বশীকরণ মন্ত্র

ছাইরাছ হেলাল ১ জুন ২০১৯, শনিবার, ০৬:৩৩:০৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৬ মন্তব্য

 

খুঁজে-পেতে মুক্তো-মানিক, সমুদ্দুরে নেমেছি
ডুবুরীর বেশে, শুদ্ধতার মাঝে তুলে নেব, যতটা পারি;
বা না-পারি।

নৈঃশব্দের আতুর ক্রন্দনে বুকের মাঝে শুনতে পাই
দিকহারা হরিণ-শাবকের ক্ষুরধ্বনী,
বৈকল্যের রাগ-অনুরাগ হাতছানি দেয়
লোভাতুর স্বপ্ন দেখায়, গহিন-গভীর রাতের-দিনে;

হাঁসফাঁস ডুবুরি ভুস করে ভেসে ওঠে
সমুদ্র-সঙ্গম-স্নান শেষে রিক্ত-হাতে
সুপ্তি মেলেনি!

নীলের-সৈকত-সমুদ্দুর, বালিয়াড়ির সমুদ্র-গন্ধি বুনো বাতাস
ঝর্ণার দুরন্ত গান, জুই-চামেলি-হাস্নু সবই আছে, ছিল যেমন;

অলীক-মৌতাত-স্বর্গটি হারিয়েছে শুধু কুহকের ডাক শুনে শুনে;
ক্লান্তির-পালক ঝেরে-মুছে ফের সমুদ্দুরে যাব
ঐশ্বর্যের শঙ্খধ্বনি বাজিয়ে, জিপসি মেয়ের বশীকরণ মন্ত্র জপে।

৫৭৭জন ৪৩৮জন
14 Shares

২৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য