তোমার জন্য রাতে…………

আনন্দধারা বহিছে ভুবনে ২৪ জানুয়ারী ২০১৫, শনিবার, ১২:২৯:০৯পূর্বাহ্ন রম্য ৬০ মন্তব্য


আজ আমি আপনাদের কোন আনন্দ দিতে আসিনি,এসেছি আমার ভাগ্য বিড়ম্বিত জীবনের কিছু ইতিহাস বলার জন্য।বড়ই করুন আর বঞ্চনার ইতিহাস  🙁

প্রেমিক যুবক আমি।কত নরম দিলের তা আপনারা আমার পূর্বের পাত্রী চাই পোষ্ট জেনেছেন।কত হাহুতাশ আমার একজন জীবন সঙ্গিনীর জন্য।কিন্তু ভাগ্য আমার সাথে সারাক্ষণই বৈরী আচরন করে।কত চেষ্টা যে করি একজন সঙ্গিনীর জন্য,সব কিছু ঠিক মত চলার পরেও ল্যাপটপ আর মোবাইলের কি বোর্ড আমার সমস্ত স্বপ্ন ধুলিস্ম্যাত করে দিয়েছে।

লাবণী আপু অনলাইনে আমার প্রথম প্রেমঃ
কত কিউত একটা আপু।আমার চেয়ে বেশ বড়,তাতে কি? সুবর্না মুস্তফা বা তানিয়া বিয়ে করেছেন তাঁদের চেয়ে কত্ত ছোট পুরুষকে।
তো আপুর সাথে ফেইসবুকে পরিচয়,আদর করে সজু ডাকতেন আমাকে।আহা কত ভালোই না লাগতো এই সজু ডাক।ইনবক্সে যখনই দেখতাম ‘সজু আছো’? হৃদয় আমার নাচেরে গান গেয়ে উঠতাম।আদর করে দু একসময় আপুটা একটা  (3 এর ইমো দিলে,আমি দিতাম পাঁচটা।এইত সময় হৃদয়ের কথা বলার 🙂 কিন্তু আপুটা এর যেন কিছুই বুঝতেন না। মাঝে মাঝে হাসির ইমো দিতে গিয়ে চোখ টেপার ইমো হয়ে যেতো।প্রথম দিকে ইচ্ছে করে দিয়েছি    :p   আপু প্রতিবারই বিরক্ত হয়ে,এই সব কি দাও,আনফ্রেন্ড করে দেবো কিন্তু। মাফ টাফ চেয়ে রক্ষা।এরপর থেকে খুব সাবধানে হাসির ইমো দেই।মোবাইলে পাশাপাশি নব, ল্যাপটপে একই নব : ; এরপর ) এটা দিলেই তো হাসি আর চোখ টিপ। খুব সাবধান এ নব টিপ।আপু একদিন অবশ্যই আমার হৃদয়ের কথা বুঝবেন।দিন যায় আমরা আরো আন্তরিক হই।
এলো সেই বিচ্ছেদ কান্নার রাত।আপুর একটি কথায় খুব আনন্দ পাই আমি, একসাথে অনেক গুলো হাসির ইমো দেই।কিছুক্ষণ পর দেখি মেসেজ আর যায় না, ইমো পেয়ে আমাকে ব্লক করেছেন আপু।চেক করে দেখি সব ইমো ছিলো চোখ টিপ দেয়ার  ;(

আমার জান সুপর্না এর কথাঃ
আপু চলে যাবার পরে খুবই সুন্দর এক মেয়ের সাথে প্রেম হয়ে যায় আমার ফেইসবুকে।সারাক্ষন মেসেজ আদান প্রদান।সেও কোন ছেলের সাথে ইতিপুর্বে প্রেম করেনি।আমি প্রমিজ করে বলি যে আমি প্রেম তো করিইনি কারো প্রেমেও পরিনি ( আপুর কথা কি বলা যায়?),একদম ইনট্যাক্ট যুবক।জানু,জান কত যে কথা।কত যে প্লান।অস্থির থাকতাম চ্যাট এর জন্য। প্রায় সমস্ত রাত চ্যাটে।
এক গভীর রাতে চ্যাটে আমার জান যানায়,দশ মিনিট বাথরুম থেকে আসছি।দশ মিনিট পরেও সে আসেনা।এই সময়ে লিখতেই থাকি লিখতেই থাকি।শেষে লিখি ‘কোথায় আমার জান্টুসটা ? দুই মিনিট পরে এসে ঝড়ের বেগে লিখে যায় ‘ চরিত্র হীন, বদমাশ, আমি একটু সময় নেই অমনি অন্য মেয়েদের সাথে শুরু ? দূর হ তুই ‘ । কিছু বলার আগেই দেখি ব্লক আমি। কেন এমন রাগ করলো,কি লিখেছি আমি? পাঠানো মেসেজ চেক করতেই দেখি, আমার শেষ মেসেজ ‘ কোথায় আমার জান্টুসরা ? ‘ অভ্রতে লেখি আমি T R পাশাপাশি   ;( এই অক্ষর দুটো পাশাপাশি না রাখলে কি এমন ক্ষতি হতো ? 🙁

ইপসিতা তোমার জন্য রাতে জাগিঃ
বছর খানেক একা থাকি আর  বিরহের গান গাই। আবার এসে যায় একজন। আপু আর জানের চেয়ে সব দিক দিয়ে সেরা। নিজকে খুব ভাগ্যবান মনে হচ্ছিল।পরীর মত সুন্দর সে। এঞ্জেল ডাকায় খুবই খুশী।অভ্যাস হয়ে গেলো আবার।একে অন্যের সাথে যেন জড়িয়ে থাকি এই অবস্থা।ভালোবাসায় হাবুডুবু।
একরাতে জিজ্ঞেস করে,যে প্রশ্নের উত্তর তাঁর জানা, তারপরেও এর উত্তর সব প্রেমিক প্রেমিকারা বার বার শুনতে চায়।
প্রশ্ন করে সে, এত রাত জাগো কেনো সোনা ?
আবেগে আপ্লুত হয়ে উত্তর দেইঃ তোমার জন্য রাতে জাগি
এরপর ,সে কিইইই বললি লিখেই ব্লক। কি বললাম আমি? দেখলাম তোমার জন্য রাতে হাগি   ;(
J H পাশাপাশি।

আমার ভাগ্যটা এমন খারাপ কেনো? কেন এমন শুধু আমার সাথেই হয়?  (-3

৭০৯জন ৭০৭জন
0 Shares

৬০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ