নিজেকে ভালোবাসো…

 লিখেছেন on অক্টোবর ১১, ২০১৭ at ৪:১৯ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  Add comments
অক্টো. ১১২০১৭
 

তুমি যদি বলো পদ্মা মেঘনা একসাথে দেব পাড়ি… এই তুমির জন্য আমাদের ভালোবাসা অপরিসীম; কিংবা বাবা-মা, বন্ধুবান্ধবদের জন্যেও আমরা ভালোবাসা প্রকাশ করি অকপটে। প্রকাশ এবং সত্যতে যদিও পার্থক্য থেকেই যায়। নিজেকে ভালোবাসি কী আমরা? জানি হয়তো ভাবছেন, নিজেকেই মানুষ সবচাইতে বেশি ভালোবাসে। কিন্তু সত্যি কী তাই? হ্যাঁ ক্রিটিক্যাল মুহুর্তগুলোতে হয়তো নিজের প্রাণকেই সবার আগে বাঁচাবো আমরা, তবে নিজের প্রাণকে ভালোবাসা আর নিজেকে ভালোবাসা এক নয় কিন্তু। উদাহরন, নিজেকে ভালোবাসলে আমরা সিগারেট খেতাম না, এলকোহল বা ড্রাগ আসক্ত হতাম না। নিজেকে ভালোবাসলে যুদ্ধে যেতাম না (জানি এই ভিউটা সবার এক নয়)।
কিন্তু আমি আজকে নিজেকে ভালোবাসার কথাই বা এতো বলছি কেন?
কারন আমার পৃথিবীর আমি কেন্দ্রবিন্দু। আমার মধ্যেই আমার পৃথিবীর সমস্ত মানষগুলো জড়িয়ে আছে। আমি ভালো থাকলেই সবাই ভালো থাকবে। অথচ আমি জানিই না কিসে আমার ভালো থাকা। নিজের সম্পর্কেই তো আমরা অনেক কম জানি। শুধু জানি এটা ফানি, মজার, আনন্দ পাই। ওটা কষ্টের, দুঃখ পাই। অথচ নিজেকে জানতে পারলেই প্রতিকূলতার মধ্যে নিজের আনন্দকে বের করতে পারতাম। আমাকে যখন জিজ্ঞেস করা হলো তোমার প্রিয় বন্ধুকে জিজ্ঞেস করলে তোমার কোন গুনটা সবার আগে বলবে? আমি চুপ। অন্য মানুষরা তোমাকে যদি মনে রাখে, কোন গুনটার কারনে মনে রাখবে? আমি এবারও চুপ। ঠিক আছে, তুমি বলো তোমার সবচাইতে স্ট্রং পাঁচটি গুন। রাজ্যের লিস্ট ধরিয়ে দিলো সাহায্যের জন্য আর আমি বসালাম—
*Responsible
*Hardworking
*Friendly
*helpful
*Happy
আমি জানিনা আমি কী, তবে কি করে আমি জানবো অন্য একজন কেমন। হয়তো ভাবছেন অন্যকে বোঝা সহজ নিজের চাইতে। কিন্তু না। আমরা অন্যকে সেভাবেই জাজ করি, যেমনটা আমরা নিজে; তাই নিজেকে জানা জরুরি। নিজেকে জানলেই নিজের গুনগুলো শক্তিশালি করে নিজের জন্য, মানুষের জন্য কাজে লাগাতে পারি আমরা আর নিজের ভুলগুলো সরিয়ে নিতে পারি।
যখন মন খারাপ থাকে, নানা স্ট্রেসের মধ্যে থাকি, অনিচ্ছাকৃত ভাবে হলেও ছেলের সাথে খারাপ ব্যবহার করি। দিনের সব কাজে তার প্রতিফলন পড়ে।
বিশ্বাস করুন, নিজের একটু খোঁজ নিলে, নিজের ইমোশনগুলো বুঝতে পারলেই আমরা অনেক নেগেটিভিটি এভয়েড করতে পারি।

সবার জন্য হোমটাস্কঃ
১। আপনি নিজেকে সুখী মানুষ মনে করেন? উত্তর হ্যাঁ হলে প্রতিদিন একটিবার জন্যে হলেও গডকে ধন্যবাদ দিন। আর না হলে, নিজেকে খুঁজুন। না কে হ্যাঁ একমাত্র আপনিই করতে পারবেন, নিজেকে বিশ্বাস করুন।
২। আজকের সবচাইতে আনন্দময় মুহুর্তটি কী ছিলো?
৩। নিজের ব্যক্তিত্বের সবচাইতে শক্তিশালী গুণটি বলুন। মিলিয়ে নিন দুএকজন বন্ধুর কাছ থেকে, তারাও সেটাই ভাবে কিনা।

আজকের মতো ছোটটাস্ক। তবে এই বকবকানি দ্রুত শেষ হবেনা এই আশংকা জানাচ্ছি।

  ১৪টি মন্তব্য, “নিজেকে ভালোবাসো…”

    
  1. নতুন একটি চিন্তা ঢুকিয়ে দিলেন মাথায়।
    এমনিতেই কত কত চিন্তায় মাথা আউলা ঝাউলা হয়ে গেছে, এরপর আবার নতুন চিন্তা, ভাবনার জগতে ঢুকলাম।
    দারুন এক পোস্ট দিলেন,
    নতুন এক শুন্য শুন্যালয়কে পেলাম।
    চলুক —

    হোমটাস্ক করছি,
    এর ফলাফল পরের মন্তব্যে।

      
    • কি ভয়ঙ্কর ব্যাপার বলুন তো?আজ সারা দিন ঠিক এই রকম একটা ব্যাপার মাথার ভেতর ঘুর ঘুর করছিল,ব্লগে এসে পড়ছি আর ভাবছি এইসব কথা আমি আবার …………।।
      খুবই কার্যকর উপায় মনে হচ্ছে,হাজার হলের ডাক্তার বলে কথা আজ থেকেই শুরু করি দেখি।
      একদম ভিন্ন লিখাটা, সত্যি বলছি আপনার অন্যলেখার চেয়ে একেবারে আলাদা।দারুণ খুওব দারুণ

        
      • ডাক্তার পদবী ভুলে যাচ্ছি ভাইয়া। :(
        একদম একই ব্যাপার আপনার মাথায় ঘুরঘুর করলে পরের সিক্যুয়াল পোস্টটা আপনিই দিয়ে দিন :)
        আপনি যে আরো হাজার গুনে গুছিয়ে লিখবেন তা জানি, তবে বাড়তি মশলা হিসাবে আবেগ দিয়ে ফেলবেন সেও জানি।
        উপায় কতটুকু কার্যকর হলো জানাতে হবে কিন্তু @মাসুদ ভাইয়া।

    • 
    • ঢুকিয়ে দিলাম বলেই না বুঝলেন যে মাথা আছে, আর সেটা আউলাঝাউলা। কিপিটাপ। দেখি হোমটাস্ক কদ্দুর এগোয় :)
      @জিসান ভাইয়া

        
      • ভাল যে আমি ডাক্তার হইনি,ডাক্তার হলে সব প্রেসক্রিপশন হয়ে যেত প্রেমের কবিতা!!!! রুগীরা বাজার থেকে কবিতা কিনে কিনে খেত হাহাহাহা
        আমার একটা ছোটভাই খুব মেধাবী ডাক্তার ছিল বাংলাদেশে,বছর খানেক হলো এখানে চলে এসেছে আমার কাছে,আমার সাথেই ব্যাবসায় মনযোগী হচ্ছে মনে হয়!! ডাক্তার বললে রেগে যাচ্ছে,এম,ডি না কি পরিক্ষা দিতে গিয়ে পাগল হয়ে যাচ্ছে। তা আপনার টা কি?

  2. 
  3. ও আপু প্রশ্নের উত্তরগুলো খুবই সহজ।
    ১) হুম আমি খুবই সুখী একজন মানুষ। ধন্যবাদ ভগবান।
    ২) আজকের সবচেয়ে সুন্দর মুহূর্ত আমার মামনির সাথে আড্ডা দেয়া।
    ৩) আমি হাস্যবতী মেয়ে। :D

    তোমাকে আমি সবসময় বলি ভালো রেখো। পুরো লাইনটা হলো নিজেকে ভালো রেখো। নিজেকে ভালো রাখতে পারলেই সবাইকে ভালো রাখা যায়। অন্তত চেষ্টার ত্রুটি হয়না।

    ওই তিলোত্তমা তুমি নাকি লিখতেই পারছো না আজকাল? এমনই লেখা নিয়া আসলা, মৌখিক পরীক্ষায় বসেছি লাগছে। ^:^
    তয় চমৎকার হইছে পোষ্টটা। (y) -{@

  4. 
  5. চিনিনা জানিনা।
    ভাবতেও পারিনা। আমি কি, কেন, কিভাবে, ভাল না মন্দ। তবে আমি সবার সাথে খাপখায়ে চলতে চাই। নিজের মত। কারো মত হতে চাই না।

    তবে খারাপ গুন আমি৯ রেগে যায় তবে পরক্ষনেয় সামলিয়ে নিতে চেস্টা করি। তবে অ ল স প্রচন্ড …।

  6. 
  7. *Responsible
    *Hardworking
    *Friendly
    *helpful
    *Happy
    গুণ গুলো থাকলে এক জন সম্ভবতঃ পারফেক্ট মানুষ বলা যায়।তবে ভিন্ন ইমেজে লেখাটা…চলুক।

  8. 
  9. আমি কল্পনা বিলাসি। কলপনায় ডুবে থাকি। হাসতে চাই প্রাণখুলে। নিঃশ্বাস নিতে চাই উন্মুক্ত বাতাসে।
    তারমানে আমি নিজেকে ভালবাসি কি? আমি সন্তানদের নিয়ে হইচই করতে খুউউউব ভালবাসি। নিজের জন্য একান্ত কিছু সময় কাটাতে ভালোবাসি।
    হোম টাস্ক আর কি আছে বলো?

  10. 
  11. আমাকে যদি কেউ বলে নিজের সম্পর্কে বলতে বা আমার স্ট্রং কিছু বলতে তাহলে আমার এক কথায় উত্তর হয়, আমি দাবা খেলতে ভালোবাসি বা আমি রান্না করতে পারি।

    তুলনা করি না কখনো নিজেকে কারো সাথে, এটাই হচ্ছে আমার ভালো থাকার প্রধান মন্ত্র।