ঝরাপাতা-২

সোনেলা দিগন্তে জলসিঁড়ির ধারে ২ নভেম্বর ২০১২, শুক্রবার, ১১:৪৫:৩১পূর্বাহ্ন বিবিধ ১৭ মন্তব্য

অরিত্র,
এইসব হেমন্তের রোদেলা ভীষণ
একাকি দুপুর গুলোতে আমার খুব
ইচ্ছে করে তোমায় নিয়ে নিরুদ্দেশ হতে,
শহরের এই ভীড় এড়িয়ে কোন
প্রাচীন ঝুড়ি নামা বটের ছায়ায়
বসে থাকতে ইচ্ছে করে।

তুমিতো জানো বটের ছায়া আমার বড্ড প্রিয়
রোদ গড়িয়ে যখন প্রকৃতি নরম বিকেলের ছোঁয়ায়
আরো নরম হয়ে উঠবে তখন
দুজনে রেল লাইন ধরে হেঁটে যাব
লক্ষহীন ভাবে।
শিশিরের শব্দের মতন ঝুপ করে নেমে আসা সন্ধ্যায়
যদি খুব চায়ের তেস্টা পেয়ে যায়
তো বসে পড়ব গ্রামের কোন টং এর চা স্টলে।

গ্রাম গুলোতে গভীর রাত
হতে খুব বেশী সময় লাগেনা
ঝিঁঝিঁ পোকা আর পেঁচা ডাকে গভীর রাতে
কোন খোলা মাঠে বসে
আঁধারে জোনাকিদের ওড়াওড়ি দেখে রাত ভোর করে দেব।

জানো অরিত্র
ভেতরে ভেতরে আমি সবসময়ই যাযাবর
মাঝেমাঝেই ইচ্ছে করে খালি পায়ে হেঁটে হেঁটে কোন
পাহাড়ে চলে যাই,
কিংবা একটা কিংবা একটা ট্রেনে চড়ে বসি
আমার কোন নির্দিষ্ট গন্তব্যস্থান নেই,
ট্রেনটা যেখানে গিয়ে থামবে আমিও
সেখানে নেমে পরব।

আমার খুব নিরুদ্দেশ
হতে ইচ্ছে করে অরিত্র।

৩০৯জন ৩০৯জন
0 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য