প্রিয়তমা শুনছো!
সেই ভোর থেকে মধ্যাহ্ন অবধি,
টিনের চালে বৃষ্টি ফোঁটার রিমঝিম বাজনা,
ঈশ্বানী বাতাসের সাঁ সাঁ শব্দ!
আর গুড়ুম গুড়ুম কালো মেঘের ডাক।
ওগো এই বৃষ্টিস্নাত দিনে মনে পরে না কি তোমার,
সেই সে দিনের কথা।
তোমার পেছন পেছন ছুটে চলা’
বারবার চোখেতে চোখ রাখা,
কখনো আবার লজ্জায় চোখ সরিয়ে নেওয়া।
কাছে থেকেও যে ছিল বেশ নিরবতা,
ছিল অল্প সল্প দুষ্টামির প্রবণতা,
ওগো মনে পড়ে না কি সেই স্মৃতি গুলো,
সেদিন যে যাত্রী চাউনির আশপাশে,
একপশলা বৃষ্টিতে ভিজে
তুমি যে দাঁড়িয়ে ছিলে লজ্জাবতীর আবেশে।
আজকের মতো সেদিনও যে ছিল
এই আসা এই যাওয়া বৃষ্টি বর্ষণ,
আর চোখতে চোখ রেখে হয়েছিল
তোমার আমার প্রথম দর্শন।
জানো খুউব ইচ্ছে হচ্ছে আজ!
এক্ষুণি ছুটে যাই তোমার কাছে,
ধরবো বায়না মানবো না কোনো মানা,
কাদাজলে হেঁটে বৃষ্টিতে ভিজবো দু’জনা।
টুপ টুপ করে তোমার মাথার ক্লেশ বেয়ে জল পরা,
ভেজা আঁচলে বাঁধা কোমর”
আর মায়াবী চেহারায় ছল ছল বৃষ্টি ফোঁটার খেলা!
হবে যে আমার নজরবন্দি।
আর একটি মাত্র ছাতা নিয়ে দু’জনার কাড়াকাড়ি,
আগ পিছে চলা নিয়ে হবে একটু আধটু বাড়াবাড়ি,
শ্যামলের বুক ছিঁড়ে তেপান্তরে ছুটাছুটি।
আরো কতো কি!!
ওগো জানি বাস্তবতার মোড়ে
আজ দু’জনে দূর-বহুদূরে,
তাতে কি আর বল যায়।
হাতে রেখে হাত আর গল্প করে
তৃষিত হৃদয়টা পূর্ণতায় ভরে,
এসো বৃষ্টিতে ভিজি কল্পনায়।

২৫৬জন ১১৮জন
3 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য