ক্যাটাগরি কবিতা

শশ্মানে শিশির বিন্দু

এজহারুল এইচ শেখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩, শুক্রবার, ০৯:৪০:৩১অপরাহ্ন কবিতা ৫ মন্তব্য
বিবশ রজনীতে আমি পথ খুঁজেছি তোমার, খাল -বিল বন্ধুর মাঠ পেরিয়ে গাড়ির নেমপ্লেটে, আমি তোমার নাম জানতে ছেয়েছিলাম! চুন-সুরকির দেওয়ালে চুয়ে পড়ে রোদ, চোখে ঝাপ পড়া বিড়ালের সজাগ কানে বসাবো বলে! যোনিমুখের ফিনকিবাধা রক্ত কালের ধোয়াঁটে জমেছে পলি, গঙ্গার গর্ভে শকুন-নাকে মিথেনের গন্ধ! বালিকা-মেঘের কান্না, শুক্নো তালপাতায় ভাঁজে বদ্ধ! শিকেয় মা হাড়ি না তুলে রাত্রি [ বিস্তারিত ]
নীল আকাশের বুকে, কসাঁই দ্রোপদীর সতীপর্দা কাঁটে, পাতে সারা আকাশ জুড়ে সামিয়ানা! কোথাও কোনো রোদের দেখা নেই, রোদ খায় মেনিনজেশের তলায় লুকিয়ে থাকা এক ঢেবা পোকা! উস্কো- খুস্কো মাথা চুলকে চুলকে চোখদূটির পীতবিন্দু মডার্ন কবি ধারে দিয়েছে মাকড়সার ফাঁদে সেই আদিকাল থেকে,চক্রবৃদ্ধিতে সকালে বিলিয়নডলার, চায়ের কাপে আর লাল কার্পেটে বেশ কুড়মুড়ে খাস্তা শকুন্তলার লোনা জল! [ বিস্তারিত ]

ব্লটিং পেপার

এজহারুল এইচ শেখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১২, সোমবার, ১২:১৪:২৪অপরাহ্ন কবিতা ৫ মন্তব্য
শালা ব্লটিং পেপার! ভালো জিনিস ঢাললেও ভালো! খারাপ আঁকলেও ভালো! সামনেই থার্মল পাওয়ার! যত অঙ্গার-কলঙ্ক ঢালো সব সফেদ হয়ে ওড়ে! জিগোলরা সব মানুস হয়ে, কবিতার পাড়ায় আড্ডা পড়ে! থার্মল পাওয়ারের পাশে, ভাগ্নির ভাঙা বাড়ি! ছেলে ফর্সা!ভাগ্নি কালো! ভাগ্নি এখন বাড়িতে! কি রে মামা আর কদ্দিন? দেখ এ বার তোদের দিকে দেখ! না ওদিকে তোর জন্য [ বিস্তারিত ]

রঙ চাই

নীলাঞ্জনা নীলা ২৮ ডিসেম্বর ২০১২, শুক্রবার, ০৮:১৮:৫৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১৬ মন্তব্য
ছবি আঁকা হবে , তাই রঙ চাই ওই রঙ-এর জন্ম কারখানার বন্ধ-ধোঁয়াটে পরিবেশে নয় গাছের পাতা থেকে নেবো সবুজ আকাশ দেবে নীল মেঘের থেকে কালো মাটি দেবে পিঙ্গল বেলী ফুলের থেকে সাদা আর লাল নেবো এই শরীরের সতেজ রক্ত থেকে তারপর চিত্রকরকে দেবো এমন পেইন্টিং পেপার প্রকৃতি এবং রক্তের রঙ মিশিয়ে তোমার ছবি আঁকা হবে [ বিস্তারিত ]
এইটা হল আমার দাদির কবর! ঐ হল আমার দাদা, শুয়ে আছে!শহরের মর্গ না!বা বৃদ্ধাশ্রম!আর এই যে সবুজের মায়ায় জড়ানো রোদের হাসিতে,হিজল-পলাশ-শিমূলের কোলে,দোয়েল নাচে কোয়েল আমার দাদির গান গায়! দাদা,অলক্ষ্য বাতাচে মুচকি হাসে, ফিঙে শোনে আর বাবুই দাদির নকশীকাঁথা বোনে! এই হল আমার স্বর্গ,কল্লোলিনী কংসাবতীর আঁচলে ঢাকা সবুজ বাঁশ বাগানে! দাদা নাকি দাদির জন্য কৃষনচূড়ার ডালে, [ বিস্তারিত ]
আজকের দিনটা এই কারনে বিশেষ করে মনে পড়ে, তোমার হাতে আমার কেকটি আছে তাই! তোমার চোখের মেটাফরমিকের চাদর সরিয়ে, আমি তোমার হাতে হাত রেখেছি! আজকে সেই ..... আমি কান্তা, তুমি এটা জানো! কিন্তু আজকের দিনের আমি তোমার সান্তা! মানির কোনো প্রয়োজন নেই,প্রয়োজন বানীর! আজকে যদি তোমার কাছে না পাই, স্ক্রীন সটে দেব! ওয়াল স্ট্রিটে এখন [ বিস্তারিত ]
তনুশ্রী মেয়েটা বেশ!ও ইলুমিনেশনস খুব একটা পছন্দ করে না! মানিয়ে চলাটা ওর ভীষণ বড় দোষ!তবে ও ধনুচি নাচটা খুব ভালো একটা জানে না! স্যার আমাদের জুলজিতে আদি থেকেই অভ্যস্ত!প্রথম থেকেই ডান দিকে,ওকে ডান হাতের আগলে রাখতো! আর আমাকে বাঁ দিকে,আমার চোখে সেন্সার লেন্স তাই! ভুল করে একদিন আমি ডান দিকে বসি! ও তখন আমার জায়গাটা [ বিস্তারিত ]
আমায় তুমি খুন করেছো গুম করেছো, ঘুম কেড়েছো স্বপ্ন দেখার সাধ কেড়েছো মাঝ পথে দু-হাত ছেড়েছো রক্ত মাখা হৃদয় খানি ইচ্ছে করেই- আচ্ছা মতো হ্যাঁচড়া টানে বের করেছো! তবু, ছ্যাঁচড়া আমি তোমার পানে তাকিয়ে তাকি স্মৃতি মাখা অম্ল মধুর দিনগুলোর সব আগলেই রাখি। আগলে রাখি বিলীন হওয়া হাওয়ায় মেশা মুখের হাসি খুব যতনে সঙ্গোপনে বলছি [ বিস্তারিত ]

কলমিফুল

এজহারুল এইচ শেখ ২১ ডিসেম্বর ২০১২, শুক্রবার, ১০:১৮:২৯অপরাহ্ন অন্যান্য, কবিতা, বিবিধ, সমসাময়িক, সাহিত্য ৬ মন্তব্য
আমি দাঁড়িয়ে,ও আমার পাশে দাঁড়িয়ে! ওর সঙ্গে আমার বেশ ফুচকার শরীরে একটা মিল আছে! যে কেউ আমাদের ঝাল-আর লবন গোলা জলে, রাস্তা ঘাটে বেশ কুড়-মুড় শব্দে, সকাল বিকেল মজা করে আমাদের খেতে পারে! ওর মস্তক আদিযুগের ঢেবা কম্পিউটার বাক্সে বন্দি,পিথাগোরাসে আমার বন্দি! কিন্তু দুজনের জামা একটা দড়িতে শুন্যে ঝোলে - মোরাল ভেলু! তাই দুজন মিলে [ বিস্তারিত ]
মাঝখানে আমি ঘুমিয়ে আছি!দুইপাশে কে?মা আর বাবা!এইভাবে আমি অনেক রাত ঘুমিয়েছি, জন্ম থেকেই!রাতেরবেলা যখন আমি কেঁদে উঠলে,মা যদি জেগে থাকে ,মা আদর করত!না হয় বাবা গায়ে হাত বুলিয়ে আদর করে ঘুমপাড়াতো! গভীর খাদে দুইকূলের আদোর পেতে পেতে আমি মধ্য গতিতে এসেছি!আবার মাঝে মাঝে বাঁধ পেরিয়ে নাব্যতাটুকু হারিয়েছি!এখানে দু পাড় ভাঙা! সবাই যাকে দামোদর বলে,সেটা হল [ বিস্তারিত ]
পূর্ব আকাশে রবি সবে জায়নামাজ পেতেছে,প্রভু ঘরে তখন ঢোকেনি!আমার তখন ভোরের ঘুমের মায়ায় নাক ডাকে!ধানের শিশ থেকে যেন ভোরে ধান ছাড়াছে মেশিনে! হঠাৎ মায়ের ডাকগুলো আমার কানে এসে ঝাপ্টা মারে,আর এই ভাবে কদ্দিন!নামাজ কালাম কর,আল্লার কাছে সবাইকে যেতে হবে! মা, এখন আমি তোমার ছোট্টোবেলার কর্নের সঙ্গে যাবো!বেচারা কর্ন ছেলেটা বেশ!ওর সঙ্গে ছোট্টোবেলা থেকে আমার বেশ [ বিস্তারিত ]

স্বপ্নদোষ@ এজহারুল এইচ শেখ

এজহারুল এইচ শেখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১২, বৃহস্পতিবার, ০৩:৫০:০১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৭ মন্তব্য
উপর থেকে নীচ, রাজার পেছোন ভেজা! পায়ের তলা দিয়ে, মাঝে মাঝে আবার উষ্ন জল গড়ায়! বলতে গেলেই সবার, ভীষণ নাকি স্বপ্নদোষ! রাজা হল প্রভুর দূত! রাজার খাওয়া- দাওয়া,চলন-ঢলন, সব প্রভুরই দেওয়া! ভক্তি-ঞ্জানে মানো প্রজা, তবেই হবে প্রমেশ্বর খোঁজা! না মানলে ঘরে মাৎসন্যায়, সাত-জন্মের স্বর্গের অপব্যয়! কোথায় আছে লেখা?সবাই খোঁজে, এ-পুথি ও -পুথি! শুধু চাঁদের গায়ে [ বিস্তারিত ]
হাওয়ায় উড়া এ'মন আমার উড়ছিলো ত বেশ, কেবা জানতো ক'দিন পরে সবই হবে শেষ। শেষ হয়ে যায় সকল কিছুই শুরু হলে তবে, রেশ রয়ে যায় নিগূঢ় ভাবে মিথ্যে অনুভবে। বমি করে উগলে ফেলি অনুভূতি যত, সান্ত্বনারই প্রলেপ মেখে ঢাকছি বুকের ক্ষত। জবরুল আলম সুমন সিলেট। ১০/১১/১২  
তোমার বিলেতি পোশাকের অর্ধনগ্ন শরীর, ডাইনি চোখের চাহুনিতে, আমার নীলআকাশে মেঘের আনাগোনা আর তেমন দেখা মেলে না! পশ্চিমীবায়ুর পশ্চিমীঝঞ্ঝায়, সকাল-বিকেল হড়কা বানের ভয়, সারা শরীর বেয়ে নামে শীতের কুয়াশায়! রাত গভীরে ঘুমের চাঁদরে অকালে ঝরে পড়া শিঊলির জন্য, সিন্ধুনদের দুঃখগুলো বিন্দু বিন্দু জমে, ভোরের আলোয় আমার কচিঘাসের চোখের কচিপাতায়! আমার প্রাচীন সাদাবক শক্ত ঠোঁটে , [ বিস্তারিত ]
চারিদিক হাহাকার! চারিদিক তৃষিত ভুমির বুকফাঁটা নিশ্বাস!মাথার উপর উত্তপ্ত দুপুর আমার ! মরুর বুকে ভাঙ্গাবাড়ির দেওয়ালে ,সবুজ শ্যাওলা জমে! ঝড়ের বুকে ধেয়ে আসা কাঁটা কাঁটা কয়েকটি শব্দে, ''কি রে? কেমন আছিস? বল'' মাঝে মাঝে আমার এলোমেলো শশ্মানের দিকে চোখ পড়লেই,আৎকে উঠি আমি! দম বন্ধ হয়ে আসে,নির্জন ভাঙ্গা ঘরে! যেন জীবন্ত লাশ বয়ে যায় সময়ধারায় ! [ বিস্তারিত ]

সংরক্ষণাগার

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ