নৃ মাসুদ রানা

মোঃ মাসুদ রানা। ১৯৯৫ সালের ১৪ এপ্রিল সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলার এনায়েতপুর থানার চৌবাড়ীয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতা মোঃ লাল মিয়া, মাতা মোছাঃ জাহানারা খাতুন। পরিবারের খুব কাছের আত্মীয় স্বজন তাকে জাহাঙ্গীর নামেও ডাকেন। জীবনের প্রথম স্কুল "চৌবাড়ীয়া টোকের পাড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পাশ করে স্থল পাকড়াশী ইন্সটিটিউশনে ভর্তি হন। পরবর্তীতে বাড়ির পাশে নতুন স্কুল প্রতিষ্ঠিত হলে ৮ম শ্রেণীতে সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক পাশ করে ভর্তি হয় খামারগ্রাম মহাবিদ্যালয়ে। ২০১২ সালে ব্যাবসায় শিক্ষা শাখা থেকে পাশ এইচএসসি করেন। তারপর মানবিক শাখায় বেলকুচি ডিগ্রী কলেজে "ডিগ্রী পাশ কোর্সে" ভর্তি হন। তাছাড়া যৌথ সম্পাদনায় "মুক্তচিন্তা" ও “ কবিতা গ্রন্থ "দন্ত্য 'স' প্রকাশনী" থেকে প্রকাশ পায় ২০১৮ সালে। এছাড়া ২০১৯ সালের একুশে বই মেলায় প্রকাশ পেয়েছে যৌথ কবিতা গ্রন্থ "নীল পদ্ম "। আগামী অণুগল্প গ্রন্থঃ ডাকবাক্স (বইমেলা ২০২০)।
কবিতা গ্রন্থঃ কবিতার দীর্ঘশ্বাস কবিতার শোকসভা

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ১ মাস ৬ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ৩১টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ৩৪৪টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৫৫২টি

হিমুর হাতে কাফনের কাপড়

নৃ মাসুদ রানা ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৮:৫৩পূর্বাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
খুবই ভোরে হিমুর ফোন বেজে উঠলো। আচমকাই ঘুম ভেঙে গেলো আমার। তখনও বিছানায় বিভোর হয়ে ঘুমাচ্ছে হিমু। হিমুকে ডাকবো ডাকবো করছি ইতিমধ্যেই রিংটোন বন্ধ হয়ে গেলো। আমি আবার ঘুমানোর দাওয়াতে যাবো যাবো করছি ঠিক তখনই আবার হিমুর ফোন বেজে উঠলো। এবার হিমুকে না ডেকে সরাসরি আমি নিজেই ফোন রিসিভ করলাম। আমি পুরোপুরি শুকনো পাতার মতো [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে নীল রুমাল

নৃ মাসুদ রানা ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১১:৩৫:১৬পূর্বাহ্ন গল্প ২০ মন্তব্য
ঘুমাতে পারছি না কোনমতে। একটু পরপর জেগে উঠছি। একরকম বিস্ময়কর নেশার পেশায় জড়িত হয়নি কোনদিন। কিন্তু আজ হঠাৎ করে কেন যে দীর্ঘ রাতটাকে পাহারা দিতে বসেছি তারও কোন সুনির্দিষ্ট কারণ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। শুনেছি প্রেমে ছ্যাঁকা খেলে প্রেমিকদের ঘুম আসে না। প্রেমিকেরা সারারাত বাতি জ্বালিয়ে বিড়ির ধোঁয়া আর ছাইপাঁশে রাত্রিযাপন করে। কিন্তু আমিতো সবেমাত্র প্রেমের [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে চিরকুট

নৃ মাসুদ রানা ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১১:২৬:২২পূর্বাহ্ন গল্প ২২ মন্তব্য
হিমু চিরকুট লিখছে… প্রিয় প্রিয়তমেষু রুপা, তোমার অতশত রূপ দেখে আমি বিমুগ্ধ। তোমার গাঢ় লাল লিপস্টিকের ভিড়ের নেশায় মত্ত। কি যে রূপের সুধা! কি যে ঠোঁটের উষ্ণতার রস, আহা! দেখে দেখে বুকের ভেতরটায় তৃষ্ণার চড় ভেসে উঠেছে। আর সে তৃষ্ণায় জব্দ হয়ে ডুবে ভাসি রোজরোজ। তোমার ফর্সা দু গালের নরম মাংসপেশিতে আমার ঠোঁটের উষ্ণ আবরণ [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে রেশমি চুড়ি

নৃ মাসুদ রানা ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ১১:০৬:৪৯পূর্বাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
  হিমু বেশ কয়েকদিন হলো গ্রামের বাড়ি গিয়েছে। আর ধুলিমাখা শহরটার পুরোটাই আমার কাছে অতৃপ্ত লাগছে। চায়ের টোংঘর থেকে শুরু করে বিলাসী রেস্টুরেন্টের খাবার আরও বেশি অসহ্যকর লাগছে। সময়গুলো যেন ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কাতরাচ্ছে। আর দিনের বাকি অংশটুকু সামরিক চিকিৎসা নিতে ব্যস্ত। গতরাতে হিমু কল দিয়েছিল। বললো – পরশু ঢাকায় চলে আসবে। অবশ্য তখন মনটা স্বাচ্ছন্দ্যে [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে হলুদ খাম

নৃ মাসুদ রানা ১৭ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার, ১০:৫৫:১৭পূর্বাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
হিমুর ফোন বাজছে। দু-তিনবার বেজে উঠলো। আবার বাজতে শুরু করেছে। বাথরুমের কাছে গিয়ে বললাম হিমু, তোর ফোন বাজছে। হিমু প্রতিত্তোরে বললো – রিসিভ করে কথা বল। ফোন রিসিভ করতেই ওপাশ থেকে সুশ্রী কন্ঠের আওয়াজ ভেসে আসলো। এতো সুন্দর নরম কন্ঠস্বরের নিরুত্তাপ আহবানে কিছুটা সময় স্তব্ধ বনে বন্য প্রাণীর ছবি হয়ে দাঁড়িয়ে রইলাম। কি বলবো বুঝে [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে একজোড়া নুপুর

নৃ মাসুদ রানা ১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ১১:১১:৪৫পূর্বাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
  ক্লাস চলছিলো। উত্তম স্যারের ক্লাস। স্যার মানুষ হিসেবেও যেমন উত্তম শিক্ষক হিসেবেও ঠিকই তেমন। সত্যি ওনার মতো যান্ত্রিক মানুষ আমি আর দেখিনি। তিনি যেমন গল্প করতে পটু তেমনি আবার জোকস বলে বলে হাসাতেও পটু। অতশত গুণ থাকা সত্বেও তিনি কিন্তু তার পেশার একটুকুও অবমূল্যায়ন করে না।  ফোন বেজে উঠলো। একসাথে ভাইব্রেশন আর রিংটোন। উপস্থিত [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে কদম্বফুল

নৃ মাসুদ রানা ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৯:৩৭:৩৮পূর্বাহ্ন গল্প ১২ মন্তব্য
ঘুম থেকে তখনো উঠিনি। কিন্তু হঠাৎ আচমকা ডাকে ঘুম ভেঙে যায়। দুচোখ মিলে ধরতেই দেখি হিমু হলুদ পাঞ্জাবি পরে দাঁড়িয়ে আছে। বুকটা ধরফর করে উঠলো। অবশ্য হিমু বুঝতে পেরে কাছে এসে গায়ে হাত বুলিয়ে বললো – আমি হিমু। বোতলের পানি চোখেমুখে ছিটিয়ে দিলো। কিছুটা সময় পর স্বাভাবিক হয়েছিলাম। হিমু বললো – ১০০ টাকা হবে? আমি [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে হলুদ ফুল

নৃ মাসুদ রানা ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০৯:৩৫:৫৮পূর্বাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
পুরো রুমে আতরের আত্মারা কেবলই ভেসে ভেসে খেলা করছে। নিশ্বাসে বুকের ভেতরের নাড়িভুড়ির গন্ধগুলোও নিমেষেই নিঃশেষ হয়ে গেছে। পেট ফুলে ফেঁপে কথার তালে তালে শ্বাসপ্রশ্বাস সংগ্রহশালার যে ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে তাতেও সুগন্ধি আতরের সুগন্ধ বিদ্যমান। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে গুনগুনিয়ে গান গেয়ে গেয়ে মাথায় চিরুনি করছে। আর আড়ালে আবডালে নিজের চোখে চোখ রেখে মুচকি হাসি হাসছে। আর [ বিস্তারিত ]

হিমুর হাতে রংপেন্সিল

নৃ মাসুদ রানা ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০৯:১৫:৫৫পূর্বাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
  উমা! গাল দুটো সদ্য তেলে ভাজা লুচির মতো ফুলে ফেঁপে উঠেছে। বাম গালে মিষ্টি হাসির টোল পরেছে। সেকি মিষ্টি মিষ্টি হাসি। যেন সুঁইয়ের ছোঁয়া পেলেই রসের ঠসঠস শব্দে বালতি ভরে যাবে। হিমুকে আগে কখনো এতো খুশি হতে দেখিনি। এই প্রথম সে মেয়েলি ব্রতগুলির সব-কটি খাঁটি করে শুধু মুচকি মুচকি হাসছে। হলুদ পাঞ্জাবি চুনট-করা ধুতির [ বিস্তারিত ]

প্রিয়াত্মা

নৃ মাসুদ রানা ১২ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ০৮:৪৩:৩৫পূর্বাহ্ন গল্প ১৫ মন্তব্য
সত্যি! সে কাঁদছিল। চোখের কোণে বেয়ে বেয়ে অশ্রুসিক্তগুলো এতো আবেগে টলমল করছিলো যে কখনো বারান্দার টিনের চালেও বৃষ্টি ফোঁটার এমন বর্ষণ দেখিনি। ঢোক গিলে গিলে উদাস উদাস চেয়ে চেয়ে প্রেমের গন্ধ এতো মাখামাখি করে ছড়াচ্ছিলো যে প্রেমে না পড়েও উপায় নেই। আর অবচেতনে ওড়নায় এতো গিটঠু দিচ্ছিল যে আজীবন এভাবেই ঠোঁটের ডগায়, নিশ্বাসের স্রোতে, চোখের [ বিস্তারিত ]

চিহ্ন

নৃ মাসুদ রানা ১০ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার, ০৪:০৭:৪৫অপরাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
বাঁশি বাজছে। হেমন্তের গাঙচিলে ভর করে নিরালায়। শকুন পক্ষীরাজ মাঝরাত অবধি তখনো ডাকে। হুঁশ বেহুঁশ তালবাহানাগুলো রঙিন কাগজ ছাউনির দোকানগুলোয় ঘুরে ঘুরে বন্দী হয় আমার জানালার করিডরে। আর আমি! চাঁদটাকে প্রদীপ ভেবে ভাসতে থাকি চাঁদ, তারা আর আকাশের ক্যানভাসে। যেন আমরা এক কাপড়ে, এক ছাউনির ছায়াতলে নির্বাচিত রাত্রিযাপন করছি। মন ঠাঁইঠাঁই রোগের রোগী। চিকিৎসক বাঁশিওয়ালা [ বিস্তারিত ]

প্রতিমুখ

নৃ মাসুদ রানা ৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ০৪:১৯:৪২অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
আহারে!বিমুগ্ধ গন্ধ মেখে দাঁড়িয়ে থাকা,নদীর স্রোতের ঠোঁটে।যে স্রোতে প্রেমের রক্ত ভেসে ভেসে ঢেউ খেলে। নিষ্পলক চোখে চোখ, চোখাচোখি,আঁকিবুঁকি আঙুলে আঙুলের ছোবল।দিশেহারা ছন্নছাড়া দেহপিঞ্জরহৃৎপিণ্ড হাউমাউ কাঁদে বেলা অবেলায়। ছবিঃ সংগৃহীত    

প্রতিদ্বন্দ্বী

নৃ মাসুদ রানা ৮ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৩:১৫:০৮অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
  বিয়ের পর এই প্রথম অতলদা ভাবিকে নিয়ে বাড়িতে এসেছে। বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে। সেইরকম বৃষ্টি। টিনের চালে বৃষ্টির শব্দ খুবই ভালো লাগছিলো। এমন সময়ে ভাবিকে ইনিয়েবিনিয়ে খুব কষ্টে রাজি করালাম। ততক্ষণে রান্নাঘর থেকে খিচুড়ি আর মাংসের ঘ্রাণ এসে জিভটা নড়বড়ে করে দিয়েছে। কিন্তু বারবার শত চেষ্টা করেও কোন লাভ হলোনা। কেন জানি আজ ক্ষুধাও মন্দা। [ বিস্তারিত ]

রূপবতী

নৃ মাসুদ রানা ৭ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০২:৫৪:০৭অপরাহ্ন গল্প ২০ মন্তব্য
বড় ভাই গোপনে বিয়ে করার কয়েকদিন পরে গ্রাম থেকে ছোট ভাই শহরে ঘুরতে এসেছে। আর বড় ভাইয়ের কাছে শুধু আবদার করছে এখানে যাবো সেখানে যাবো। আরও কতো কি! ঠিক আছে। তোর যেখানে ইচ্ছে যাস। তবে তোকে শুধু ছোট্ট একটা কাজ করে দিতে হবে। অতনুঃ শোন, আমি এখানে ঘুরতে এসেছি। তোর গোলামি করতে না। অতলঃ আরে! [ বিস্তারিত ]

প্রেমিক

নৃ মাসুদ রানা ৬ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০১:০২:২৩অপরাহ্ন গল্প ২২ মন্তব্য
  জরজর করে কাঁদতে লাগলো অচিন্ত্য। কান্নার শব্দে রান্নাঘর থেকে বুয়া বেরিয়ে এসে বললো – মামা, কাঁদছেন কেন? কি হয়েছে? কিন্তু কিছুতেই অচিন্ত্যের কান্না থামছে না। আবার কোন কথাও বলছে না। শুধু খাবারের দিকে একনাগাড়ে তাকিয়ে রয়েছে। বুয়া গিয়ে অতনুকে ব্যাপারটা খুলে বললো। অতনু সাথে সাথে রুম থেকে বেরিয়ে এসে বললো – কাঁদছিস কেন? কি [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য