হেমন্তের আগমনে যমুনাতীর ধরে আজকাল শরতের কাশফুল দেখা যায়না। কাশফুল অনেকটা মৃত্তিকাভেদে নিমজ্জিত। শহর জুড়ে শীতের রাজত্ব আর ভেজা ফুলের গন্ধে মাতাল প্রজাপতির দলছুট।
সকাল থেকে বৃষ্টি নামছে কার্নিশ বেয়ে। রোদের আভাস নেই। হেমন্তের এই ভরা যৌবনে গঙ্গা,যমুনা দুই’ই স্রোতস্বিনী নয়। তবুও অনেকটা বহমান স্রোত।
ঋতুরাজ বসন্তের ন্যায় হেমন্ত আমার বেশ প্রিয়।
মাঠেঘাটে সোনালি ধান আর কাকভেজা সবুজাভ শহর। অমানিশা রাত্রির কোলাহলে পাখির কলরবে সকাল নেমেছে। বৃষ্টিভেজা রৌদ্রতেজে পিব পিয়াসা আর অমিয় সুরের সুধায় তোমায় নিয়ে এক অনন্য পরিবেশে কাক ভেজা সকাল।
নীরা,তুমি তো নিশ্চয় জানো আমি অনেকটা প্রকৃতি প্রেমী। যত মান অভিমান আছে সকলকিছু ভুলে যাই প্রকৃতির স্পর্শতায়। আর এ প্রকৃতি জুড়ে আমার এক নির্যাস ভালোবাসা।
ইদানিং তোমায় নিয়ে বহমান গঙ্গায় যাওয়া হয় নি।
হেমন্তের কুয়াশা ভেজা শহরে ঘনঘন বৃষ্টি আমার ভালো লাগেনা। জানিনা বর্ষার ন্যায় এমন ঘনঘন বৃষ্টি কতদিন থাকবে। সকাল থেকে বাইরে বের হতে পারছি না।
জানো,নীরা তুমি কাছে এলে তোমার বুকে মাথা রেখে চুলের খোঁপায় বাঁধানো রজনীগন্ধার গন্ধ নেব।
তোমার এই বেবাক শহরে মাতাল হওয়া যাযাবর হবো আমি। তবুও ভিজতে চাই তোমায় নিয়ে এই বৃষ্টিভেজা শহরে গাত্র অনায়াসে। মনোরম পরিবেশে লাগবে সেথায় ভালোবাসার প্রাণের ছোঁয়া।
জানো নীরা,
শরৎ কাননে ফুটে যাওয়া শিউলি এখন আর বেশি করে প্রস্ফুটিত হয় না। তাই আজকাল দুজনের শিউলি তলায় গিয়ে বসা হয় না।
বাগানে কিছু গোলাপ,রজনীগন্ধা,জবা শিউলি ছাড়া অন্যকোন ফুল নেই। শহর জুড়ে তেমন একটা সুশোভিত ফুলের ঘ্রাণ আসেনা।
এই শহরে আমাদের আজও কত না পাওয়া থেকেই থাকে।
সময়ের ক্রান্তিলগ্নে আকাশের মেঘ গুলো ক্রমেই সরে যাচ্ছে।বৃষ্টিভেজা দুপুর শেষে অস্তগামী সূর্যাস্ত পেরিয়ে গোধূলী।
আকাশের দিগন্ত জুড়ে একঝাঁক শালিকের উড়ে বেড়ানো দৃশ্য আজকাল দেখতে পাওয়া যায়না।
জানো নীরা, ইদানিং তোমাকে নিয়ে সমুদ্রপারে গিয়ে স্নিগ্ধ হিমেল পরশে নির্যাস হাওয়া অনুভব করা হয় নি।

জানো নীরা,
কখনো আমাদের ভালোবাসার কমতি ছিলোনা। অনুভব আর স্মৃতি জুড়ে আমাদের ভালোবাসা আজও অটুট।
..

৯৭জন ৫জন
10 Shares

১৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য