরও দেখতে হয়, শুনতে হয়। এটাই প্রকৃতির নিয়ম যা আমরা ইচ্ছে করলেও এড়িয়ে যেতে পারিনা। বৃষ্টির দিকে থাকিয়ে আনন্দে দেহ মন ভেজাবো। তবে ঝড় এলেই পাখিদের [ বিস্তারিত ]
  যার যার স্বপ্ন তার তার থাক। আমরা যা যা ভাবি, যা যা দেখি বা করি, তা আমাদের মস্তিষ্ক তার নিজের মত করে সাজিয়ে রাখে। সেগুলোই আবার হুট-হাট স্বপ্নে চলে আসে। সাধারণ ভাবে #স্বপ্ন বলতে আমরা তাই ই বুঝি। তারপরও আমরা এমন কিছু দেখি যা স্বাভাবিক নয়। যেমন আমি দেখি মেঘের দেশে ভেসে বেড়াচ্ছি। আবার [ বিস্তারিত ]

পুলিশ হবো

নাসির সারওয়ার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ১১:১৮:২২পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৪৩ মন্তব্য
আপনি বিজ্ঞান নিয়ে পড়েছেন, তাইতো? # জী। বিজ্ঞান বিভাগের কোন পদের জন্য নাম না দিয়ে পুলিশ পদের নাম সবার উপরে! # আমি পুলিশ হবো। পরিবারের কেউ পুলিশে কাজ করে? # না। তাহলে উৎসাহটা আসলো কি করে? # নিজের উৎসাহে। এই উৎসাহের কোন উৎস আছে? # জী, আছে। তা আমাদের যদি সেই উৎসাহের কথাটা বলতেন, তাহলে [ বিস্তারিত ]

শিশু কথন – ৪ । ইস্টক ও ফুল

নাসির সারওয়ার ১৬ জানুয়ারী ২০১৭, সোমবার, ০৫:০৫:৩৪অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৭ মন্তব্য
ঘুম মৌ মৌ গন্ধে ঘুমই ভেঙ্গে গেলো। নাহ, আমিতো আমার প্রিয় বিছানাতেই আছি। তবে বিছানার অবস্থানটা পরিচিত নয়। চারিদিকে গাছপাতার দেয়াল যাতে ফুলও আছে হরেক রকমের। এ-যেনো বেশ পরিচিত ঘ্রাণ। এরকম কিছু চেনা ফুল আমাকে কে-যেন দিয়েছিল যা এখন আর তা মনে নেই। মাথার উপরে বড় বড় পাতা ওয়ালা একটা গাছ বাতাসে দোল খাচ্ছে। নীচে [ বিস্তারিত ]

শিশু কথন – ৩ । নীল জামা

নাসির সারওয়ার ১৪ অক্টোবর ২০১৬, শুক্রবার, ০১:৩৬:২৪পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৪ মন্তব্য
মামা বাড়িটা বেশ পরিচিত হয়ে গেছে অল্প সময়ের মাঝে। আমার রুটিন আমি গুছিয়ে নিয়েছি। ভোরে ঘুম থেকে উঠেই সিঁড়ির কাছে গিয়ে “আপ্পি” বলে চীৎকার করা দিয়ে দিনের শুরু। যে ঘরটায় আমরা থাকি সেখানে একটা ঢাউস আঁকারের বেড। জানিনা, আমার মামার পূর্ব পুরুষেরা কী রাজা-বাদশাহ না জমিদার ছিলো। বেডটা শুধু বড়ই না, অনেক উঁচুও বটে, যা [ বিস্তারিত ]

অবশেষে ইমতিয়াজ

নাসির সারওয়ার ৭ অক্টোবর ২০১৬, শুক্রবার, ০১:৫৫:৩৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩০ মন্তব্য
# হ্যালো, বল । আমি কাশবনের যৌবন দেখবো, এখনইতো সময়। # আচ্ছা, আজ নিয়ে যাবো ঠিক সন্ধ্যে বেলায় কিন্তু # আচ্ছা সে কী ওর হাসি যেন ছোট্ট একটা খোকা তার মার বুকে ঝাঁপ দিয়েছে। ইচ্ছে হোল কাশবনে হাটবে, ওদের গাঁয়ে হাত বোলাচ্ছে। সাথে কত সুন্দর করে প্রকৃতির বর্ণনা সেতো আমি পারিনা। মাঝে মাঝে কিছু ভাবনা [ বিস্তারিত ]

অশুভ জন্মদিন

নাসির সারওয়ার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬, বৃহস্পতিবার, ১০:৪৮:২০পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৭ মন্তব্য
এযুগের জন্মদিনের চিল্লাচিল্লি দেখে কিছুটা হলেও হিংসিত হই। কারণ আমার ছোট বেলাটায় তেমন উল্লেখ করার মত কোন জন্মদিনের কাহিনী নেই। মাঝে মধ্যে একটু ভালো খাবার দিয়েই মা সবাইকে মনে করিয়ে দিতেন। তবে আজকাল আমার জন্মদিন উৎসব হয়! ব্যাপারটা ভাবতেই বেশ লাগে। দুষ্ট ভাতিজার জন্মদিন উৎসব। সে অনেক হৈ চৈ ব্যাপার। কত কত বেলুন যা আমার [ বিস্তারিত ]

শিশু কথন – ২ । সমুদ্র সাঁতার

নাসির সারওয়ার ২৫ আগস্ট ২০১৬, বৃহস্পতিবার, ০৫:৪৩:৫৪অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩০ মন্তব্য
মামা বাড়ি আসতে না আসতেই সবাই কেমন যেন ব্যস্ত হয়ে উঠলো। কোথায় কোথায় বেড়াতে নিয়ে যাবে। কী কী করবে এসব নিয়ে। আমি বুঝিনা, এতো তাড়া কিসের! আমিতো অনেক দিন থাকবো। তারপরও রাতে গোজগাজ শুরু। অনেক ভোরেই নাকী বের হতে হবে। আমি এখনো জানি না, যাচ্ছিটা কোথায়। সেই কাঁক ডাকা ভোরে উঠতে হলো। সমুদ্র দেখতে যাবো [ বিস্তারিত ]
বেশ কয়েকদিন থেকেই দেখছি বাবা মা একটু ভিন্ন ব্যস্ততায়। একটু কি অস্থির, নাকি বেশি বেশি সাবধান! এটা নিতে হবে, ওটা কিনতে হবে। কী নিয়ে যে তারা এতো ব্যস্ত! আমাকে কিছুই বলে না। কেনো বলেনা! আমিওতো তাদের কাজে আসতে পারি। তারপরও চোখ কান খোলা রাখছি, কী করে তাহারা। একদিন রাতে তারা ব্যাগ গোছানো শুরু করলো। সবার [ বিস্তারিত ]

সোনেলা মন্তব্য – ১

নাসির সারওয়ার ১৫ আগস্ট ২০১৬, সোমবার, ০৪:১৫:৩২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫২ মন্তব্য
সোনেলায় আমি তখন বেশ নতুন। প্রথম দিকে শুধু লুকিয়ে লুকিয়ে পড়তাম, এরপর দু’একটা মন্তব্য। তারপর অনেক সাহস করে দু’একটা লেখা লিখেই ফেলি, যা আমার কম্ম না। অনেক উঁচু মানের লিখিয়েরা আছেন এখানে। দু’চার জনের লেখা তো বোঝার জন্য অনেক কাঠ খড় পোড়াতে হয়। মাঝে মাঝে বলতে হয়, “বাহ বেশ হয়েছে, ওই অংশটা এমন, সেই অংশটা [ বিস্তারিত ]

একটি এ্যাড রিকোয়েস্ট

নাসির সারওয়ার ২৮ জুলাই ২০১৬, বৃহস্পতিবার, ০১:৩২:০৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৮ মন্তব্য
একটি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট এসেছে যে নামে সোনেলাতে একজন আছেন যাকে আমি দাদাভাই বলে ডাকি। অনেক ইচ্ছে থাকলেও অ্যাড করতে পারছিনা নিজের কিছু  সীমাবদ্ধ ধ্যান ধারণার কারণে। এখন তাকে সে কথাটা বলে দেয়াটাও দায়িত্ব মনে করি। # দাদাভাই, আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত তোমাকে অ্যাড না করতে পারায়। কেন? # আমার খাতায় কেউ নেই যারা নিজের নাম [ বিস্তারিত ]
ওয়াসার পানি ফুটিয়ে কেন পান করবেন! কারণ ঐ পানিতে ক্ষতিকর জীবাণু থাকে, তাই তা ফুটিয়েই খেতে হয়। ওসব ক্ষতিকর জীবাণু ছাড়াও আরও কিছু রাষায়নিক ক্ষতিকর উপাদান থাকে যা ফুটিয়েও দূর করা যায় না। তারই একটা মৌলের নাম আর্সেনিক, যা কোন ভাবেই পানি থেকে আলাদা করা যায়না। মোগলরা এক সময় আর্সেনিক বিষকে বেশ ভালো ভাবেই ব্যাবহার [ বিস্তারিত ]

বাঁশডলা !!

নাসির সারওয়ার ৯ মার্চ ২০১৬, বুধবার, ০১:৪৭:৩৪অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, সমসাময়িক ৪৬ মন্তব্য
সময়ের প্রয়োজনে আমরা নতুন নতুন অনেক কিছু সংযোজন করি, সাথে পুরনো অনেক কিছুই হারিয়ে ফেলি।  ছোটবেলা থেকে আমি একটা বাংলা শব্দের সাথে পরিচিত। কিন্তু শব্দটার বাস্তব রূপ আমাদের অধিকাংশ কেন বর্তমান কালের অনেকেরই অচেনা, অদেখা ও অজানা। অনেকটা প্রায় মসলিন শিল্পের মতই বিলুপ্ত ঐতিহ্য। সে শব্দটা হচ্ছে বাঁশডলা! আগেকার সমৃদ্ধ বাংলায় অপরাধীদের শাস্তি দেয়ার এটা [ বিস্তারিত ]
খেলা পাগল ছেলেটা আমার মন খারাপ করে গ্যালারীতে বসে আছে। জিজ্ঞেস করার প্রয়োজন হয়নি কারণ কি। তার দুটো মামাতো ভাই পাকিস্তানের পক্ষে কাফঝাপ করছে। “ওরা কি স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস জানেনা”? বিদেশ বিভুঁয়ে জন্মানো ছেলেটা খুঁটিয়ে খুঁচিয়ে জানতে চাইতো, আমি কি করেছি যুদ্ধের সময়, কেন আমি যুদ্ধে যায়নি, আরো কত কী? অথচ ওরই কাজিনরা কিনা তাদের [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

️️ 🍂️️ 💝 ️️ 🌟 🌺 💐 💥 🌻 🍄 🌹 💐 ⭐️ 🎉 🎊