দারুচিনির ‘ব-দ্বীপে’

ছাইরাছ হেলাল ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, বৃহস্পতিবার, ০১:১২:৩২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫৮ মন্তব্য

ছেলেটি মেয়েটিকে ডেকে গাঢ়স্বরে বললো
“এসো ভালোবাসায় ডানা মেলি ঐ দিগন্তে।
তুমি আমাকে উন্মুখ উন্মুক্ততা দেবে
তার বদলে এক আকাশ বজ্রের বৃষ্টি দেবো। রাজি?”

মেয়েটি অংকে পাকা। সরু ঠোঁটে হেসে বলল, “বুঝলাম তো সবই,
এই সঙ্গিন শীতে এত্ত দেরিতে কেন বলো।”

শুনি গান দূর বসন্তের, পাশপড়শী ক্লান্ত এখনও মোহনীয়া সুরে সুরে,
বিফল বীজে অঙ্কুরোদগম হয় না, ক্লান্তিতে লুটায় সাহঙ্করা কৃষক।
ঢেউয়ের দিগন্তে অধরা তীর্থ আঁধারে হারায়, রংধনু ছোঁয়া হয় না
মিথ্যের ঝিঁঝিঁ মায়ায়।
উড়নচণ্ডীর বিরহ বেলা আর কত কাল?
এবার ভিড়বে ডিঙ্গা দারুচিনির ‘ব-দ্বীপে’!!!
অনুজ্জাপনের সমস্ত নিয়ে অনিমিখ যুগলানন্দ এ শীতজ্যোৎস্নায়,

ঘোষনাঃ
ইহা অতি অবশ্যই নকল!! না কিন্তু,

 

আগে থেকেই খসড়ায় থাকা লেখাটি লেখকের অনুমতি নিয়ে প্রকাশ করা গেল।
– ব্লগ সঞ্চালক

৪৪৩জন ৪৪৩জন
2 Shares

৫৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ