এক সমুদ্র জলের মধ্যে,

আমি একফোঁটা শিশিরবিন্দু।

সমুদ্রের অজস্র জলে পড়েই,

এক নিমিষেই নাই হয়ে যায় আমার অস্তিত্ব।

তবুও দেখো কি ভীষণ গর্ব!

ওই যে গভীর অতলান্তিক সমুদ্র, ওটা আমার।

কেনো আমার নয় বলো?

রোজ প্রাতে টুক করে পড়ে মিশে যাই সমুদ্রের বুকে

আর তাতেই তৃষ্ণা মিটে সমুদ্রের।

তবে! সে তো আমারই

আমার জন্যই তৃষিত হৃদয় কানায় কানায় পূর্ণ হয়

আমার জন্যই চৈত্রের খরোতাপে ফেটে চৌচির হয় না বুক

এ কি কম গর্বের বলো!

এ কি কম অহংকারের!

এতো সব দাবি-দাওয়া, এ গুলো নেহাতই মূর্খতা

আসল কথা তো এটাই আমি সমুদ্রের কেউ না

যখন সাইক্লোন আসে তখন আমি দূরে থাকি

যখন জলোচ্ছ্বাসে ভাসে তখন আমি দূরে থাকি

যখন কাল-নাগিনীর বিষাক্ত ছোবলে নীল হয় তখনও আমি দূরে

আমি তার কষ্ট পক্ষে নেই, ছিলাম না কোনো কালে

তবে কি করে বলতে পারি ওই গভীর অতলান্তিক সমুদ্র সে আমার, আমারই?

১৭২জন ৪৪জন
0 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য