আমরা সভ্যতা বানিয়েছি আধুনিকীকরণ কামনার প্রতিফলনস্বরুপ। যখন যেভাবে প্রয়োজন সেটিকে রঙের প্রলেপনীয় তুলিতে রাঙিয়ে তুলেছি। সভ্যতার নতুন ইমারত নির্মাণ করেছি কিন্তু ভুল করেও পুরোনোকে আঁকড়ে ধরে থাকার বাসনাকে লালন করিনি।

সাজানো সভ্যতায় আমাদের বাসনা একসময় পূর্ণতালাভ করেছে; ধীরেধীরে সেই রঙের প্রলেপও একদিন ফিকে হয়ে গিয়েছে। আসলে সভ্যতাগুলোর বিলুপ্তির পিছনে রয়েছে মানবের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই।

নিজেদের অস্তিত্বকে বিকেন্দ্রীকরণ করার আদিম প্রবৃত্তি আমাদেরকে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ঐ সভ্যতায় বিচরণ করিয়েছে। এরপরে আবারো নতুন সভ্য সমাজ সাজিয়েছি যুগের আবর্তে নিজেদের মনোমতো করে।

ঠিক এই জায়গাতেই আমরা আমাদের আদিমসত্ত্বাগুলোকে দমন করতে পারিনি বা করতে চাইনি। সভ্যতার ভাঙ্গাগড়ার অমোঘ খেলায় মেতে আছি সকলেই। আর এভাবেই নিজেদেরকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে আমরা নিজেদের পরিচয় করিয়েছি সভ্যতা বিকাশের ধারক হিসেবে।

সভ্যতা বিকাশের ধারায় প্রকৃতি তার নিজস্ব গতিপথকে সচল রাখার ব্যত্যয়ে সেই ক্ষমতা হয়তো আমাদের দেননি। একদিন বর্তমান সভ্যতাও ধ্বংস হয়ে যাবে আমাদেরই কারনে। নিয়মের বেড়াজালে আবদ্ধ আমরা আবারো গড়ে তুলবো নতুন সভ্যতা।

(তৃতীয় পর্বে সমাপ্ত…)

সভ্যতায় অস্তিত্বের লড়াইয়ে মানুষ (প্রথম পর্ব)

২৩৭জন ২৩৭জন
0 Shares

৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ