গাছ দাঁড়িয়ে আছে, নির্ভার নির্ঘুমতায়,
তুমুল শব্দ তোলে মৌয়ের মাছিরা,
চুম্বন বৃষ্টিতে,
ঘুঘু-মা ব্যস্ত, ডিম তদারকিতে,
এক-ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা, বহু-কাল-ঘণ্টা,
আঁকড়ে ধরে সময়ের লম্বা-মোটা সুতা,
এই ঝুম-বৃষ্টিতে বাকল-উজ্জ্বলতা,
সময়ের বিষণ্ন-বন্ধ্যত্বের কল্পনা-কিরণে;

কাম আনলের কাম-অন্ধত্বে, শিকড়ের তলে তলে,
তল-আশনাইয়ের নির্বাধ আনন্দ-বিমূর্ততা, ঢেউ তোলে,
দেখতে-ও মন্দ লাগে-না, শুধু ‘ফোঁসফোঁসানিটুকু’ ছাড়া!!
চোখ-মাখা নির্লজ্জতাটুকুও দারুণ; দারুণ গন্ধ-স্পর্শের
স্বচ্ছ-রেখার মসৃণ শরীরী-বিলাস;

ঘরোয়া প্রেতাত্মা মুখে ব্যথিত-ক্লান্ত ছাপ
ভাঁজপড়া-কপাল চাপড়ে, তিরিক্ষি-মেজাজে, ফিরে যায়
একটু-বেশিই-পাকনা ভাব নিয়ে,
ভাব জমেছিল মনে, মিলাবে-মিলিবে আকণ্ঠ!!

সুড়সুড়ি জাগে-নি/জাগে-না,
বিজ্ঞাপনে বিজ্ঞাপন-ই থাকে, হৃষ্ট-পুষ্ট আদিমতা থাকে-না;

========================================

বিদ্রঃ ইহা কুন লটকন গাছ নহে!!

৫৩৯জন ৫৩৯জন
0 Shares

২২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ