আমার যত কল্পনাঃ শেষ পর্ব

শামীম চৌধুরী ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:৪৯:৫৫পূর্বাহ্ন গল্প ১৪ মন্তব্য
এক যুগ পর কুদ্দুস বয়াতীর পরিবার এবার ঈদের আনন্দ  নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে পালন করলো। ফারাহ অসুস্থ থাকায় ননদ বানু ও শ্বাশুড়ি মা’ রান্না থেকে শুরু করে সব কিছু নিজেরাই করেছেন। রহিমের অফিস কলিগ ও বন্ধু-বান্ধবদের আপ্যায়নের সময়টায় ফারাহ উপস্থিত থেকে মনোযোগ সহকারে সকলের প্রতি নজর রেখেছেন। ফারাহ কখনই অনুভব করেনি তাঁর একটি অঙ্গ দেহ [বিস্তারিত]
আমি এদেশের একজন ভাড়াটিয়া কাঁদছি। রাষ্ট্র তুমি কি  আমার ভেতরের শব্দহীন কান্না শুনতে পাও? হয়তো পাও! হয়তো বা পাও না। তবু আমাকে যে কাঁদতেই হচ্ছে। আমি বছর বছর ধরে  নীরবে কেঁদেও যাচ্ছি। একসময় নিজেদের বাড়ি ছিল। ছিল চাষাবাদ করার কিছু জায়গা জমিও। আবার একসময় সবই হারিয়ে গেলো। এখন ওইসব নিজের স্মৃতিতেও নেই। এসব অনেকদিন আগের [বিস্তারিত]

পর্বতকন্যের ইতিকথা

প্রদীপ চক্রবর্তী ১৯ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ০৫:০৯:১৩অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
#পর্ব_২৬ পানকৌড়ের দিগন্ত আর পত্ররন্ধ্রে জলধারা যখনতখন মৃগতৃষ্ণা খুঁজতে খুঁজতে হারিয়ে যায় কোন এক লোকালয়ে। তবুও যে যেতে হবে ভ্রমণের শেষান্তে আর নিজ নিজ নীড়ে। শতাব্দীর প্রাচীরে যাদের নাম আজও লেখা শুধু তারা স্মরণীয় নয় বরণীয় বটে। দিকপালের পরিবর্তনে মোহনীয়তার ঘোরে জমেছে কত অনুরাগ। গানের সুরে কত রাগরাগিণী বেমানান হলেও তানপুরাতে যে তাদের ছন্দমিল। পার্বতীর [বিস্তারিত]

পথের খোঁজে পথ//

বন্যা লিপি ১৯ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ০৪:২৫:০৪অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২১ মন্তব্য
পথ হাঁটছে পথের খোঁজে……. শুকনো ধুলো ওড়া ঝরা পাতা উড়িয়ে হাঁটছে পথ। হাঁটছে আঁধারের মিছিল। উপহাসের ধাঁরালো দন্ত, খাপখোলা তরবারির মতো ঝিকিয়ে চলছে কালো অধ্যায়ের শ্লোগান!! হাঁটছে পথ পথের খোঁজে। দূর্বিনীত অবাধ্য ধুলোময় বাতাস শুষে নিচ্ছে নিঃস্বাশের আয়ুস্কাল! বোধ ব্যাধী’র টানাপোড়েনে ওষ্ঠাগত সবুজায়তন। গুণে গুণে প্রহরের পর প্রহর চক্ষু বড় ক্লান্ত দীর্ঘ পথে। আসবে!! আসবে [বিস্তারিত]

ফতোয়া ( উপন্যাসিকা )

মাহবুবুল আলম ১৯ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ০১:২০:১৬অপরাহ্ন সাহিত্য ৭ মন্তব্য
মাহবুবুল আলম বাইরামপুর স্কুলের বিশাল কাঠবাদাম গাছের ছায়ায় সালিশের আয়োজন চলছে। সালিশের জন্য সাত গ্রামের মাতব্বর মুরব্বীদের গ্রাম পুলিশ দিয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আছর নামাজের পর শুরু হবে শালিশ। জাহাজপুর মাদ্রাসার বড় হুজুর মুফতি মাওলানা আজিজার রহমান জাহাজপুরি এরই মধ্যে এসে হাজির হয়েছেন। এসেই উপস্থিত সবাইকে উদ্দেশ্য করে জাহাজপুরি হুজুর বল্লেন,‘আপনারা সবাই ইজাজত দিলে আছরের [বিস্তারিত]
ব্লগার ইঞ্জা সদা হাসিমুখে থাকা, অত্যন্ত বন্ধু ভাবাপন্ন একজন মানুষ। তার লেখা লেখির ভুবন ছিলো ফেইসবুক। ফেইসবুকেই পরিচয় তার সাথে। সোনেলা ব্লগের বিষয়ে আলাপ করার সাথে সাথেই সোনেলায় আইডি করে ফেললেন ৪ বছর ৬ মাস ২৮ দিন আগে। অল্প দিনের মধ্যেই নিজেকে একজন ব্লগার লেখক হিসেবে সোনেলায় প্রতিষ্ঠিত করেছেন। নিজে যেমন লেখেন, অন্য ব্লগারদের মন্তব্য [বিস্তারিত]
  কোন এক বিরল সন্ধ্যায় ঠাটা-মৃত্যুর অভিশাপে ভারাক্রান্ত অন্তঃসত্ত্বা এ হৃদয়, খোঁজে একটুখানি উন্মুখ জানালা; বিনিদ্র রাত্রির শঙ্কায় একটু বাতাস, গলে-যাওয়া চাঁদের হিম-শ্রী হ্রদে খরতাপের অন্তহীন একাকীত্বে। ক্ষণ-জীবনের জল-বৃষ্টিতে নির্বাক বিস্ময়ে ভাবে, কে আর রাখিবে কারে আধার-স্মরণে! আচ্ছন্নের মসৃণ খুশি, অনুপকারী প্রত্যহের ফুটে থাকা কিরণ-কল্পন আফসোসের কারণ, সবেধন-নীলমণি চাঁদ, ফিকে আজ দূর আকাশে স্তব্ধতায় ডুবে [বিস্তারিত]

যে গান শুনেনি কেউ

দালান জাহান ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ০৮:৫২:২৯অপরাহ্ন কবিতা ১১ মন্তব্য
  হে ক্লান্ত পাখি একটি গান শুনিয়ে যাও ফিলিস্তিনের রক্তাক্ত প্রান্তরে যে রমণী কেঁদে ছিলো আকাশ ছুঁয়ে যার আঁচল থেকে জন্মেছিল জ্বলন্ত বারুদের রক্ত গোলাপ ঢেউয়ে ঢেউয়ে উঠে ছিল বেদনার সুর সেই বিষণ্ণ সুরে আমারে কাঁদাও। হে ক্লান্ত পাখি একটি গান শুনিয়ে যাও যে গানের তরঙ্গে কেঁপে পাহাড়ে পাহাড়ে ক্ষুধিত হয়েছিলো পৃথিবীর প্রথম শিলালিপি পর্বত [বিস্তারিত]
এই বিরুপ পৃথিবীতে বাস্তবতার লড়াইয়ে, নিসঙ্গতা ও একাকীত্বের সাথে যুদ্ধে, কেউ জিতে, কেউ মরে। সেই যুদ্ধে গুরুত্বর আহত হয়ে পড়ে আছি। ন্ পারছি সামনে যেতে, না পালাতে। আমি আটকে পড়েছি যুদ্ধের ময়দানে। তবুওতো  তারা ভাগ্যবান,যারা পালাতে পেরেছে। এই বিরান পৃথিবীতে একাকীত্বের সাথে লড়াইয়ে- রক্তক্ষরিত হয়েছে আমার হৃদয়।তবুও তো তারা ভাগ্যবান যারা লড়াইয়ে মরে গেছে। আমি [বিস্তারিত]

মুক্ত হয়েই বাঁচো

খুরশীদা খুশী ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ০৮:৫৯:৩৯পূর্বাহ্ন কবিতা ১১ মন্তব্য
তোমায় হারিয়ে ফেলার কষ্টে আমার কাঁদতে আছে বারণ জানতে কভু চাইনা তবু হারিয়ে যাওয়ার কারণ কোন সে সুখে কিসের আশে হাঁটলে ফিরতি পথে? থাকলো না কেউ ছুঁয়ে দেখার মনের গহীন ক্ষতে! চাইনা তবু তোমার মনে লাগুক ব্যথার আঁচও দিলাম কেটে বাঁধন সুঁতো মুক্ত হয়েই বাঁচো! চোখের পিসি আজকে ভেজে জলপ্রপাতের ধারায় সদাই তুমি ব্যস্ত ছিলে [বিস্তারিত]

এভাবেই নীল খেকো পাখিটি হারিয়ে গেলো

মাসুদ চয়ন ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ০৮:৪৩:২১পূর্বাহ্ন গল্প ২০ মন্তব্য
#ছোটগল্পঃ-এভাবেই নীলখেকো পাখিটি হারিয়ে গেলো// তখন শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে অধ্যয়নরত।কলেজের প্রধান অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম পিপিএম পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত আইজিপি। পুরো মিরপুর ওনার দখলে।ক বললেই কবিতা হয়ে যায়।খ বললেই খুন হয়ে যায়।গ বললেই গায়েব হয়ে যায়,ঘ বললেন ঘুষের গাড়ি উপস্থিত।অথচ তিনিই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা। বয়স কম থাকায় বেশি কিছু অনুধাবণ করতে পারতাম না।জানতামনা একজন আইজিপি কি জিনিস [বিস্তারিত]
দেশের বিপন্ন পাখি প্রজাতির মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিপন্নের তালিকায় রয়েছে শকুন। অতীতে শত শত শকুন নেত্রকোনা ও সুনামগঞ্জের হাওরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা এবং বড় বড় গাছের মগডালে দেখা গেলেও এখন তেমন একটা দেখা মিলছে না। এক সময় শকুন ছিল গ্রামবাংলার চিরচেনা পাখি। সে সময় পশু বা জীবজানোয়ার মারা গেলে দলবেঁধে হাজির হতো শত শত শকুন। [বিস্তারিত]

কবি নজরুল আর আমি

আরজু মুক্তা ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ১১:৪৯:৪৯অপরাহ্ন গল্প ৩৪ মন্তব্য
২০১৩! ভাইয়ের বিয়ে উপলক্ষে মাগুরা যাচ্ছি। মাইক্রোতে করে ভোর চারটায় রওনা হয়ে পৌঁছিলাম বিকেল চারটায়। আনুষ্ঠানিকতা শেষে, পেটপুরে খেয়ে রওনা হলাম সন্ধ্যে ছ’টায়। তখন জানুয়ারি মাস। প্রচণ্ড ঠান্ডা।আমরা সবাই জড়োসরো হয়ে ঝিমাতে ঝিমাতে যাচ্ছি। ঘ্যাঁস শব্দ করে গাড়ি থামলো। এমন জায়গায় গাড়ি নষ্ট হলো।আশেপাশে খেজুর আর তালগাছ ছাড়া কিছু দেখা যাচ্ছেনা। ড্রাইভার বলে, কেউ নামিয়েন [বিস্তারিত]

ফেসবুক কামলা – Work’s at Facebook

তৌহিদ ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ০৬:৪৪:০৯অপরাহ্ন রম্য ৩০ মন্তব্য
আপনারা যারা ফেসবুক কর্মী মানে কামলা খাটেন, তারাতো প্রতিমাসে জুকার অফিস থেকে বেতন পান নিশ্চই। কিন্তু আমরা যারা নিজেরা বছরের পর বছর ধরে টাকা ইনভেস্ট করে মেগাবাইট কিনে ফেসবুক চালাচ্ছি এতদিন হয়ে গেলো, বিনিময়ে ফেসবুক আমাদেরকে এমন কি দিয়েছে ভার্চুয়াল কিছু বন্ধু ছাড়া? আমাদের লেখা, ছবি, বিভিন্ন পোষ্ট অন্যরাও দেখছেন ফেসবুকে। আসলে আপনাদের ফেসবুকতো ফ্রীতে [বিস্তারিত]

রক্তে মিরজাফর

ইঞ্জা ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ০৩:০৮:২৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৫ মন্তব্য
খবরঃ স্ত্রীর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে বখাটেদের হাতে মার খেলেন ‘প্রধানমন্ত্রী গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত’ মেধাবী একজন শিক্ষক। তিনি রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষক রাশিদুল ইসলাম। রাজশাহী শহরের জনবহুল এলাকা সাহেববাজার মনিচত্বরে এ ঘটনা ঘটেছে ১০ আগস্টে। বিষয়টি সেদিনই নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেন ভুক্তোভোগী শিক্ষক। ঘটনার সময় সময় আশপাশে [বিস্তারিত]

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ