মাহবুবুল আলমের গুচ্ছকবিতা

মাহবুবুল আলম ১ আগস্ট ২০২০, শনিবার, ০৯:০৯:৩৯অপরাহ্ন কবিতা ১১ মন্তব্য

১.

তবু অপেক্ষায় থেকো ||

তুমি অপেক্ষায় থেকো
যদি কোনোদিন এ- গ্রহণকাল কেটে যায়;
তবে সূর্যস্নান থেকে শুরু করে, জ্যোৎস্নার
বৃষ্টিতে ভিজে হেঁটে যাবো অরণ্যের পথে,
তারপর সেখানে মায়াবৃক্ষের তলে
দাঁড়িয়ে তোমায় বুকে নিয়ে, নিষ্কাম
পবিত্র ভালোবাসার বৃষ্টিজলে-
দহনকালের সব আগুন নিভিয়ে দেবো।

তবু বলি অপেক্ষায় থেকো
যদি আর না ফিরি তবু অপেক্ষায় থেকে
তোমার অধরা মানুষটিকে জানিও প্রণয়
মাঝে মাঝে অই নিরাকারের প্রতি
গভীর মৌনতায় প্রার্থনা করে যেও
তোমার প্রিয় সেই মানুষটি যেন আবার
পুরনো জীবন ফিরে পায়, শ্রাবণের
বৃষ্টিস্নাত ভরা জ্যোৎস্নার মতো।

২.

স্বাধীনতার মানে

স্বাধীনতার মানে, সবাই কী অার জানে
স্বাধীনতা, মুক্ত অাকাশ মুক্ত বাতাস
পাখির ডানা মেলা, স্বাধীনভাবে খেলা
করা মুক্ত উঠোন জুড়ে, ইচ্ছে মতো
যায় ওড়া যায়, সূর্য ওঠা ভোরে।

স্বাধীনতার মানে কয়জনই বা জানে
স্বাধীনতা অবাধ সাঁতার, নদীর এপার ওপার
বুক ফুলিয়ে রাস্তা চলা, মনের কথা বলা
গলা ছেড়ে গান গাওয়া, ইচ্ছে মতো ঘোরা
ঝড়ের সাথে পাল্লা দিয়ে, জোর কদমে হাটা।

স্বাধীনতার মানে, সকলে কী জানে
স্বাধীনতা মানে নয়তো, স্বেচ্ছাচারী হওয়া
মুক্তমানব নয়তো কোনো, শৃংখলাহীন প্রাণী
মূল্যবোধের অাচার মেনে, একই সাথে চলা
পরমতসহিষ্ণুতায়, সঠিক জীবন গড়া।

৩.

আমরা যে তার হাতের পুতুল

আমরা এখন কালের পুতুল, যেমনি নাচায় নাচি
তার ইচ্ছাতে এই সময়ে, মরি এবং বাঁচি
আমরা সবাই এই সময়ের, পুতুল হয়ে আছি।

এক এক করে পেরিয়ে গেল, বেশ কয়েকটি মাস
এরই মাঝে ঘটে গেল কত সর্বনাশ
কোভিড দানব বানিয়ে দিল, লক্ষ লক্ষ লাশ।

সেই এখন দাবড়ে বেড়ায়, সকল দেশ ও বিশ্ব
দেশে দেশে কত মানুষ, হয়ে গেছে নিঃস্ব
বর্তমানকাল হয়ে আছে, কোভিড-১৯ শিষ্য।

বিধাতাও গোস্বা করে, মুখ ফিরিয়ে আছে
তাঁর ইশারায় কোভিড এখন নাচে
এমন হলে এ মখলুকাত কেমন করে বাঁচে।

৪.

সে এক অচিন পাখি ||

ভোরের আলো এখনো খোলেনি চোখ
আলো আঁধারীর লুকোচুরি খেলায়;
সঙ্গী হয়েছে কত পাখি, যার যার সুরে
গেয়ে যায় গান, আমার জানালায়ও
মনোহর এক অচিন পাখি, হঠাৎ এসে
নতুন ভোরের গান শুনিয়ে যায়।

৮৯জন ৭জন
0 Shares

১১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ