কোন ভনিতা করতে পারলাম না,অনেকে অনেক কিছু দিয়ে সম্বোধন করে তাঁর ভালোবাসার মানুষ কে আমি কিছুই পারি না সেটা তুমি বরাবর অবগত মানে জানো, আর সেই জন্য সরাসরি জিজ্ঞেস করলাম ……

এই তুমি কেমন আছো ??
তুমি কী সুস্থ ??

ঔষধ খাওতো ঠিক মত ??

তোমার কী মন ভালো আছে না খারাপ ???
আমার কেন জানি মনে হচ্ছে তোমার চরম মন খারাপ, কোন কিছুতে তুমি মন বসাতে পারছো না,সব কিছু তোমার বিরক্ত লাগছে, এইটা আমার সিক্স-সেন্স বলছে ?? আর তুমি ভালো করে জানো শুধু মাত্র তোমার কিছু ব্যাপার গুলো তে আমার এই সিক্স-সেন্স অনেক কাজ করে,আর আমার সিক্স-সেন্স বলছে তুমি ভালো নেই ???

আচ্ছা আমাকে একটা কথা বলবে প্লিজ সত্যি করে বলবে কেন তুমি সবসময় বিষণ্ণ থাকো ??
আর আমি এইটা ভালো করে জানি তোমার মন খারাপ থাকলে তোমার মেজাজ অনেক খিটখিটে হয়ে যায়। তখন তুমি একটু পান থেকে চুন খসলে রেগে যাও,কেউ তোমাকে বিরক্ত করলে তুমি তখন সেই মানুষটার উপর এত বেশী রেগে যাও যে তোমার হাতে যদি পিস্তল থাকতো তাহলে আমি শিউর তুমি গুলি করতে দ্বিধা করতে না ??? আর রেগে গেলে তো তোমার ফর্সা মুখ খানা লাল হয়ে যাই অবশ্য তখন তোমাকে দেখতে অনেক সুন্দর লাগে সেটা তুমি জানো না ???? সেটা আমি জানি …

আমি মনে হয় বেশী বয়ান দিয়ে ফেলছি তাই না ?? আসলে আমার অনেক কথা জানতে ইচ্ছে করে অনেক কথা বলতে ইচ্ছে করে তোমাকে কিন্তু বলতে পারি না তাই লিখি।।

আচ্ছা তুমি কী এখন ও সকাল বেলা ঘুম থেকে চোখ খুলে সেই আগের মত রোমান্টিক থাকো?? না বিষণ্ণ মন নিয়ে বিছানা ছাড়ো ??? আমার অনেক জানতে ইচ্ছে করে ??
আচ্ছা এখন ও কি দুপুর বেলার তপ্ত রোদের মাঝে তোমার ঘরের জানালা দিয়ে প্রকৃতি দেখ আর গুন গুন করে গান গাও ???

তুমি কি বিকেলে ঘুম থেকে ওঠে বা যেদিন না ঘুমাও ঐদিন কি তোমাদের বাড়ীর ছাদে কানে হেডফোন লাগিয়ে গান শুনো আর ছাদের এ মাথা হতে ও মাথা পায়চারি করে বেড়ায়ও ??

সন্ধ্যা হলে কি তুমি তোমার ঝুল বারান্দাটায় চায়ের কাপ হাতে নিয়ে একটু একটু করে আলতো চুমুক দাও আর বিষণ্ণ মনে কারো কথা ভাবো ??

তুমি কি রাতে পড়তে বসলে বইয়ের পাতা উল্টাতে উল্টাতে কারো কথা ভাবতে ভাবতে বিষণ্ণ মনে আগের কল্পনায় চলে যাও ??

আমার এই প্রশ্ন গুলো অনেক জানতে ইচ্ছে করে অনেক ??? কিন্তু আমি প্রশ্ন তো করতে পারি না আর জানা টা তো অনেক দুরের কথা…

কিন্তু তুমি কী জানো আমি তোমাকে নিয়ে আমার প্রতিটা সেকেন্ড ভাবি কখনো বিছানায় শুয়ে শুয়ে কখনো বা খোলা মাঠে আকাশের দিকে তাকিয়ে থেকে, আমার তোমাকে নিয়ে ভাবতে অনেক ভালো লাগে এত ভালো লাগে যা তোমাকে বলে বুঝানো যাবে না,আমি তোমাকে অনেক কিছুর সাথে তুলোনা করি কখনো বৃষ্টির সাথে কখনো সকালের সূর্যের উজ্জল কিরণের সাথে কখনো মুক্ত আকাশের সাথে মেঘের সাথে কখনো বা পূর্ণিমার চাঁদের আলোর সাথে আর এই সকল কিছুর সাথে যখন তুলোনা করি তখন আর একটা কথা ভাবি তুমি পাশে থাকলে কেমন হত,আসলে এই সব কিছুর সাথে তুমি আমার পাশে থাকলে অনুভুতি টা কেমন সেটা ভাবি আর তখন মন ভালো হয়ে যায়…

এই যেমন ধরো ঝুম বৃষ্টি হচ্ছে আর তখন তুমি আমার পাশে আমি তোমার হাত ধরে বৃষ্টিতে ভিজচ্ছি,তুমি হঠাৎ করে বললে বৃষ্টি তে ভিজতে অনেক ভালো লাগছে ইশ যদি কেউ আমাকে এক গুচ্ছ কদম ফুল দিতো বাদলা দিনের প্রথম কদম ফুল, তুমি বিশ্বাস কর আমি সত্যি দুনিয়ার শেষ প্রান্ত থেকে হলেও এনে দিতাম এক গুচ্ছ কদম ফুল তোমাকে হাঁটু গেড়ে কদম ফুল গুলো দিতাম, আর তখন তোমার হাতে কদম ফুলো গুলো দেখতে কেমন লাগতো আর তুমি বা কেমন করতে তোমার লজ্জায় লাল হয়ে যাওয়া আনন্দের আবেগী মুখ খানা কেমন হত তা আমি অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকতাম সেই মুহূর্ত গুলো কল্পনায় সেই আবেগী লাল মুখখানা ভাবতে আমার অনেক ভালো লাগে…।

তারপর ধরো সমুদ্রের পাড়ে কোন এক গোধূলি লগ্নে আমি আর তুমি পাশাপাশি বসে সূর্য ডোবা দেখছি তুমি আমার কাঁধে মাথা রেখে সূর্যের দিকে তাকিয়ে আছো আর সূর্যের লাল আভা তোমার মুখে এসে পড়ছে আর আমি তোমার সেই লাল আভায় ছাড়ানো সুন্দর মুখ খানার দিকে তাকিয়ে থাকতাম তখন তুমি আমার গালে একটা আলতো থাপ্পড় দিয়ে বলতে এই কি দেখ এমন হা হয়ে মাছি ঢুকবেতো তোমার আমার সাথে সেই দুষ্টামির সময়টার কথা ভাবতে অনেক ভালো লাগে…

তারপর কোন এক পূর্ণিমা রাতে আমি আর তুমি কোন এক ছাদে তুমি নীল শাড়ি কপালে ছোট্ট একটা কালো টিপ তোমার চুল গুলো ছাড়া দখিনা বাতাসে তোমার চুল গুলো এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে তুমি বার বার ঠিক করার চেষ্টা করছো একটা দোলনায় বসে আমি পিছন থেকে তোমার কানের কাছে মুখ নিয়ে কানে কানে বলতাম থাক না উড়তে দাও তোমার চুলের ঘ্রাণ টা আমাকে মাতাল করে তুলছে তুমি তখন আমার হাত ধরে টেনে সামনে নিয়ে এসে বলতে থাক আর ঘ্রাণ শুকে মাতাল হতে হবে না আমার পাশে এসে বস, আমি বাধ্য ছেলের মত তোমার পাশে গিয়ে বসতাম তুমি আমার হাত তা শক্ত করে জড়িয়ে রাখতে আর তোমার মাথা আমার কাঁধে রেখে চাঁদের দিকে তাকিয়ে গুন গুন করে গাইতে তোমার সেই প্রিয় গান টা…

” এই রাত তোমার আমার
এই চাঁদ তোমার আমার
শুধু দুজনে ”

আমি মন্ত্র মুগ্ধ হয়ে তোমার গান শুনতাম আর পূর্ণিমার চাঁদের আলো পড়া তোমার উজ্জল মুখ খানার দিকে তাকিয়ে থাকতাম তোমাকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরতাম আর একটা কথা বলতাম অনেক ভালোবাসি তোমায় আমায় একা ফেলে তুমি যেও না তাহলে আমি আমার জীবনের এই সেরা মুহূর্ত গুলো মিস করবো আমি এই আবেগ জড়ানো মুহূর্ত গুলো হারাতে চাই না, তুমি বিহনে আমার জীবন অন্ধকার একেবারে গুট-গুটে অন্ধকার, আকাশের দিকে তাকিয়ে দেখ একটা ও তাঁরা নেই……।।

এই সব কথা গুলো আমি প্রতিদিন ভেবে যাই আর তোমাকে অনেক মিস করি, এখন আসলে আমার জীবন গুট-গুটে অন্ধকার আমার আকাশে একটা ও তাঁরা নেই চাঁদ ও নেই,আমার আর দেওয়া হলো না তোমাকে এক গুচ্ছ বাদলা দিনের প্রথম কদম ফুল তোমার হাত ধরে বৃষ্টি তে ভেজা হল না দেখা হল না তোমাকে নিয়ে সূর্যাস্ত, আমি এখন বৃষ্টিতে ভিজি আবেগী হয়ে নয় নিজের কষ্ট গুলো কে চোখের জল কে বৃষ্টির পানি তে ধুয়ে ফেলতে আবার নতুন করে কষ্ট গুলো জমানোর জন্য, আমি এখন চাঁদ দেখি না পূর্ণিমার চাঁদ এখন আর ভালো লাগে না আমার আমাবস্যার রাত ভালো লাগে আমাবস্যার রাতে আমি আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকি, আমার কিছুই ভালো লাগে না অফিসের কাজে মন বসে না সব কিছু বিরক্ত অসহ্য লাগে, শুধু একটা কাজ করতে ভালো লাগে তোমাকে নিয়ে আমার এই সব কল্পনা করতে, আর আমি এই সব কল্পনা করি বলে তুমি আমাকে পাগল ভাবতে পারো বা মানুষ আমাকে বলতে পারে এই দুনিয়াই এখনো এই রকম পাগল আছে তাহলে ?? আমি তোমাকে আর সব মানুষ কে বলতে চাই হ্যাঁ আমি পাগল তোমার জন্য পাগল তোমাকে যে আমি অনেক বেশী ভালোবাসি, তুমি আমার অস্তিত জুড়ে মিশে আছো, আমি আমাকে ভুলতে পারি কিন্তু আমার সত্ত্বা আমার অস্তিত জুড়ে যে তুমি আছো তাঁকে তো আমি কোনদিন ভুলতে পারবো না, এককথায় আমি ভুলতে দেব না, আমি তোমাকে শুধু তোমাকে ভালোবেসে যাবো…

অনেক কিছু লিখে ফেললাম অনেক বয়ান দিয়ে ফেলছি ক্ষমা করে দিও
ভালো থেকো সুখে থেকো এই কামনা করি সবসময় নিজের প্রতি যত্ন নিও ঠিক মত খাওয়া – দাওয়া করো ঔষধ খেয়ো,আর একদম মন খারাপ করবে না এই জিনিষ টা তোমার সাথে মানায় না, আর সব শেষে একটা কথা মনে রেখো আমি আগে যেমন তোমায় ভালোবাসতাম এখন ও তেমনি ভালোবাসি আর ভবিষ্যতে এই ভাবে ভালোবেসে যাবো কোনরকম এদিক সেদিক হবে না………।।

 

 

১২৬৪জন ১২৭৩জন
0 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য