বিভাগ: মুক্তিযুদ্ধ

১০৯,পুরান ঢাকার আগা সাদেক রোডের পৈত্রিক বাড়ি মোবারক লজে ১৯৪১ সালের ২৯ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করে এক শিশু। সেদিন হয়তো আগত এই অতিথি সম্পর্কে কারো কোন ধারণা ছিলো না কতোটা দেশপ্রেম অন্তরে লালন করে শিশুটি হয়ে উঠবে একজন খাঁটি দেশপ্রেমিক ,দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করতেও যে পিছপা হবে না। প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনায় অত্যন্ত মেধাবী এই ছেলেটি ১৯৬১ [ বিস্তারিত ]
একটি হিন্দু রীতিতে বিয়ের যত মশলা ছিলো সবই ঠিক ঠাক মতো করছেন সমরের অন্যান্য বন্ধু বান্ধবরা।তাছাড়া তাদের গ্রাম থেকেও এসেছেন বেশ কিছু মেহমান।যে যার কাজে ব্যাস্ত বিয়ে বলে কথা,আনন্দ উল্লাস আর হৈ চৈ এর মাঝে প্রস্তুতির অগ্রগতি। বাঙালি ব্রাহ্মণ সমাজে পাচটি শাখা রয়েছে তার মধ্যে -{@ রাঢ়ী, বারেন্দ্র,বৈদিক, সপ্ত শতী ও মধ্য শ্রেণী।বাঙালি কায়স্থ সমাজে [ বিস্তারিত ]
মুক্তিযুদ্ধ ই-আর্কাইভে ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধ পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী অনেক মূল্যবান বই, তথ্য, প্রবন্ধ, ছবি লাইব্রেরী আকারে সংগ্রহ করা আছে। এসব বই, প্রবন্ধ, ছবির বহুল প্রচারের জন্য এখন থেকে নিয়মিত সোনেলার পাঠকদের জন্য এখানে প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশাকরি এসমস্ত মূল্যবান দলিলাদি আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধ, দেশ সম্পর্কে সবার জ্ঞান সমৃদ্ধ করবে। লেখাটি মুক্তিযুদ্ধ ই-আর্কাইভ [ বিস্তারিত ]
বর্তমান বাস্তবতায় প্রিয় কবি শামসুর রাহমান এর অভিশাপ যেন ফলে গিয়েছে। সমস্ত কপাট বন্ধ হয়ে গিয়েছে যুদ্ধাপরাধীদের জন্য। রাজাকার,আলবদর,আলশামস এর পরিচয়ের দরজার কপাট রুদ্ধ আজ। আজকের এই দিনে প্রিয় কবির কবিতাটি শেয়ার দিলাম। অভিশাপ দিচ্ছি – শামসুর রাহমান ***************************** না আমি আসিনি ওল্ড টেস্টামেন্টের প্রাচীন পাতা ফুঁড়ে, দুর্বাশাও নই, তবু আজ এখানে দাঁড়িয়ে এই রক্ত [ বিস্তারিত ]
টেপ রেকর্ডারে প্র্রেমিক কবি  কাজী নজরুল ইসলামের কবিতাটি বেজে উঠতেই পিছু ফিরে তাকায় নন্দিনী।সূর্য্যকে দেখে নিজেকে বুঝতে না দেয়ার সূত্রে প্রস্তুত করে নিলেন।সূর্য্যও যেন ভেবে পাচ্ছেন না এই একটি মুহুর্তে কি বলবেন!তবুওতো বলতে হবে। -কি অবস্থা,এতো নীরব কেনো? -কৈ…এইতো,বাহির থেকে এসেছি শরিরটা টায়ার্ড লাগছিল।বসো…। -না ঐদিকে সমর বসে আছে….ভাবলাম তুমি হঠাৎ এ ভাবে চলে আসলে [ বিস্তারিত ]

মৌলিক অধিকার (১)

ইঞ্জা ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬, শনিবার, ০৫:৪৭:১৯অপরাহ্ন মুক্তিযুদ্ধ ৩১ মন্তব্য
মানুষের মৌলিক অধিকার সম্পর্কে আমরা প্রায় সবাই জানি আর তা হলো অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা এবং চিকিৎসা কিন্তু এই পাঁচটি অধিকার নিয়ে আমরা কতটুকু সচেতন তা নিয়ে আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে আর তার কারণ হলো আমরা সব কিছুতেই ভেজালে অভ্যস্ত, আসুন এই বিষয় নিয়ে একটু আলাপ করিঃ অন্নঃ প্রথমেই আসি আমাদের মৌলিক অধিকার অন্ন নিয়ে অর্থাৎ [ বিস্তারিত ]
রাজাকার জাতীয় পার্টির নেত সাখওয়াতকে মৃত্যুদন্ড সহ  সাত জনকে আমৃত্যু কারাদন্ড দিলো যুদ্ধাপরাধ ট্রাবুনাল।পত্রিকায় পুরনো খবর পড়লেন সমর। -বেশ এ ভাবে হয়তো আমরা আমাদের কলংকের  কালিমার দাগ কিছুটা হলেও লাগব হবে। সমরের এমন বক্তব্যের জের ধরেন অভি। -তাতো ঠিক আছে কিন্তু…..। -থাক ওসব কথা। -থাকবে কেনো? -এক জায়গায় যাচ্ছি…সেখানে গিয়ে ভাল করে বক্তিতা দিস,….তুইতো আবার ষ্টেজে উঠার [ বিস্তারিত ]
মুক্তিযুদ্ধ আমার কাঁধে ঝোলা দিয়েছে। আমার খালি পা, দুঃসহ একাকীত্ব মুক্তিযুদ্ধেরই অবদান। আমার ভিতর অনেক জ্বালা, অনেক দুঃখ। আমি মুখে বলতে না পারি, কালি দিয়ে লিখে যাব। আমি নিজেই একাত্তরের জননী। -রমা চৌধুরী রমা চৌধুরীর জন্ম ১৯৪১ সালে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার পোপাদিয়া গ্রামে। শিক্ষা জীবন শুরু করেন নিজ বিভাগেই। তারপর প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় [ বিস্তারিত ]

ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী

রুম্পা রুমানা ২৬ আগস্ট ২০১৬, শুক্রবার, ১২:০৩:৪২অপরাহ্ন মুক্তিযুদ্ধ ২৭ মন্তব্য
মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, ভালোবাসা জানবেন মা । ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর জন্ম ১৯৪৭ এর ১৯ ফেব্রুয়ারী।জন্ম স্থান খুলনা। বাবা-মায়ের এগারো সন্তানের মধ্যে প্রিয়ভাষিণী সবার বড়। নানা আব্দুল হাকিম ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের স্পিকার হলে তিনি নানার পরিবারের সাথে ঢাকায় চলে আসেন। টিকাটুলি স্কুলে প্রাথমিক শিক্ষা, তারপর সিদ্ধেশ্বরী গার্লসে ভর্তি হন। কিন্তু বাবার ইচ্ছায় ঢাকা ছেড়ে খুলনায় চলে [ বিস্তারিত ]
শায়লা অসুস্থ রোগীর মতো শ্যাত শ্যাতে বন্দীশলার ফ্লোরে শুয়ে তিন হাটু এক করে ঘুমাবার বৃথা চেষ্টায় যেন এই বুঝি তার প্রানটা যায় যায়।বন্দীশলার এক কর্মচারী শায়লাকে কাধে করে পাকিদের স্থান হতে তুলে এনে বন্দীশলায় রেখে চলে যায়।বন্দীশলায় আরো যারা তার পূর্বেই অত্যাচারিত হয়ে বন্দী হয়েছিলেন তারা অবাক দৃষ্টিতে শায়লাকে দেখছেন …একি এতো অল্প বয়সের মেয়েটিকেও [ বিস্তারিত ]
কর্মে আড্ডায় অভিজাত এলাকা গুলসান ছিলো রমরমা যেন কোন এক উন্নত রাষ্ট্রের জাকজমক এলাকা,তা এই মুহুর্তে এক ভূতুরে পরিবেশ লক্ষ্য করা যাচ্ছে।চার দিক এক কেবল উদ্যেগ আর উৎকন্টায় মানুষের ফিস ফিস শব্দ,কি হচ্ছে কি ঘটতে যাচ্ছে জঙ্গিদের দ্বারা জিম্ভি জনতা বেকারি অর্টিজন হোটেলটিতে। সমরের সমস্থ শরির ঘামে ভিজে একাকার সে বার বার মোবাইলের বাটন টিপে [ বিস্তারিত ]
যে জেলার তাঁর জীবন বাঁচিয়েছিলেন, সেই জেলারকে বঙ্গবন্ধু কখনো ভোলেননি। ১৯৭৪ সালের জুন মাসে ভূট্টো সাহেব যখন ঢাকায় আসেন, বঙ্গবন্ধু ঐ জেলারকে তাঁর ব্যক্তিগত অতিথি হিসেবে দাওয়াত করেছিলেন। দেশের জনগনকে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি ও সেনা ছাউনির তলে বসে ক্ষমতা দখলের কুচিন্তায় বঙ্গবন্ধুর নামে তারা কুৎসা রটাতে শুরু করে এই বলে যে, বঙ্গবন্ধু দেশকে দেশকে ভারতের [ বিস্তারিত ]
“মুজিব শব্দটি একটি যাদু” “মুজিব একটি আলৌকিক নাম” পাকিস্তানের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বৃহত্তর দলের নেতা ও জনগনের ভাগ্য পরিবর্তনের নেতা হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তার প্রদেশের বৃহত্তর স্বায়ত্বশাসনের যে ন্যায্য দাবী জানিয়েছিল তা ঐ পাকিস্তানি শাষক গোষ্ঠি না মেনে বঙ্গবন্ধুকে জেলে দেয়। তখনকার বঙ্গবন্ধুর সেই দাবিই বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বাস্তব রুপলাভ করে। কারামুক্তির পর বঙ্গবন্ধু [ বিস্তারিত ]
“দেশের জন্য আমি যা করছি, ও করতে চাচ্ছি, তা কেউ অনুধাবন করল না ” — বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। বঙ্গবন্ধুকে নৃশংসভাবে হত্যা করার যে প্রধান ভূমিকা রেখেছিল, সেই নরখাদক, কলঙ্কময় নামটি হচ্ছে, মেজর ফারুক। মেজর ফারুক তার এই নারকীয় চিন্তাটি প্রথমে তার বৌ এর বড় বোন জোবায়দার স্বামী মেজর খন্দকার আব্দুর রশিদকে জানিয়েছিল। ফারুকের বিবাহ [ বিস্তারিত ]
৭১ সিরিজের বেহুলা বাংলা প্রকাশনী হতে প্রকাশিত ‘অমৃত অর্জন’ উপন্যাসটি পড়তে বসে টের পেলাম মুক্তিযুদ্ধকে কেন্দ্র করে যে সাম্প্রদায়িক আক্রমণ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছিলো, তারই করুন সুর বেজে উঠেছে উপন্যাসটিতে। বরাবরের মতো এখানেও ফুটে উঠেছে, সংখ্যালঘু মানেই নিরীহ গোছের। আর নিরীহ বলেই হয়তো তারা সাধাসিধা জীবনে অভ্যস্ত। আলোচ্য উপন্যাসটিতে দামু এক সহজ সরল গোবেচারা মানুষ। [ বিস্তারিত ]

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ