মধ্য রাতে মেঘের ছায়া

শিরিন হক ১৪ জুলাই ২০১৯, রবিবার, ১১:৪২:৫১অপরাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য

অধরা- যাবেন?
অমিত- কোথায়?
অধরা- ছাদে।
অমিত- এত রাতে, চলেন। আবৃত্তি শুনাবেন আপনি একটা। আমি মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে আপনার আবৃত্তি শুনবো।
অধরা- ভালো যদি না হয়।
অমিত- তবুও শুনবো। রাত আর কবিতা  দুটোই আমার প্রিয়।
অধরা- চা খাবেন?
অমিত- না! কবিতা খেতে চাই। সিগারেট খেতে পারি?
অধরা- হম! কি করে বুঝলেন আমি কবিতা পারবো।
অমিত- আপনার কণ্ঠ বলে দিচ্ছে আপনি কবিতা পারবেন।
অধরা- একটু বেশী বলছেন।
অমিত- কী জানি! যার কণ্ঠ শুনেছি সে আবৃত্তি পারে।
অধরা- আকাশটা কী মেঘলা। চাঁদ ঢাকা পড়েছে মেঘের আড়ালে।
অমিত- আজ তো সারাদিন বৃষ্টি ছিলো।
অধরা- এখন যদি বৃষ্টি নামে?
অমিত- নামুক
অধরা- কখনো বৃষ্টি রাতে ভিজেছেন?
অমিত- ইচ্ছে গুলো অপূর্ণ রয়ে গেছে বহু কাল।
অধরা- যদি জ্বর আসে?
অমিত- আসুক। আজ বৃষ্টিতে ভেজার বড্ড লোভ হচ্ছে। আপনার অসুবিধে আছে ভিজতে?
অধরা- একলা চলতে শিখে গেছি বহুদিন হয়। জ্বরটর তেমন ঘেসতে পারেনা। তবুও সমাজের দৃষ্টির ধার এত তীক্ষ্ণ, আপনাকে আমাকে একসাথে ভিজতে দেখলে মনে করবে তাবৎ জগতের পাপ করেছি আমরা দুজন।
অমিত- কী আসে যায়। ছাদ থেকে নেমে যাবো তাবৎ সমাজের দৃষ্টির ভয়ে?
অধরা- থোরাই কেয়ার। আমি জানি আমি পাপি নই।
অমিত- রাতের এই মেঘলা আকাশ শীতল হাওয়া নিস্তব্ধতার আপনার সান্নিধ্য এ এক অন্যরকম অনুভুতি।
প্রাণ খুলে নিশ্বাস নেয়া হয় না। আমার ইচ্ছের ডানা ঝাপটায় আহত পাখির মতো।
অধরা- কেমন যেনো হেয়ালী করে বলেন সব কিছু। কোথায় যেনো শূন্যতা। কখনো নিজের কথা সুধাননি আমায়, বন্ধু না হই শত্রু তো নই।
অমিত- কেউ কী আছে ইচ্ছে গুলো মুক্ত করে দেয়ার মতো?
অধরা- আকাশ ডাকছে বৃষ্টি হবে এখুনি চলেন যাই।
অমিত- চলেন।

২১৯জন ৩৯জন
27 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য