এখন অনেক রাত

খাদিজাতুল কুবরা ২১ ডিসেম্বর ২০২০, সোমবার, ০১:৫০:৫৫অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য

 

জানি, একদিন আমার ও বয়স বাড়বে;
নুয়ে পড়বে যন্ত্রনা ও!
চল্লিশ পেরিয়ে পঞ্চাশ ছোঁবে;পঞ্চাশ পেরিয়ে ষাটের কোঠায়__
বার্ধক্য যেখানে সংবর্ধনা দেবে!
সেদিন কি তুমি সেথায় দাঁড়িয়ে রবে!
সব বাধার পাঁচিল ভেঙে আমার হাতটি ধরবে?
আবোল তাবোল ভাবনায় নেই যতি ছেদ!
নির্ঘুম চোখে ভবিতব্যের ধারাপাত;
এখন অনেক রাত।
রাতের গায়ে জাঁকালো শীত;
শীতের আমেজ মেখে ঘুমন্ত জগৎ।
আমার হিমাচল হৃদে স্মৃতির অনাবৃত কাঁধ,
যে কাঁধে মাথা রাখলে কাঁটাতার বিঁধে!
হুল ফোটায়!বিষোদগার করে! সুক্ষ সূচাগ্রের খোঁচায়।
তীব্র বিষে ছেয়ে যায় ধমনী,মস্তিষ্কের সব নিউরন!
পাগলপারা হয়ে ছুটি তখন মুক্তির নেশায়,
প্রত্যুষ শিশির কুয়াশায় ধুয়ে নিতে চাই,
অনাহুত যন্ত্রনার নীলাবরণ।
অতঃপর কষ্টের ধার হয় কিছুটা বিকল!
মিঠেল রোদের গা ঘেঁষে দুপুর গড়াবে হেসে হেসে,
আসবে মনোহারি বিকেল।
নিরামিষাসী শীতের শেষে,
আমাদের ও একটি বসন্ত চাই!
যদিও পড়ন্ত বেলায় ঘনিয়ে আসছে সন্ধ্যা প্রায়!
সেদিন আঁধারে ভয় পেয়োনা,
আমি ও হবো নির্ভয়া, মানবোনা কোনো মানা।
বয়সের ডানা ভেঙে গেলেও,
কপোতাক্ষ তীরে আনমনে হাঁটবো দুজনা।

৪৭২জন ৩১০জন
7 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ