তোমাকে না দ্যাখার শোকে

কান্ত রায় ৩ ডিসেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১০:৫১:৩৭অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

লাল ফর্দ অনুযায়ী,গাঙ্গ রাণীর মতোন;

বিপন্না তুমি আজকাল—

শুধু দক্ষিণবঙ্গে নয়,

তোমায় খোয়ানোর আশঙ্কায়— নকশাল আন্দোলনের আঁখর; গিয়ে পড়েছে জাজিমবিশিষ্ট বিছানায়।

বিছানার যে পাশটায়—শাদা পাঁচিল গেঁথে,

প্রতিরোধ কোরা হয়েছে;

নির্বাসনের পর—সেথায় এক ঐশ্বরিক উত্তর

আমাকে কারারুদ্ধ কোরে রেখেছে— এগারোবার!

তুমি চলে যাওয়ার পশ্চাতে, হাতের রেখায় ফাটল ধরেছে;

চর্তুভূজ চিহ্ন স্পষ্ট থাকা স্বত্তেও কাজ কোরেনি—

কর্ণের রক্ষাকবচ।

তোমার ঠোঁটের নিচের—

ছোট্ট কালো তিলটা;

নিজ মেরুরেখার পশ্চিম থেকে পূর্বে ঘুরছে তো ঘুরছে।

আমি একদৃষ্টে চেয়ে দ্যাখছি তো দ্যাখছি।

চরম উৎকন্ঠায়-

ক্রোড়ের ভেতরটায়;সম্মুখ সমরে কর্তৃত্ব নেওয়া— নেতাজী,প্রকাশ্যে বৈরিতার পথ বেছে নিয়েছেন!

এ সংঘাত থামাতে গিয়ে—

থেমে যাই আমি,নিষ্ক্রিয় হয় জাভাদেশীয় গন্ডার।

দিনের অন্ধকারে স্মৃতির খুঁটিতে উলটো হয়ে ঝুলে থাকি হালফিল—

একাধারে দৃষ্টিশক্তি কৃশতনু হতে চলেছে;

চলার সময় নক্তচরের কানের শব্দোত্তর হিল্লোলিত করান শুনে মার্গ খুঁজি!

তৃষ্ণার্ত কাকের মতোন , প্লাষ্টিকের সংস্রবে পাথর ফেলতে ফেলতে মাঙ্গলিক দোষ করি পান।

তোমাকে না দ্যাখার শোকে;সিনায় সিনা টান লেগে উঠে আসে চক্রবাল আয়ত বালুরাশি,

উঁচু কুঁজওয়ালা ভারবাহী পশু’র পিঠে চড়ে বেড়ানো বেদুইন লাথি মারে নিয়তির খাতায়—

গোল রন্ধ্র রটনা কোরে জলশূণ্য-মানবহীন সাহারা মরুভূমি!

জোতদার আশ্বিন মাসের শেষ দিন অবধি, ভূস্বামীদের খাজনা-নজরানা শোধে ব্যস্ত সমস্ত—

যেখানে চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত বিলুপ্ত হওয়ার আগেই বিলুপ্ত হয়েছো তুমি।

নিরেট অলকানন্দাতে ঝাপ দিতে গিয়ে, নিঁখোজ হওয়া মন্দাকিনী বেঁচে থাকে।

 

১৮৩জন ৩১জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ