নির্মমতার ধূসর

প্রদীপ চক্রবর্তী ১ জুন ২০১৯, শনিবার, ০৪:১৬:৪২অপরাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য


নির্মমতার ধূসরে চেয়েছ যারে দিবস রজনী, বহু প্রতিক্ষার পর তার জন্য লেখা হবে একখানা চিঠি।
ভালোবাসার নীলচে রঙ ঘোমটা পরেছে অভিমানে,
চোখে কাজল ললাটে সিঁদুর তুমি বিদ্রোহ ব্যারিকেডে।

সমুদ্রসম করুণা আর আলস্য পাহাড়ের ঝর্ণা,
এ যেন উদাসহীন বিদ্রোহের নির্মমতার অশ্রুকণা।
নীলচে খামের গায়ে শুদ্ধিতার প্রলেপ অপরাজিতা,
করুণা হলে লেখ চিঠি আমার প্রতি তুমি জয়িতা।

আমি তৃণমূল হতে গড়ে উঠেছি রাজপথের সেনানী,
সাজিয়ে দিয়েছ আমায় বীর বেশে তুমি দেবী।
বিচ্ছেদের সন্ধি খোঁজ রোজ তুমি ট্রাইমলাইনে,
আমার লেখা চিঠি উপড়ে দাও করুণার অভিমানে।

তুমি ব্যস্ততার বয়কটে রাখো আমায় ভুলের মোহে,
আমি প্রতিনিয়ত ডুবে থাকি তোমার শূন্যতার ঘোরে।
আমি সম্রাট জুলিয়াস সিজারের বিশ্বস্ত বিপ্লবী,
শতরূপি ষোড়শী তোমার কাছে আজ আমি বিদ্রোহী।

অভিঘাতের চিলেকোঠার অজানারা ভ্রমিত নয়,
পাহাড়সম সমুদ্র বক্ষে আমার করুণ স্মৃতি নিস্তব্ধ রয়।
নির্মমতার ধূসরে বৃষ্টিস্নাত শহরে তোমার ছবি আঁকি,
প্রেমযমুনার তীরে দুচোখ ভরে দেখি তোমার দু আঁখি।

বলেছিলে আগলে রাখিস পাশে থাকিস জন্মবর,
মন থেকে চাওনা তুমি আমায় তাই রাখো বহুদূর।
ভরসার হাতটি ধরেছো তুমি অন্য কারো প্রতি,
দিনশেষে তুমি আমায় দাও ইতি।

১৯৩জন ৬৫জন
17 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ