বিভাগ: রম্য

১. বিবেকের ঘরে তালা দিসি কান্দো এবার বইয়া, হুনুম না আর কিছুই আমি যতই যাও কইয়া! ২. দেখি তোমার মেকি হাসি এ্যাঁ কি ছলনায়, একই অঙ্গে কত যে রূপ কত মহিমায়! ৩. ধূর শালা! লিখুম না আর যা-ই লিখিনা ছাই, সব লেখাতেই তোমার গন্ধ তোমায় খুঁজে পাই! ৪. তোমার জন্য হৃদয় আমার হইলো তামা তামা, [ বিস্তারিত ]
১. সে-ই জানেরে সে-ই জানে মন পুড়ে যায় যার, বুকের ভেতর আর কিছু নাই শুধুই হাহাকার। ২. হ্যালো ম্যাডাম আর পারিনা ইতনা জ্বালা বুকে! ক্যামনে কমু আই এম ইন লাভ আন্ধাইর দেখি চউক্ষে। ৩. তোমার দেয়া স্বপ্ন বীজে আজও করি চাষ, বন্ধ্যা বীজে হয়না ফসল কি যে সর্বনাশ। ৪. শীতে কাঁপায় হাড্ডি মাংস তুমি কাঁপাও [ বিস্তারিত ]
১. দীঘে তুমি বাড়ছো না গো প্রস্থে শুধু বাড়ো, ফাস্ট ফুডের মায়া তবে এইবার ছাড়ো। ২. তোমার ভয়ে আমি থাকি অফ-লাইনে, বাঁচাতে পারিনা তবু মাস শেষের মাইনে। ৩. কালো চুলে ধরে পাক দ্বারে নক করে টাক, ব্যচেলার ডিগ্রিটা এইবার ঘুচে যাক। ৪. কেউ বলে প্রেম আর কেউ বলে জ্বালা, তবু কেন সকলার বিবেকে তালা ? [ বিস্তারিত ]
ডায়েরী লেখার প্রাত্যহিক কোন অভ্যাস আমার কোন কালেই ছিলো না, এখনো নেই। তবে প্রতি বছরই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও প্রিয় বন্ধুদের কাছ থেকে অনেক ধরনের ডায়েরী উপহার হিসেবে পেয়ে থাকি। সেসব ডায়েরীতে আমি সাধারণত কবিতা ও লিরিক লেখার কাজটাই করি। দু-একটা ডায়েরীতে আমার জীবনে ঘটে যাওয়া কিছু স্মরণীয় ঘটনার আংশিক বা পূর্ণ বিবরণ লিখে গেছি। এখন [ বিস্তারিত ]
১. তারে ভালোবাসতাম আমি সে কি মোরে বাসিত ? ভালো যদি না-ই বাসিত দেখলে কেন হাসিত ? কইনি কথা তাহার সনে লাজ শরমের ভয়ে, প্রেমের কাঁটার আঘাত একা যাচ্ছি আমিই সয়ে। হঠাৎ করেই সাজলো বধু হৃদয় ভেঙ্গে দিয়ে, চোখের সামনেই চলে গেলো সবই কেড়ে নিয়ে। ২. আমায় শুধু বাসতো ভালো আমি কি আর বাসি ? [ বিস্তারিত ]
আমার চোখে সকাল নামে সাধারণত সকাল দশটার পর তাই সকালের নরম রোদের স্বাদ আমি পাইনা। ভোরের শিশির যদি কখনো গায়ে মাখতে পারি তখন সারাদিন খুব আরামেই কাটে কিন্তু আমি হয়তো অত আরাম চাইনা বলে শিশিরের স্পর্শ থেকেও দূরে থাকি। রাতের নির্জনতাকেই আপন করেছি বলে ভোর দেখাও হয়না খুব একটা। ভোর যখন আমার জানালার পাশে তখন [ বিস্তারিত ]
উষ্টা খাওয়ার আগেঃ চাইনা কিছুই তোমায় ছাড়া তোমার আছে জানা, তোমায় পেলে ধন্য জীবন হবে ষোল আনা। এমন কথা বলতে প্রেমে- উষ্টা খাওয়ার আগে, ভোগে জীবন ধন্য নয় তো ধন্য জীবন ত্যাগে। উষ্টা খাওয়ার পরেঃ তোমায় পেয়ে পাইনি কিছুই দেউলিয়া হতে বাকি, সোনার জীবন আঙ্গার হলো দুঃখ কোথায় রাখি। এমন কথা প্রায় শোনা যায় উষ্টা [ বিস্তারিত ]
[[ প্রাক আলোচনা: ‘মহাভারত’ হিন্দুধর্মের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় পুস্তক। অসাধারণ সব গল্প, কাহিনীর গভীরতা, মোড় ইত্যাদি বিবেচনায় এটা নি:সন্দেহে একটি সুখপাঠ্য গ্রন্থ, বিশ্বের চারটি মহাকাব্যের একটি। বাল্যকালে এবং কৈশোরে এই কাব্যগ্রন্থের গদ্য রূপ (বাংলায় অনুদৃত) পড়ার সৌভাগ্য আমার হয়েছিল। সেই স্মৃতির আলোকে আমি এই অসাধারণ গল্পগ্রন্থ (মানে গদ্য রুপের কথা বলছি) থেকে মিরাকলগুলো আপনাদের সামনে [ বিস্তারিত ]
১. তোমার বাবা পুলিশ বলে ফাও সুবিধা লুটতে চাও ? তোমায় কিছু বলতে গেলেই ইভ টিজিংয়ের ভয় দেখাও !!! ২. বাস্তববাদী প্রেমিক আমি স্বপ্ন বুকে বাঁধি না, তাইতো তোমার আঘাত পেলে না হাসলেও কাঁদিনা। ৩. ইয়াহুতেই কথা বলো নেটের বিলেই ভয়েস চ্যাট, মোবাইল ফোনের উটকো বিলে চাইনা দিতে শুল্ক ভ্যাট। ৪. তোমায় আমি ভালোবাসি তাই [ বিস্তারিত ]
সহস্রাধিক দর্শকে ভর্তি হল রুম। আর মাত্র কিছুক্ষণের মধ্যে শুরু হবে বাংলা নববর্ষকে কেন্দ্র করে বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান “সাদর সম্ভাষণ ১৪১৯ বাংলা”। হল রুমের আলো একটু একটু করে নিভে আসছে, মঞ্চের সম্মুখের বিশালাকার কালো পর্দা ধীরে ধীরে উপরে উঠে যাচ্ছে তুমুল করতালির মধ্য দিয়ে উপস্থাপকের প্রবেশ ঘটলো মঞ্চে। সেই সাথে কুদ্দুসের বিরক্তিরও ইতি ঘটলো, এতোক্ষণ [ বিস্তারিত ]
০১. কনফিউজড প্রেম তোমার সাথে হয়না দেখা হয়না কথা রোজ, ভাবলে তোমায় কঠিন হৃদয় যাচ্ছে হয়ে ন্যূব্জ। মোচড়ে উঠে হৃদয় আমার দেখলে তোমায় কভূ, মনের ভাষা হয়না প্রকাশ গোপনে রয় তবু। ০২. মিষ্টি প্রেম প্রখর রোদে ঘামছি আমি ভাবছি এ যে বৃষ্টি, মন্দের মাঝেও ভালো থাকি পেলে তোমার দৃষ্টি। তোমায় ছাড়া শূন্য ভূবন মহাকাশের মতো, [ বিস্তারিত ]
ফোন ব্যবহার করছেন অথচ রং নাম্বার থেকে কল আসেনি এমন কোন ব্যবহারকারী হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবেনা। রং নাম্বার থেকে পরিচয় অতঃপর প্রেম পর্ব সেরে ঘর সংসার করা জুটির অভাব নেই আমাদের দেশে। ২০০৫ থেকে নিয়মিত কিছু মানুষ আমাকে ফোন করে রঙ মিস্ত্রী বেলালের খোঁজ করতো। কারণ বেলাল নামের কোন এক রঙ মিস্ত্রী তার ভিজিটিং কার্ডে [ বিস্তারিত ]

আজব শহর ঢাকা

তামান্না রুবাইয়াত ১০ অক্টোবর ২০১২, বুধবার, ০২:৫৯:২১অপরাহ্ন কবিতা, বিবিধ, রম্য, সাহিত্য ১১ মন্তব্য
আজব শহর ঢাকা হয় না ভুলেও ফাঁকা নানান জনের নানান রুচি কারো সাথেই মিলে না বুঝি । দাওয়াত দিলে অনুষ্ঠানে দেখা মিলে সবার সনে সবাই থাকে একলা একা মিলাদ ছাড়াও হয় না দেখা । ঘরের সাথে ঘর দরজা লাগালেই পর ঢাকায় নাকি টাকা উড়ে! ধরতে পারলে শান্তি ফিরে? ঢাকার এত যান জট মনের সাথে খায় [ বিস্তারিত ]
বাবারা সব সময় নিষ্ঠুর হয়না। কড়া মেজাজের অন্তরালে চড়া ভালোবাসা সব সময় প্রকাশ করেন না বলেই বাবাদের বেশির ভাগ সময় নিষ্ঠুর বলে মনে হয়। ছোট্ট বেলায় বাবা ভীতির পাশা পাশি বাবা প্রীতি যে একদম ছিলোনা তা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। শৈশব কৈশর অতিক্রম করে এখন স্পষ্টতঃ বুঝতে পারছি যে বাবার সেই কড়া অনুশাসনের একমাত্র [ বিস্তারিত ]

ডাণ্ডাবেড়ি

আহমেদ কামাল ৮ অক্টোবর ২০১২, সোমবার, ০৮:০৮:৪৬অপরাহ্ন কবিতা, বিবিধ, রম্য, সাহিত্য ১১ মন্তব্য
হাসিনা, খালেদা, আর নিযামি এই নিয়া আছি আমি স্বদেশওঁ মনে হয় এ যেন নয় আমার মাতৃভূমি, আজ, কাল পরশু এ ভাবেই যাচ্ছে আমার দিনমান সপ্ন গুলো লাগছে ধুসর হচ্ছে অসমান, এ যেন এক অন্ধ, নির্বাক, নিস্তব্দতা ক্রমেই বাড়ছে সমস্যা সঙকুল জটিলতা, ঘুম ভাংতে হয়ে গেল অনেক দেরি তাকিয়ে দেখি পায়ে আমার ডাণ্ডাবেড়ি।    

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ