বিভাগ: একান্ত অনুভূতি

একসাথে চারটি দাঁত যদি কোন দূর্ঘটনায় অকালে ভেঙ্গে যায় তবে না কেঁদে কি উপায় আছে ? আমিও কাঁদছি, না না ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কান্না নয় একেবারে চোখের জলে ভাসিয়ে, কাঁদতে কাঁদতে দুপুরের ঘুমটা ভাঙ্গলো। ঘুম ভাঙ্গতেই হাসিতে ফেটে পড়ি, আমি যে বয়সে আছি সে বয়সটা কান্নার নয়, কান্না মানায় না একদম। ইংল্যান্ডের রয়েল ফ্যামিলির একটা নিয়ম [ বিস্তারিত ]
উচু আকাশের গাঙ্গচিল, অমাবস্যার রাতে শুধু শক্ত ঠোঁটে খোঁটে, পাথরের নুড়ি কনায় রুপোলি আলোর ঝিল! প্রাচীন মহাকুর্মের পিঠে ঠোঁট পড়ে , ইতিহাস গড়ে! ইতিহাস নড়ে! সবাই শুধু , মহেঞ্জো থেকে পিরামিড খোঁড়ে! কেউ আবার অশোক গড়ে! কনিষ্ককে শুক্নো তালপাতায় ছোড়ে! কালবৈশাখী বাতাস ওড়ে! পাতাচাপা ধুলো ওড়ে! পিঁপড়ের দল সব রাস্তায় ঘোরে! ডানায় ভরে সন্ধ্যাপ্রদীপে পিঁপড়ে [ বিস্তারিত ]
ক্যারেম খেলোয়াড় হিসেবে একসময় আমার সুখ্যাতি ছিলো। আমাদের পাড়ায় তখন আমিই সেরা ছিলাম। এক চান্সে সব কটি গুটি একে একে পকেটে বা গর্তে পাঠিয়ে দেবার গৌরবময় মুহুর্তও আমার ভাড়াড়ে ছিলো অনেক কিন্তু পড়াশোনাতে মনোযোগ দেবার কারণে ক্যারেমের ভূত আমার ঘাড় থেকে ছুতরার পাতা (একধরনের ঔষধী গাছের পাতা, যা শরীরে লাগলে প্রচন্ড চুলকানীর সৃষ্টি হয়) ঘঁষে [ বিস্তারিত ]
কিছু কিছু ভাবনা খেলা করে মস্তিস্কে , যা লিখে রাখি সংক্ষেপে বিভিন্ন জায়গায় । ভাবি এসব বিষয়ে বড় করে কিছু লিখবো। পরে তা আর মনে থাকে না। মনে রাখার বিকল্প হিসেবে , ভাবনা গুলোকে এখানে রাখবো , আজ কিছু ফেইসবুকের স্ট্যাটাস এখানে জমা করে রাখছি । অক্টোবর ১৩ , ২০১২ : আমার সোনার বাংলা আমি [ বিস্তারিত ]
সময়েরা এতো দ্রুত পালায় কেন ? সময়েরা কি স্থির থাকতে জানেনা ? দেশে বিদেশে কত শত অদ্ভূত আইন কানুন তৈরী হয় মানুষের মধ্যে শৃঙ্খলা বোধ তৈরী করার জন্য, আচ্ছা এমন কি কোন আইন তৈরী করা যায়না যে আইনের বলে সময়েরা স্থির হয়ে থাকবে, একটুও নড়া চড়া করবেনা। যদি তাই করা যেত তবে হয়তো সোমা’কে কেউ [ বিস্তারিত ]
উইপোকার ঢিবে, যতটুকু গেছে যাক! কলাপাতার কোরক পাতায়, যেটুকু কুকড়ে পড়ে আছে, সেইটুকু আমার শেষ সম্বল! নইলে , আমি মানবজাতি থেকে বাদ! অকালে কোকিল ডাকলে, শুধু ভয় হয়, আমার ডিম, তার বাসা হারাবে না তো! তুমি আমার গালে, আগ বাড়িয়ে চুমু খাচ্ছো, সন্দেহ হয়! শতাব্দীর প্রাচীন, কোহিনুর গেছে যাক! আমার ‘তাজ’, মমতাজ হারাবে না তো! [ বিস্তারিত ]
ফেসবুকের পাতায় পরিচয় হয়েও ভৌগলিক দূরত্বকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে নিয়মিত যোগাযোগের মাধ্যমে যেসব বন্ধুরা আমার হৃদয়ের অন্দর মহলে ঢুকে পড়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম একজন বিদগ্ধ বন্ধু রায়হান হোসেন। অতি সম্প্রতি রায়হানের ফেসবুক প্রোফাইলে রাজনীতির গা ঘেঁষা একটা নোট পড়ে আমার মাথায় রাজনীতি কি তা জানার ভূত চেপে বসলো। (রা)তারাতি (জ)নপ্রিয়তার জন্য (নী)তি বিষর্জন দিয়ে (তি)লকে তাল [ বিস্তারিত ]

আশালতা

এজহারুল এইচ শেখ ১৩ অক্টোবর ২০১২, শনিবার, ০২:২৩:০৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা, সাহিত্য ৪ মন্তব্য
তোমাকে নিয়ে, আমি হয়েছি নীলকন্ঠ! ক্ষনিকে তুমি, সাগর সাঁতারাও, কাঠি বেয়ে, চাঁদে ঝাঁপ দাও, আবার রাস্তায়, পড়ে পড়ে কাঁতারাও! আশালতা, তুমি যখন ক্ষত-বিক্ষত, জীবন যুদ্ধে, তখন আমি তোমার জন্য, আমার পেটে পাথর বাধি, তখন আমি হই নবী! এখন তুমি, স্বর্গের পথের পথিক, আশালতা! আর তুমি শুনতে পাওনা! ক্ষুধার্ত শিশুর, রাত দুপুরের কান্না! শুনতে শুধু পাও, [ বিস্তারিত ]
বাবা, তোমার কি মনে পড়ে একদিন তুমি আমাকে তোমার প্রশস্থ কাঁধে করে ঘুরে বেড়িয়েছিলে সারা শহরময়? আমি এক হাতে তোমার চুল আর অপর হাতে তোমার গলা শক্ত করে ধরে রেখেছিলাম। বাবা, তোমার সেই কাঁধ ছুঁতে এখন আর আমাকে চেয়ারে কিংবা টেবিলের উপর উঠে দাঁড়াতে হয়না যেকোন অবস্থায় দাঁড়িয়েই ছুঁয়ে ফেলতে পারি অথচ তোমার সেই প্রশস্থ [ বিস্তারিত ]
শব্দের নিচে দগদগে ঘা! উপর থেকে শুধু, লাল সবুজ পোশাক ঢাকা! শব্দ গিললে তবে হবো শিক্ষিত, ভাত গিললে কি ভেতো! বিঞ্জাপনের মতোই, শুধু শিক্ষিতবাড়ে, পেছনের, কুমেরুর অন্ধকারে, এখন পৃথিবী ঘোরে! পেটে আলো পৌছায়নি , হ্যালোজেনের বিকিরণ, শুধু রোডেই আছড়ে পড়ে! ভাত নেই, তাতে আমার দুঃখ নেই! মন সংযমের, দীক্ষা নিয়েছি বেশ, মায়ের পেটের অন্তরালে! দুঃখ [ বিস্তারিত ]
ফোন ব্যবহার করছেন অথচ রং নাম্বার থেকে কল আসেনি এমন কোন ব্যবহারকারী হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবেনা। রং নাম্বার থেকে পরিচয় অতঃপর প্রেম পর্ব সেরে ঘর সংসার করা জুটির অভাব নেই আমাদের দেশে। ২০০৫ থেকে নিয়মিত কিছু মানুষ আমাকে ফোন করে রঙ মিস্ত্রী বেলালের খোঁজ করতো। কারণ বেলাল নামের কোন এক রঙ মিস্ত্রী তার ভিজিটিং কার্ডে [ বিস্তারিত ]
বাইরে কালবৈশাখী ঝর আমি একা কেবল হেঁটে চলেছি ভিজে একাকার ,  কেউ নেই পাশে ! এক মুহূর্তের জন্য মনে হোল , আমার পাশে যদি সে থাকতো ? আমি কল্পনায় ডুবতে লাগলাম ক্যামন যেন একটা ঘোরের মতো তীব্র ঝরের সন্ধ্যায় রাস্তায় আমরা দুজন আমি ওর হাতটা একটু ধরতাম ধরে হেঁটে যেতাম নীরব রাস্তার উপর দিয়ে মৃদু [ বিস্তারিত ]
এখন দিব্যি বেঁচে আছি তোকে ছাড়া । অথচ এমন করে কি থাকার কথা ছিলো ? তোর ভালোবাসা ছাড়া আমি কি করে বাঁচি বল ? তোকে ছাড়া কি দুঃসহ জীবন আমি কাটাচ্ছি তা কি তুই জানিস ? ইচ্ছা করে পরম মমতায় তোর চুল আঁচরে দেই !! তুই যেদিন আমাকে ফেলে চলে গেলি ! মনে আছে তোর [ বিস্তারিত ]
কেউ বলছে দেশটা আমার বাপের টাকায় কেনা, কেউ বলছে না না আমার স্বামীর ষোল আনা। কেউ বলছে আমিই বন্ধু শহর এবং গ্রামে, দেশের দলিল হওয়া উচিত শুধুই আমার নামে। কেউ বলছে আমরা ডান দেশটা ডানে যাক, বামের জনও বলছে ঠিকই দেশটা বামেই থাক। রাজাকারের জারজ দল আজ জঙ্গীবাদে মদদবাদ, সোনার বাংলা না গেয়ে গায় পাক [ বিস্তারিত ]
বাবারা সব সময় নিষ্ঠুর হয়না। কড়া মেজাজের অন্তরালে চড়া ভালোবাসা সব সময় প্রকাশ করেন না বলেই বাবাদের বেশির ভাগ সময় নিষ্ঠুর বলে মনে হয়। ছোট্ট বেলায় বাবা ভীতির পাশা পাশি বাবা প্রীতি যে একদম ছিলোনা তা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। শৈশব কৈশর অতিক্রম করে এখন স্পষ্টতঃ বুঝতে পারছি যে বাবার সেই কড়া অনুশাসনের একমাত্র [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

সপ্তাহের আলোচিত লেখা