কৃষাণ

সঞ্জয় মালাকার ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ০৩:০৪:২১পূর্বাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য

রাখাল ছেলে,,

ঐ যে দেখছিস সবুজ গাঁয়ে,সবুজ ভরা মাঠ,
আবাদি জমি রঙিন ফসল-নেই ছেলেটার লাজ
ঐ যে দেখছিস সবুজ গাঁয়ে-সবুজ ভরা মাঠ,,
দীঘির জলে সাঁতার কাটা-সেই ছেলেটার স্বভাব!
নদী,,
ঐ খানেতে ছিল আমার সেই চপলা নদী
দুই ধারেতে কাশ বন রোদের ঝিলিমিলি,
কতো শহর ঘুরে এলাম,
পাইনি তো সবুজ গাঁয়ের ছবি ?
পানকৌড়ি আর মাছরঙ্গাদের,দৌরাত্ম্যের ভিরে
কতো নাও যে ভিড়িয়ে গেলো,মনুনদীর তীরে,
পানসি ছেলের জেলে নৌকা,কেয়ার মহাজনি…
সূর বাঁধতো বোন হাসেরে-ছলাৎ ছলাৎ ধ্বণী?
রোদ মাখাসেই ক্লান্ত দিনে গাঙচিলিকের খেলা….
জেলের জারে পড়তো ধরা রুইকাতলার দল!
কিষাণ,,

কিষাণ বৌয়ের নূপুর বাজে,নিত্য করে খোকা,
ফাগুন মাসের দুপুর হাসে,রোদ বাতাসের খেলা,
অগ্রহায়ণে সোনার ফসল, মন মাথালো গন্ধে
শস্য সফলা নদীর ধারে,ক্লান্ত দুপুর হাসে!
ঐ যে দেখছিস সবুজ গাঁয়ে-রাখল চড়ায় গোরু
কৃষক চালায় লাঙল ফলা,হাসে কৃষক বধূ,
মায়ের হাতের রান্না ভালো, সুস্বাদেতে মাখা
সবুজ গায়ে সব আনন্দ,শহর যেনো ফাঁকা!!

সঞ্জয় মালাকার/

৫৭৯জন ৪৫৬জন
19 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য