সোনালি দূরবীনে

সৌবর্ণ বাঁধন ২১ জুলাই ২০২২, বৃহস্পতিবার, ০৮:০০:৩২অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

বিশ্বযুদ্ধের মতো গাছদের আগ্রাসী ছায়া,
করোটির গভীরে এনেছিল পাখির চোখের মায়া,
মৃদু ধোঁয়া মেখে বুকের ভিতর বসে একটি ঘর,
ছেড়ে যাওয়া ট্রেইন দেখেছিল বিক্ষুব্ধ দূরবীনে!  
আংগুর লতায় সোনালি প্রেম মজে গিয়ে বনে,
আর্কটিক বলয় জুড়ে নামালো বিধ্বংসী ঝড়,  
অথচ কথা ছিল সিন্ধুঘোটক সাহারার রাতে
বালুতে বিলীন হয়ে হবে নশ্বর!
কংক্রিট ছুঁয়ে মৃদু পায়ে ঝরছে অলকানন্দা,
প্রিয় নদী পাখি হয়ে ঝাঁপ দিল নৈঋত কোণে,
তখন প্রয়াত প্রায় সন্ধ্যা!
লোডশেডিং এর কালে পতঙ্গরা আলো খেকো,
এ শহর নিভে গেলে বাজে অনর্গল পাহাড়ি মঠ,
জেনেছি মহাবিশ্ব আয়তনে হৃদয়ের চেয়ে ছোট,
তবু পাতাবাহারের রঙ ফাঁকি দিয়েছিল তক্ষক!
মিশরীয় সম্রাটের চিঠি পৌঁছালে ক্যাসকেটে,

লাপিজ লাজুলি যত্ন করে রেখো!
প্রতিটি গুপ্তধন অন্ধকারে বেড়ে উঠা ভ্রুণ,  
বুকের গভীর ক্ষতে ক্ষয়ে যায় সমস্ত গুণাগুণ,
সূর্যগ্রহণের কালে অবিশুদ্ধ কম্পমান হৃদপিন্ড,
বের করে রেখেছি সরণি জুড়ে,
আমার হৃদয় পুড়িয়ে পৃথিবী অক্ষত থাক,
সূর্য কখনো পাবেনা বুকে চাঁদের আলোর ছাপ!
গভীর রাতে তবু বাজে সুতীক্ষ্ণ ডামাডোলে,

পঙ্গপালের হাঁকডাক,
আর কত ঢেউ পেলে নদী হবে পূর্ণিমা?
তোমাকে পারবো দিতে স্থির পদ্মের উপমা!
এই ভেবে স্বপ্নের গাড়ি ডুবে গেলো বর্ষায়,
লজ্জাবতীর পাতায় লুকানো খানিকটা জল,
তাই নিয়ে ঠোঁটে পাখিটা এখনো অপেক্ষায়! 

ফটো ক্রেডিট@ নিজস্ব

২৪৮জন ৩০জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ