আমার ভোর–১

শুন্য শুন্যালয় ৩০ জুন ২০১৪, সোমবার, ০২:০৬:২৮অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫১ মন্তব্য

অপেক্ষা সময়ের । আট ঘন্টার এই দিন আমার, মাঝখানে তার আধঘণ্টা ব্রেক। কানে তুলো গুজে দিয়ে ঘন্টা চুরি করতে যাবার মতো ইচ্ছে করে ঘড়িটাকে বন্ধ করে দিই, যেনো বা তাতে থেমে যাবে সময়। সময় থামুক কিংবা নয়, মন থেমে আছে ভোরে ।

দিন শুরুর প্রথম টনিক, বিছানায় শুয়ে চা না পাই, গায়ে কম্বল খানা জড়াতে জড়াতে, পায়ের হোঁচট বাঁচাতে বাঁচাতে ঠিক তো পৌঁছে যাই টি-কাপে। চুমুকে দিনের প্রথম ভোর । ভোর দেখতে কেমন ? ঘুম ঠেলেঠুলে যদি কোনভাবে চলে যাই বারান্দায়, এই যে কাঁটা দিয়ে ওঠা গায়ের লোমে ঠান্ডা নামের দুঃসাহসি কেউ, সেই আমার ভোর । কিচিরমিচির চারপাশে ঘোরাঘুরি, তবু ছুতে গেলেই পালানো, দুস্ট পাখির ছল। পর্দা ছাড়া জানলায় আমাকে নজর থেকে বাচানো কুয়াশার পর্দা, বাতাসে যেন দুলছে । টুপটাপ শিশিরে নতুন গানের লিন্ক, লালচে আলোয় আকাশের সদ্য জন্ম নেয়া। এ গান, নতুন আকাশ সব মিলিয়ে ভোর। কখনো মেঘলা শুরু, ঝগড়া ঝাটির গুরুম গুরুম, বৃষ্টি নামিয়ে বাইরে যাবার বারণ । আজ ভোর হবে স্ক্রিনে। ভোর হবে ঘুমে। ভোর হবে ভোরে।

আট ঘন্টার সেই দিনের গল্প থামিয়ে দিলো ভোর, সেই সাথে সময়। কি যুদ্ধে ছেলেভুলানো গোয়ার্তুমি ? এখন আর থামিয়ে দিতে চাইনা। এ এমন ভোরে পৌছুতে হলে সময় পেরিয়ে যাবার আজ যে অনেক বেশি প্রয়োজন।

 

 

৫৭৭জন ৫৭৪জন
0 Shares

৫১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ