শ্মশান পাঠ

ছাইরাছ হেলাল ১ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ১২:৪০:১২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২১ মন্তব্য

 

জোর মন্ত্রপাঠ আর দুলে ওঠা লেলিহান আগুনে শিখায় ক্রমশ
পুড়ে পুড়ে খাক হতে হতে মিইয়ে যাচ্ছে একান্ত আপনের শব দেহটি ছাইভস্মে,
সন্তান, নিকটাত্মীয় ও স্বজনের আহাজারিতে। একটু পরে-ই নিঃশেষিত হবে
শেষের চিহ্নটুকু, নদী-বুকে; ক্ষত হৃদয়টি থেকে যাবে বহুকাল বহুদিন;
সময় তাকেও হরণে নেবে একটু একটু করে।

বহুদিন পরে এলাম এই প্রিয় স্মৃতির শ্মশানে, ঝকঝকে উজ্জ্বল আলোর বন্যাতে,
দেখা হয়ে গেল কত কতজন স্বজনেই সাথে , করোনায় বিস্মৃত যারা, অকালে;

গুচ্ছের মানুষেরা নীরব অশ্রুতে মুহ্যমান, কেউ মুছছে অশ্রু বারংবার, হাহাকারে হাহাকারে,
কেউ ঝিম মেরে বসে  আছে একাকী, কেউ নিচুস্বরে সেরে নিচ্ছে প্রয়োজনীয় অ-প্রয়োজনীয় আলাপন।
খোশগল্প! সেও চালু আছে প্রকারান্তরে।

নদীমুখো-নির্জন-নিরিবিলিতে একাকী দাঁড়িয়ে শ্মাশান ডাইনিকে ভাবি,
দেখা হয়-নি করোনাকালে, সে তো অনেক অনেক দিন। ডাইনি রানী –ই বা কেমন আছে?
আজকালকার শব মিছিলের দিনে! এখানেও আসি-না, আসা-হয়-না, রাত্রি বা কাল-রাত্রিতে;
এসেছি যেমন আগে, আগে;

সহসা যেন একটি শিরশিরে হিমের ফুঁ-বাতাস ছুঁয়ে গেল, যত্ন স্পন্দনের
বিনম্র-উষ্ণতার ঐন্দ্রজালিক আলোক-শিহরণ-বিস্তারে!

স্নিগ্ধতার সৌন্দর্য-মুগ্ধ দু’চোখ শুধু ফ্রেমে-বাঁধা হয়ে ঝুলতে থাকে, তোলপাড় শোকে-ও।

ছবি নেটের।

২১১জন ৪৭জন
0 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য