মা আমার

মনির হোসেন মমি ১৬ মার্চ ২০১৪, রবিবার, ১১:২৪:৩১অপরাহ্ন কবিতা, বিবিধ ১৭ মন্তব্য

ছেলের গালে চড়টা মেরেছিল একটু কষেই

ছেলের ফর্সা গালে অঙুলীর স্পর্ট  স্পষ্টতর,

চোখেরঁ জল গাল বেয়ে পড়ে জমিনে

তাই দেখে মা ভাবে সে কতো যে কমিনে।

মায়ের অসহনীয় যন্ত্রনার মাঝে যার জম্ম

তার জন্যে আবার মায়ের মন কাদেঁ,

শিশু কালে

মা মাটিতে রাখেনি পিপিলিকায় কামড়াবে

একা রেখে যায়নি কোথাও বাঘে খাবে।

কৈশরে

খেলার ছলে ঘর হতে বের হয় ছেলে

গোধূলীর শেষ বেলায় না ফেরা,

ছেলের জন্য মায়ের মন হয় অস্হির

পিতার

ভাবনার মাঝে খাদ হলেও মায়ের মাঝে নেই।

শৈশবে কৈশরে

মায়ের আচলেঁ খুজি শান্তির পরশ

ঝড় ঝাপটা যাই হোক সব,মা হয়ে যায় বাদী,

যৌবনে রক্তের গরমে বাপকে বলি বুড়া মাকে বলি বুড়ি

বিয়ের পর

বৌয়ের হাতে যায় যে সোনার চুড়িঁ।

কথায় বলে,

দাত থাকিতে দাতের মর্ম ‘ন বুঝি

যৌবন কালে মায়ের উপদেশ ‘ন মানি

শেষ বেলাতে হঠাৎ মায়ের বিয়োগে

মাতৃভক্ত

আর অনু সূচনায় সারা জীবন জ্বলে মরি।

হঠাৎ

যখন মনে পড়ে মায়ের আদরঁ বাবার শাসন

ভেবে নাহি পাই কোথায় গেলে যে পাই

কোন পৃথিবীতে আছে যে লুকিয়ে মা

পেলে,

সাদরে নিতাম এমন মায়ের আর একখান

গালে থাপ্পর।

৩৫০জন ৩৪৯জন
0 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য