যদি আজ এই মুহূর্তে ছুঃ মন্ত্র দিয়ে উপর থেকে কেউ আপনাকে বর দিয়ে বসে, আজ থেকে তুমি অমর; কি করবেন তখন?
আমি হলে একটা একটা করে যতো দস্যিপনা আছে সব করতাম, চলন্ত ট্রেনের ছাদের চড়তাম, নারকেল গাছের মাথায় উঠে যেতাম তরতর করে, আরও অনেক অনেক… তারপর … মাস, বছর, যুগ… তারপর… একটা একটা করে সময়ের স্বাক্ষি হতাম… তারপর…
কেউ কি তখন গান লিখতো, “ও কারিগর দয়ার সাগর, ওগো দয়াময়, চাঁদনি পশর রাইতে যেনো আমার মরন হয়” … ?
কিংবা “পরান পাখি উইড়া গেলে মাটিই হইবো ঠিকানা”?
মৃত্যু ছাড়া জীবন, না জানি সে কেমন জীবন …
Tuck everlasting মুভিটির গল্পের সার সংক্ষেপ এটাই।


কোন এক বসন্তে পুরো tuck পরিবার একটি গাছের ভেতর দিয়ে বয়ে যাওয়া পানি পান করে, একসময় তারা বুঝতে পারে তারা অমরত্ব লাভ করেছে… এই পরিবারটির সাথে পরিচয় হয় winnie নামের ১৫ বছরের একটি মেয়ের… মেয়েটি একসময় ভালোবেসে ফেলে পরিবারের ছোট ছেলেটিকে আর ছেলেটিও।। winnie ও একসময় জেনে যায় এই পরিবারের অমর রহস্য .. ছেলেটি বছরের ঠিক অই সময়ে তার সাথে দেখা করবে ঠিক অই গাছের কাছে, winnie কে অমর হবার অনুরোধ জানিয়ে ছেলেটিকে চলে যেতে হয়।
মুভিটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় অংশ টুকু হচ্ছে ছেলেটির বাবা যখন winnie কে বেঁচে থাকার আসল সৌন্দর্য টুকু বুঝিয়ে বলেন।।

Do not fear death,
but rather the unlived life.

winnie কি করবে সেটা কিন্তু আর বলছিনা, শেষ অংশটুকু আমার অনেক বেশি প্রিয় ।।

এবার মুভির কিছু মেশিনারি কথাবার্তা : এটি একটি শিশুতোষ নভেল থেকে নেয়া গল্প। মুভিটি দুবার তৈরি করা হয়েছে, একবার ১৯৮১ সালে, এটি আমার দেখা হয়নি, তবে চাইলে দেখে নিতে পারেন, নীচে ইউটিউব লিঙ্ক দিয়ে দিলাম ।

full movie (1981) 

২০০২ সালে আবার তৈরি করা হয়ঃ-


Director: Jay Russell
Writers: Natalie Babbitt (novel), Jeffrey Lieber (screenplay),
Stars: Alexis Bledel, Jonathan Jackson, Sissy Spacek |
অনলাইন স্ট্রিমিং টা এখানে পাবেন

সব কথার শেষ কথা, এমন একটা অমর হবার সুযোগ যদি আমি পাইতাম 🙁

৫০২জন ৫০২জন
0 Shares

২৮টি মন্তব্য

  • মা মাটি দেশ

    পেয়ে যাবেন এবার ফেবু সোনেলায় সেই মহাঔষধ আছে।যোগাযোগ করুন মেলবর্নে,সিডনিতে খুজঁছে অমরত্ত্বের সূত্র জিসান ভাইয়া।এক বার চিন্তা করুনতো যদি মানুষ অমর হতো তখন থাকার যায়গা কোথায় দিতেন।

  • ছাইরাছ হেলাল

    অবশ্যই অনেক অনেক ধন্যবাদ , আমাদের পথ দেখানোর জন্য ।
    স্লো নেট স্পীডের জন্য হুটহাট মুভি দেখতে পারি না । ডাউনলোড করে দেখি ।
    ইউটিউবের মুভি দেখি না , কোয়ালিটি আমার পছন্দ হয় না ।
    সব থেকে ভাল হয় আপনি যে মুভিটি নিয়ে লিখবেন তার দিন দুয়েক আগে শুধু নামটি বলে দিলে আমি
    ডাউনলোড করে দেখে নিলে আপনার লেখায় কথা বলতে সুবিধে হবে ।
    কিছু রিভিউ পড়লাম ও ডাউনলোড দিলাম , দেখি কখন শেষ হয় ।

  • মশাই

    সত্যি করে বলুনতো পরীক্ষা দিতে গিয়েছিলেন নাকি মুভি দেখেছেন? তবে যাই করুন নূতন কিছু পেয়ে ভাল লাগছে। ফাঁন্দে পড়িয়া এখন আমার কাঁন্দার অবস্থা হইছে। এখনতো এই মুভি আমাকে দেখতেই হবে। মনে কি এই ছিলো আপনার মনে যে সোনেলা বাসীকে এখন মুভি দেখার জন্য টেলিভিশন, কম্পিউটার-এর সামনে বসিয়ে রাখবেন? সমস্যা নিয়ে বসে থাকবো তারপরও আপনি চালিয়ে জানি। শ্রদ্ধেয় হেলাল ভাইয়া ঠিকই বলেছেন রিভিউ নিয়ে আলোচনা করতে হলে আগে মুভিটি দেখে নিলে ভালো হয়। অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনাকে লেখার জন্য এবং সম্ভব ভাবে উপস্থাপনের জন্য।

    • শুন্য শুন্যালয়

      কে দিব্যি দিলো আপনাকে দেখতে, না হয় ঘাপটি মেরেই থাকুন। 🙂 মুভি দেখেছি এটা অনেক আগে, আর হ্যাঁ পরীক্ষা যে দিয়েছি তাতে কোন সন্দেহ নাই, বড়ই করুন সেই অভিজ্ঞতা। দেখে ফেললে কিন্তু ভালোই লাগবে, আর না দেখলে অই যে হা করে বসে থাকবেন বলেছিলেন, তাই না হয় বলবত থাকুক ।। শুভেচ্ছা মশাই।

      • মশাই

        এ বড়ই বেরসিক, মর্মান্তিক, কর্কশের গাঢ় রসে থেকে সদ্য চুঁবিয়ে অসহ্য কথা বললেন। কেউ দেখে দেখে যখন গল্প করে তখন অনুসরণের বর পাওয়া লোকের কি আর দেখার ইচ্ছে না জেগে পারে? আচ্ছা আচ্ছা আপনি যে মুভি দেখার পোকা তা বুঝতে পেরেছি অবশ্য আরো একজন আছে এখানে যে বলা মাত্রই ডাউনলোড করে নাকি দেখাও শেষ করে ফেলেছে। থাক থাক আপনাদের কথা শুনেই আমার দেখা হয়ে গেছে তারপরও যদি কপালে থাকে কোনদিন দেখে নিবো। আর পরীক্ষার করুণ অভিজ্ঞতার আড়ালে মজার কি লুকিয়ে ছিলো সেটাই বলে ফেলুন।

        শুভেচ্ছার বদলে চিনি ছাড়া এক কাপ চা দিলেও মন্দ হতো না। -{@ -{@

      • শুন্য শুন্যালয়

        পরীক্ষার করুন অভিজ্ঞতার আড়ালে মজার কি লুকিয়ে ছিলো, আরে বাপরে আপনারও কি তাহলে সেই ড্যাব ড্যাব করা চক্ষু গজিয়ে গেলো নাকি? হুম হুম মজার কিছু ছিলো কিন্তু, কিন্তু বলবো কেনো? 🙂
        শুভেচ্ছা পেয়ে পেয়ে বাক্স ভরে গেছে বুঝি? আর এতো স্বাস্থ্য সচেতন কবে থেকে হলেন, চিনি ছাড়া চা ।। অবশ্য আপনি যে একজন বিখ্যাত ডাক্তার তা আমরা ইতিমধ্যেই জেনে গেছি 🙂
        এই নিন চা পাতা ছাড়া চা… :T

  • ব্লগার সজীব

    মুভি রিভিউ এত চমতকার হয় জানা ছিলোনা। রিভিউর শুরুটা ভিন্ন ভাবে করলেন। মুভি দেখে রিভিউর আলাপ। রিভিউ পড়ে মুভি দেখার আগ্রহ টা জাগ্রত করলেন। আপনি দেখি চ্যাম্পিয়ন। সব কিছুতে দখল আছে।

  • মশাই

    যেই আমি বের হয়ে এসেছি সেই আপনি উকি দিয়েছেন। খুব ভালো টেকনিক। শুনুন চা, পানি, ডাল, ভাত কিছুই খাবো না সেই দুশ্চিন্তায় রাতের ঘুম হারাম করবেন না। শ্রদ্ধেয় হেলাল ভাইয়া অবশ্য একটু চা খেতে চেয়েছিলো তবে তা কি আর সম্ভব অন্যের বাড়িতে এসে নিজে চা করে খাওয়া? থাক এখন থেকে নিজেই ফ্লাক্সে করে চা কফি নিয়ে আসবো তারপরও……………………

  • জিসান শা ইকরাম

    মুভিটি ডাউনলোড করা আছে ।
    কিন্তু দেখা হয়নি ।
    দেশে গিয়ে দেখতেই হবে – এত সুন্দর রিভিউ পড়ে মুভিটি না দেখা অন্যায় হবে ।

    প্রতিভা প্রকাশ পাচ্ছে ধীরে ধীরে
    মুগ্ধ হচ্ছি আপনার প্রতিভার এক একটি শাখা দেখে ।

    আপনার সমস্ত ইচ্ছে পুরন হোক –
    শুভ কামনা ।

    অঃকঃ আপনার ইচ্ছে ছড়িয়ে যাচ্ছি মানুষের মাঝে 🙂
    ইচ্ছে মনে হয় একটি সংক্রামক রোগ ( পুষ্পবতীর লেখা )

    • শুন্য শুন্যালয়

      আপনি কোথা থেকে এলেন, কেমন একা একা ঘুরে বেড়াচ্ছেন আমাদের রেখে 🙁
      না বাবা, অমর হবার ইচ্ছে পূরন না-ই হোক, এমনিতেই জীবন টা একটু বেশিই লম্বা মনে হয় ।
      আমার ম্যালা প্রতিভা, প্রতিভাবান মানুষের চোখের এই এক সমস্যা, সবাইরে তা-ই দেখে :p
      ভালো থাকুন ।

  • মশাই

    ড্যাব ড্যাব করা চক্ষু না গজিয়ে আর উপায় কি? যা শুরু করেছেন শেষে দেশান্তর হওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই। বিখ্যাত ডাক্তার হতেই হলো শেষ পর্যন্ত যেভাবে মানুষেরা মুভি দেখা শুরু করেছে তাদেরকে পরামর্শ না দিলে কিভাবে হবে? একই অনুরোধ যা শ্রদ্ধেয় হেলাল ভাইয়াকে করে আসছি যে মুভির রিভিউ না লিখে সম্পূর্ণ মুভির বর্ণনা দিলে কিন্তু অনেক ভালো হয় আমাদের মত অপদার্থ দের জন্য তবে কথা দিচ্ছি শুভেচ্ছা জানাতে কিপটামি করবো না। আচ্ছা আপনি এক কাজ করলেও কিন্তু পারেন একটা স্ক্রীপ্ট লিখে ফেলেন। আর শুনুন চিনি ছাড়া চা চেয়েছি বলে পাতি ছাড়া চা দিবেন? যাইহোক গরম পানি পান করে ফেলবো চা মনে করে কিন্তু দেখবেন আগুন দিয়েই গরম করে আনবেন বরফ দিয়ে না। ধুর!!! এই মুভি শেষ পর্যন্ত পাগল করলো আমার অকচ মাথাকে।

    • শুন্য শুন্যালয়

      আবার কোন দেশে দেশান্তরিত হতে চান? শুনুন মুভি রিভিউ দেখে মাথা খারাপ করার দরকার নেই, আপনার মতো শব্দের পাহাড় থাকলে তাই নিয়েই ব্যস্ত থাকতাম, কবিতা পড়ছিনা কিন্তু অনেকদিন। জলদি দিন। আর হ্যা আপনি চাইলে হরর মুভি রিভিউ দিতে পারেন। 🙂 কোল্ড টি কিন্তু অনেক জনপ্রিয়, আর চাপাতা ছাড়া ট্রাই করেই দেখিনা কি হয়, গিনিপিগ তো আপনি হবেন, আমি না 🙂 শুভ রাত্রি।।

  • অলিভার

    চমৎকার রিভিউ (y)
    এবার দেখতেই হবে।

    Do not fear death,
    but rather the unlived life.

    লাইন দুইটির জন্যেই দেখতে হবে। একটা লাইন বলার মাঝেও অনেক জিনিষ চলে আসে। মুভিটা বলার জন্যে মনে হয় এই দুইটা লাইনই যথেষ্ট।

    ধন্যবাদ রিভিউটার জন্যে 🙂

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ