দ্রুত মিলানোর বুদ্ধি আবিস্কারঃ খুব যত্ন সহকারে আমি এইটা ব্যবহার করি। কিন্তু গতকাল খেলতে গিয়ে দেখি চারটা স্কয়ার আমার হাতে খুলে চলে আসলো 🙁 আমার খুব খারাপ লাগছিলো। বলা চলে কান্না পাচ্ছিলো। কারন এটা আমর খুব পছন্দের একটা জিনিস। আর এটার ভালো টা ঢাকা বা রাজশাহী ছাড়া পাওয়া য়ায় না। সেই খারাপ লাগার অবসান ঘটেছে [বিস্তারিত]

আর জনমে- নীল পোট্রেট

পাগলা জাঈদ ২৯ অক্টোবর ২০১৪, বুধবার, ১০:০৫:১৫অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
বুক পকেটে সুখ জোছনা , সব দিয়েছি – চোখের তারায়, হাজার ফুলের নির্যাসে তোর ধিক্ִ কিনেছি – কি আসে যায় ? ধূপশিখা প্রেম ঢল দিয়েছি, পাইনি কিছুই – বাদল মনে, তোর ঠোঁটে প্রাণ, নীল হাসি গান দেখবো, থাকি – সংগোপনে। পঙতি বিলাস, সুর ছুড়েছি বিষুব রেখায় – নোনতা জলে, অবাক সকাল, রোদ, গোধূলি ভুল ঠিকানার [বিস্তারিত]
ছাদের কার্নিশে একা একা হাটছি, ইচ্ছে করছে রেলিঙের উপর দিয়ে হাটি, আমার তাই করা উচিৎ, এতে আমার দুইটা কাজ হবে, এক হয় আমি বেচে যাবো, জীবনে কোনো কাজ না জানলেও মানুষকে সার্কাস টাইপ অদ্ভুত একা খেলা দেখিয়ে কিছু আয় ইনকাম করা যাবে, নয়তো মরে যাবো, উকি দিয়ে ছাদ থেকে নিচে তাকালাম, সাম্ভাব্য উচ্চতা ১১০ ফুট, [বিস্তারিত]

কি নাম দেবো স্ব-দেশ তোমায়

মনির হোসেন মমি ২৯ অক্টোবর ২০১৪, বুধবার, ১১:৪৬:৪৪পূর্বাহ্ন কবিতা, সমসাময়িক ১৪ মন্তব্য
লাল সবুজে শকুনের বস বাস সূরে কি হবে পার কলংকের ইতিহাস ক্ষমতার দাপটে স্বাধীনতা অন্ধকারে স্বাধীন কামীরা আজ শকুনদের ভ্রাতৃত্ত্ব ভাবে। জন্মান্তরে ভাবিনি কভূ কাচের ফ্রেমে বাধাঁ হবে আমাদের স্বাধীনতা দোষীত বীজের বিষাক্ত ছোবলে মা আমার কাদঁবেন জন্মের জন্মান্তরে। কিসের মোহে রক্তে ভিজেঁ ছিল বোনের বদন কিসের তরে লক্ষ প্রানের আত্ত্ব ত্যাগ স্বাধীনতা! তুমি বড়ই [বিস্তারিত]

এক চিলতে হাসির জন্যে বাঁশির সুর….

অলিভার ২৯ অক্টোবর ২০১৪, বুধবার, ০৩:২২:২৭পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৪ মন্তব্য
  দীর্ঘসূত্রতার মানে বোঝ বালিকা? দীর্ঘসূত্রতা হচ্ছে ক্লান্ত দুপুরে তোমার জন্যে অপেক্ষা; যেই অপেক্ষায় ক্লান্ত রাখালের মন তোমাকে নিয়েই স্বপ্ন বুনে যায়….. দীর্ঘসূত্রতা মানে অলস বিকেলে রাখালের বাজিয়ে যাওয়া বাঁশির সুর; যেই বাঁশির সুরে থাকে আহবান শুধু তোমারই জন্যে….. দীর্ঘসূত্রতা হল শীতের রাতে উঠোনে বসে একলা মনে ভোর হতে দেখা; যেই একলা রাত্রিটার একাকীত্ব শুধুই [বিস্তারিত]
#১ বুকের ভেতর একটা জারুলের বন ঢুকে পরে – একটা ঘুঘু ডাকা বিরান দুপুর। বুকের ভেতর একটা মরা জোছনার রাত নেমে আসে – আনমনা বেজে যায়, বেসুরো ছন্দে একগাছি মায়াবী নূপুর।   #২ সেই কবে শেষ জেগেছিল পত্ররাজি বুনো ফুলের গন্ধমাখা হাওয়ারে ছোঁয়ার উল্লাসে, সেই কবে জেগেছিল তৃষ্ণা যেদিন মেঘেরা শেষবার ছুঁয়ে ছিলো জল ; [বিস্তারিত]

অসুন্দরের গল্প

রিমি রুম্মান ২৮ অক্টোবর ২০১৪, মঙ্গলবার, ০৭:৪৫:১১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৪ মন্তব্য
আমার অনুমান যদি ভুল না হয়, রাহেলা আপুর বয়স পঞ্চাশ প্লাস। অবিবাহিতা। স্বভাবগত কারনে নিজ থেকে কারো একান্ত বিষয়গুলো জানতে চাই না কখনো আমি। কর্মসুত্রে পরিচিত আপুটার সাথে আমার সখ্যতা বেশ। অমায়িক ব্যাবহার আর নিজস্ব এক ক্ষমতায় সবাইকে কেমন যেন মোহাচ্ছন্ন করে রাখতো। তিনি যখন কথা বলেন, আমি তার মুগ্ধ শ্রোতা। লাঞ্চ ব্রেকে একদিন বললেন [বিস্তারিত]

মহাসড়কে জীবনের গল্প

পাগলা জাঈদ ২৮ অক্টোবর ২০১৪, মঙ্গলবার, ০৬:১৮:০১অপরাহ্ন বিবিধ ১৮ মন্তব্য
কোথাও একটি পাপিয়া কাঁদছে, শরতের রাতে কেউ কেউ খোঁজে নস্টালজিক প্রনয়- নব বধু ফেলে আসা কোন এক ট্রাক ড্রাইভারের হাসিমুখ। সেখানে ভিত গাঁথে না উত্তরাধুনিক কবিতার বুনিয়াদ, ব্যাকরণ ফিকে হাসে হালকা কুয়াশায় কাব্য নিথর হয়ে ওঠে জীবনের ঘ্রাণে। কুলিদের ঘাম- চায়ের কাপে নকশা আঁকে সস্তা সিগারেটের ধোঁয়া ক্ষুধাই হোক ভালবাসার বিমুগ্ধ ব্যাঞ্জন! ঠিক তখনই- ঠিক [বিস্তারিত]

জানাজা

নাঈমা নাসরিন নিপু ২৮ অক্টোবর ২০১৪, মঙ্গলবার, ০৫:৪৭:১২পূর্বাহ্ন বিবিধ ১৬ মন্তব্য
আমাদের বরিশালের অদূরে চরমোনাই নামক একটা গ্রাম আছে। গ্রামটি মোটামুটি রকম বিখ্যাত। কারন চরমোনাইর পীর সাহেব।পীর সাহেবের বিশাল আস্তানায় সুরম্য অট্রালিকা আর বিত্ত বৈভবের ছড়াছড়ি। এখানে কয়েক হাজার গরীব এতিম ছাত্র পড়াশোনা করে। কি যে পড়াশোনা করে তা আমি বলতে পারবানা। কারন সারা বছর এই ছা্ত্র্ররা হুজুরের রাজনৈতেক আর অর্থনৈতিক কাজেই ব্যস্ত থাকে। হুজুরের সমস্ত [বিস্তারিত]

সাময়িক পোস্ট : সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি

সাতকাহন ২৭ অক্টোবর ২০১৪, সোমবার, ১১:৪৩:৫৫অপরাহ্ন বিবিধ ৮ মন্তব্য
সবার জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি, নেতাজী সুভাষ বসুকে নিয়ে আমার রিসার্চ ওয়ার্কটি কি এখানে ধারাবাহিকভাবে পোস্ট করতে পারবো, বা পোস্ট করলে সেটা কি আপনাদের পাঠের জন্য উপযুক্ত হবে? যদিও রিসার্চ ওয়ার্কটি সম্পূর্ণরূপে কাঠখোট্টা টাইপের এবং রসহীন, তবুও আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই। পুরো রিসার্চ ওয়ার্কটি পোস্ট করতে হয়তো আমার বছর খানেক অথবা তারও বেশি সময় লাগবে, [বিস্তারিত]
ঐ সোডিয়াম বাতির আলোতে এতো মায়া কেন ? বদলে যাওয়া পোশাকের রঙে… অপরিচিত মুখের ভীড়ে নিজেকে হারিয়ে খোঁজার চেষ্টা নিরন্তর । দূরত্বের সাথে সাথে কিছু প্রিয় মুখ স্পষ্ট থেকে আরও স্পষ্টতর হতে থাকে বাড়তে থাকে সময়ের ব্যবধান । পেছনে ফেলে আসি আমার হলুদ প্রজাপতি ।
ছন্দ, মাত্রা, তাল-লয়,উপমা-উৎপ্রেক্ষা ইত্যাদি না থাকলে কিসের কবিতা? মুক্তছন্দের নামে অন্ত্যমিলবর্জিত কবিতাও যে ছন্দহীন কবিতা নয়–তা-ও বোঝেনা আজকালকার অনেক তথাকথিত গদ্যকবি। আসলেই আবৃত্তির অযোগ্য কবিতা কখনোই ভালোকবিতা হতে পারেনা। আবার ভালোকবি মানেই ভালো গীতিকার- এটাও সত্য। এখানে আরেকটি কথা বলে রাখি, যারা যতোবেশি ছন্দে পণ্ডিত, তারা ততোবেশি ভালো ছড়াকার। আর পারদর্শী ছড়াকাররাই মূলতঃ মানোত্তীর্ণ ছড়া-কবিতা ও [বিস্তারিত]

রাতে

ছাইরাছ হেলাল ২৭ অক্টোবর ২০১৪, সোমবার, ০৭:২২:২৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৪৬ মন্তব্য
রাতে, নিভাঁজ প্রকৃতির সামনে দাঁড়ালে মাথা নত হয়ে আসে, খুব গুটি গুটি লাগে নিজেকে। আয়ত চোখে তপোবনের হরিন শিশুর পেলবতায় উপচানো প্রসাদের থালা হাতে বলে ‘নাও না যা খুশি’। লজ্জায় মিশে যেতে ইচ্ছে করে; এ ভাবে কি কেউ নেয়? নাকি নেয়া যায়? রাত-বিরাতে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে রাত কখনও ঝুল বারান্দায় কখনও ছাদের কার্নিশ ঘেঁষে; কাঠের [বিস্তারিত]
সেকালঃ মোহাচ্ছন্ন মন্ত্র উচ্চারিত হচ্ছে। পুরোহিত গন ভীষন ব্যাস্ত।  শয্যা প্রস্তুত। কাঠের গুড়ির উপর শুয়ে আছে স্বামী। কাঠের গুড়ির মাঝে চন্দন কাঠও আছে। চন্দন কাঠ, ধুপ এর গন্ধ, ধোয়া, কাছা দেয়া ধুতি পরা খালি গায়ের মন্ত্রকের মুখের মন্ত্র, ব্যাস্ত সমস্ত চিতায় আগুন দেয়ার মানুষজনের উল্লাসিত পদক্ষেপ, চিতাকে ঘিয়ে দাঁড়ানো বড় সড় একটা ভিড়ের সার্কেল, নদী [বিস্তারিত]

মেঘের শাবক

পাগলা জাঈদ ২৭ অক্টোবর ২০১৪, সোমবার, ০৩:১৯:১৫অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
ভেসে যায় মেঘের শাবক, ভেসে যায় আবেগের দল, ভেসে যায় শরতের ঘ্রাণ, প্রাণহীন প্রজাপতি- জীবনের জল। পাখি অবিচল- আকাশ কি লাশকাটা ঘর? নেউলে’রা ইতি-উতি চায়, ঝাউবনে অগোছাল- ফড়িং বাসর। হেসে খুন বোকা ঈশ্বর! হেসে ওঠে ফেলে আসা সুখ, বালিকা সে নারী হবে আজ, কুড়ে ঘরে ভালবাসা অনাথ -বিমুখ। ভীষণ অসুখ ঝিঙেফুল অত:পর ফোঁটে, কোল জুড়ে [বিস্তারিত]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ