“মীনান্বেষণ”

শান ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫, বৃহস্পতিবার, ০৪:৪০:৩৩অপরাহ্ন বিবিধ ৫ মন্তব্য

দীর্ঘদিন থেকেই একটি পুকুরে বড়শি বেয়ে চলছি।
আজ অবধি কাঙ্ক্ষিত মীনের সন্ধান মিলেনি।
মীনেরা অনেক হিসেবী, সকল টোপ গিলেনা।
অতি ক্ষুদ্র মীনের চাহিদাও অসীম,যেন তেন সাধারণ টোপে চলেনা।
আমার সমস্যা আবার একটাই-
অতি সাধারণ একটা বড়শিতে,অতি সাধারণ উপাদেয় টোপ।
তাই বড় বাহারী রূপের চিত্তাকর্ষক কোন মীন,
টোপের ধারে কাছে তো আসেই না;
ছোট ছোট মীনেরাও টোপের আশপাশ দিয়ে ঘোরাঘুরি করে,
দেখে শুনে অবশেষে চলে যায়।
মাঝে মাঝে দু’ একবার বড়শির চোঙ তীর তীর করে টেনে নিয়ে গেলেও,
বড়শি উঠালে শেষে দেখা যায়, আসলে কিছুই না,চুনোপুটিদের দুষ্টুমি।
দাঁড়ান,দাঁড়ান কথা বলবেন না –
মনে হয় এবার একটি মাঝারী মীন আমার টোপ গিলেছে,
দেখা যাক একে রসুই ঘরে নেয়া যায় কিনা?
তবে এ পুকুরের বড়শিখোরদের সমস্যা এই-
বড়শি ফেলার আগ অবধি তারা পুকুরে দেখতে পান,
অজস্র মনের মত চিত্তাকর্ষক মীন ঘোরাঘুরি করছে।
কিন্তু বড়শি ফেললেই আর কাঙ্ক্ষিত মীনের দেখা মিলে না!
-এ পুকুরের নাম বিবাহ পুকুর,এ বড়শির নাম বর-কনে বড়শি,
এ মীনের নাম পাত্র-পাত্রী।

৩২৬জন ৩২৫জন
0 Shares

৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ