অলিখিত প্রতিশ্রুতি –

বন্যা লিপি ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ০৭:৩৪:০৪অপরাহ্ন অণুগল্প ৩১ মন্তব্য

–আমি তোমাকে চাই

যখন আমি শূন্যতা অনুভব করি।

: শুন্যতারও তল আছে, অনুভবে বুঝতে পারি।

–আমি তোমাকে চাই

যখন আমি ভীষণ অসুখী।

: অধরা সুখের -অসুখের মতো চাওয়া হয়ে পড়ে পথ্যির মতো। আমি সেখানেই রয়ে যাই যেখানে আমায় পাওয়া যায়….

 

–আমি তোমাকে চাই

যখন সময় থমকে দাঁড়ায়।

: ভীষণ ধুম্র কুয়াসা ঘেরা জনপদের দীর্ঘ রাস্তায় সময়ের ধুলো গুণে দেখো।এগোবে না আর সময়!

— আমি তোমাকে চাই

যখন পৃথিবী আমাকে ছেড়ে যায়।

: নিথর অ-কম্পিত চোখের পাপড়ি পাহাড়ায় থাকুক, যখন যেমন  সুর ওঠে  ইচ্ছের বেহালায়। অভৈব শব্দের মানে জানি না।

কিছু অবোধ মায়ার জালে রোজ দেখি জলের প্রতিচ্ছবি।

— আমার তোমাকে প্রয়োজন

যেমন দেহের জন্য মাথা প্রয়োজন,

যেমন মাছের জন্য জল প্রয়োজন!

: বলেছিলে, আমাদের নিরবতাও অনেক শক্তিশালী। বলেছিলে, কাঁচবন্দী জীবনের সুখের কথা। বড় বিলাসী জীবন সে কাঁচের জলে মাছের সখ্যতা!

–তোমাকে চাই নক্ষত্র হিসেবে

আমার বেড়ে উঠতে, আমার বৃদ্ধ হতে।

: দ্বীপবাসী নই, নই নিহারীকার সঙ্গী।

নিঃশ্বাসের আশে আছি তো এখনো- রয়ে যাবো ছায়াদের মত!

— আমি তোমাকে চাই-চাই-চাই

যখন আমার পাশে আর কেউ নাই

আমি ভীষণ ভয় পাই। যখন

কেউ আমাকে বিশ্বাস করে না আর

তখন আমি তোমাকে চাই।

: বোধ হয়ে ভাবনারা থেকেই গেছে আমাকে ছেড়ে আমার কায়া।

কিছুইতো নেই দেবার, আছে শুধু মায়া।

— যখন আমি একলা থাকি

যখন আমার চোখে অশ্রু ঝরে, তখন

আমি তোমাকে চাই।

যেদিন আমি দেশদ্রোহী অথবা যোদ্ধাহত

সেদিন আমি তোমাকে চাই।

: পৃথিবী শান্ত হবে কোনো একদিন, কোনোএকদিন শুকাবে থই থই জলের বিলাসিতা। নেমে গেলে বোঝাদের বোঝা, সেদিনও খুঁজে পাবে আমার ঠিকানা।

–আমি তোমাকে চাই

যখন আমি কাঁদি।

আমি চাই তোমাকে

যদি আমি বেঁচে থাকি।

:  না দেখা ভূবনের বাতাসেও জেনে নেই, কার চোখ ভিজছে কোন অন্ধকারে!

আলগোছে মুছে দেই অস্পৃশ্য স্পর্শে, চোখের কোনে জলের ধারা।

যদি এইসব কোলাহল যায় থেমে……যদি থাকি বেঁচে গিয়ে…………..

২১৯জন ৫৫জন
0 Shares

৩১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ