বিভাগ: কবিতা

সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি, আকাশের নীলে আলতো রোদে, শোকাচ্ছন্ন নীরার অশ্রুতে, আমার বাসি চোখের দুই পাতা শুধু ভেজে! আজ নীরা আছে,তুমি নেই! তোমাকে শুধুই ভাবি,আর নীলসাগরে ডুবি! রাত দুটোই বিনম্র আলোয় উত্তর আকাশের, ধ্রুবতারায় নীলনদে ডুবিয়ে , ফুটে আছে মিটি মিটি আলোয় নীললোহিত! প্রেমের হৃদয় শুধু নীলসাগরেই ডোবে! নীরাও নীললোহিতে রোজ সন্ধ্যায় ডোবে! বাঙালী [ বিস্তারিত ]
নিশিতে আমি শশ্মানে কান পেতে শুনি, গলিত শবের বুকে, আমার জন্য তোমার, প্রেমের কত বেগ ! মাঝে মাঝে আবার কুকুর দিয়ে নাক শুকি, আমার জন্য তোমার, অবিশ্বাসের কত টান! সূত্র দিন-রাত খুজি, আইনেস্টাইন থেকে মার্কস! মরাপ্রেম কিভাবে বাঁচবে! শতাব্দীর পর শতাব্দী রাত কাটে আর কাল কাটে! পতিতা শুধুই রাত-দুপুরে, হাতুড়ি তোলে আর হাঁপর টানে! পতিতালয়ে [ বিস্তারিত ]
উচু আকাশের গাঙ্গচিল, অমাবস্যার রাতে শুধু শক্ত ঠোঁটে খোঁটে, পাথরের নুড়ি কনায় রুপোলি আলোর ঝিল! প্রাচীন মহাকুর্মের পিঠে ঠোঁট পড়ে , ইতিহাস গড়ে! ইতিহাস নড়ে! সবাই শুধু , মহেঞ্জো থেকে পিরামিড খোঁড়ে! কেউ আবার অশোক গড়ে! কনিষ্ককে শুক্নো তালপাতায় ছোড়ে! কালবৈশাখী বাতাস ওড়ে! পাতাচাপা ধুলো ওড়ে! পিঁপড়ের দল সব রাস্তায় ঘোরে! ডানায় ভরে সন্ধ্যাপ্রদীপে পিঁপড়ে [ বিস্তারিত ]
* বনলতা সেন * কাব্যগ্রন্থ বাংলা কবিতায়  বনলতা সেন কবিতাটিই সবচেয়ে বেশী পঠিত কবিতা বলে মনে হয় আমার কাছে। কবিতাকে ভালবাসেন অথচ এই বনলতা সেন কবিতা পড়েননি এমন মানুষ পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ আছে। বনলতা সেন কাব্যগ্রন্থের ২৯ টি কবিতা থেকে আজ ১৫ টি কবিতা দিলাম। অবশিষ্ট ১৪ টি পরের পোস্টে দিব।   বনলতা সেন [ বিস্তারিত ]
সময় পাল্টাই,মানুষ পাল্টাই, ব্রম্ভান্ডের গর্ভমুখ থেকেই ধুত্রা থেকে ধরিত্রী , আসলে নাকি সব পাল্টাই! বাবারা কবে পাল্টাই? মা! আর কত দিন ! আমার নাভিমূলে কামড় দিয়ে, পৃথিবী ঘুরবে! আর কত দিন! আমার গর্ভমুখে, দংশন, পেষন! মা তোমার সতীপর্দা, জীবনে একবারই ফাঁটে! সতীপর্দা আমার, এক রাতে শত বার, মদযন্ত্রে কাঁটে! ভীষণ রক্ত বয়,মা! গঙ্গা থেকে লোহিত [ বিস্তারিত ]

ফোষ্কা……

নীলাঞ্জনা নীলা ১৮ অক্টোবর ২০১২, বৃহস্পতিবার, ০৪:১৪:০৯অপরাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ১৪ মন্তব্য
তুমি মরে যাচ্ছো । আমার প্রেমের বিষে ক্ষয়ে যাচ্ছো দিনের পর দিন । এরপর হঠাৎ একদিন একেবারেই মরে গেলে । আচ্ছা এই আমি বড়ো বিষাক্ত জেনেও কেনইবা ভালোবেসে ফেললে ! আচ্ছা ধরে নাও কোনো একদিন যদি এমন হয় , আমি নেই , কোথাও নেই… তখন কার বিষে নীল হবে ? জানো , যখন তুমি চোখের [ বিস্তারিত ]
তোমাকে ঘিরে, তুষ-কাদার আলতো রোদের আমার যত স্বপ্ন ছিল, সেই স্বপ্ন আমার আর নেই! স্বপ্ন গুলো আমার, তোমার বিলেতি মদের নেশায়, মিশে গেছে আজ! তোমার মতো, আমি নেশা করতে পারি না! ব্রম্ভ-যুগের মানুষ আমি, ব্রম্ভা আমার টানে! মাঝে মাঝে তোমার জন্য আমার ক্লীষ্ট মন, ভীষণ খারাপ হয়! আমার স্বপ্ন গুলো, যখন সুমেরুতে দিন-প্রতিদিন ভাঙ্গে, তখন [ বিস্তারিত ]
উইপোকার ঢিবে, যতটুকু গেছে যাক! কলাপাতার কোরক পাতায়, যেটুকু কুকড়ে পড়ে আছে, সেইটুকু আমার শেষ সম্বল! নইলে , আমি মানবজাতি থেকে বাদ! অকালে কোকিল ডাকলে, শুধু ভয় হয়, আমার ডিম, তার বাসা হারাবে না তো! তুমি আমার গালে, আগ বাড়িয়ে চুমু খাচ্ছো, সন্দেহ হয়! শতাব্দীর প্রাচীন, কোহিনুর গেছে যাক! আমার ‘তাজ’, মমতাজ হারাবে না তো! [ বিস্তারিত ]

আশালতা

এজহারুল এইচ শেখ ১৩ অক্টোবর ২০১২, শনিবার, ০২:২৩:০৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা, সাহিত্য ৪ মন্তব্য
তোমাকে নিয়ে, আমি হয়েছি নীলকন্ঠ! ক্ষনিকে তুমি, সাগর সাঁতারাও, কাঠি বেয়ে, চাঁদে ঝাঁপ দাও, আবার রাস্তায়, পড়ে পড়ে কাঁতারাও! আশালতা, তুমি যখন ক্ষত-বিক্ষত, জীবন যুদ্ধে, তখন আমি তোমার জন্য, আমার পেটে পাথর বাধি, তখন আমি হই নবী! এখন তুমি, স্বর্গের পথের পথিক, আশালতা! আর তুমি শুনতে পাওনা! ক্ষুধার্ত শিশুর, রাত দুপুরের কান্না! শুনতে শুধু পাও, [ বিস্তারিত ]

স্বপ্ন-চাষ

নীলাঞ্জনা নীলা ১২ অক্টোবর ২০১২, শুক্রবার, ০৬:৪৪:৩১অপরাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ১৭ মন্তব্য
মেঘ গুডগুড় মেঘ গুড়গুড় থমকে আছে আকাশ এই সময়ে কি করে হয় স্বপ্নফুলের চাষ ? বুনছি আমি বুকের মাঝে লাল-নীল সংসার গুনে চলছি আসার প্রহর খুলবে বন্ধ দ্বার । স্নান করছে চোখের উঠোন গাল ভাসছে জলে যাচ্ছে ডুবে স্বপ্নগুলো তুই আসিসনি বলে । ইচ্ছেগুলোর সময় যে শেষ নোঙ্গর করার তাড়া বলনা রে তুই আসবি কবে [ বিস্তারিত ]
শব্দের নিচে দগদগে ঘা! উপর থেকে শুধু, লাল সবুজ পোশাক ঢাকা! শব্দ গিললে তবে হবো শিক্ষিত, ভাত গিললে কি ভেতো! বিঞ্জাপনের মতোই, শুধু শিক্ষিতবাড়ে, পেছনের, কুমেরুর অন্ধকারে, এখন পৃথিবী ঘোরে! পেটে আলো পৌছায়নি , হ্যালোজেনের বিকিরণ, শুধু রোডেই আছড়ে পড়ে! ভাত নেই, তাতে আমার দুঃখ নেই! মন সংযমের, দীক্ষা নিয়েছি বেশ, মায়ের পেটের অন্তরালে! দুঃখ [ বিস্তারিত ]
বাইরে কালবৈশাখী ঝর আমি একা কেবল হেঁটে চলেছি ভিজে একাকার ,  কেউ নেই পাশে ! এক মুহূর্তের জন্য মনে হোল , আমার পাশে যদি সে থাকতো ? আমি কল্পনায় ডুবতে লাগলাম ক্যামন যেন একটা ঘোরের মতো তীব্র ঝরের সন্ধ্যায় রাস্তায় আমরা দুজন আমি ওর হাতটা একটু ধরতাম ধরে হেঁটে যেতাম নীরব রাস্তার উপর দিয়ে মৃদু [ বিস্তারিত ]
এখন দিব্যি বেঁচে আছি তোকে ছাড়া । অথচ এমন করে কি থাকার কথা ছিলো ? তোর ভালোবাসা ছাড়া আমি কি করে বাঁচি বল ? তোকে ছাড়া কি দুঃসহ জীবন আমি কাটাচ্ছি তা কি তুই জানিস ? ইচ্ছা করে পরম মমতায় তোর চুল আঁচরে দেই !! তুই যেদিন আমাকে ফেলে চলে গেলি ! মনে আছে তোর [ বিস্তারিত ]

আজব শহর ঢাকা

তামান্না রুবাইয়াত ১০ অক্টোবর ২০১২, বুধবার, ০২:৫৯:২১অপরাহ্ন কবিতা, বিবিধ, রম্য, সাহিত্য ১১ মন্তব্য
আজব শহর ঢাকা হয় না ভুলেও ফাঁকা নানান জনের নানান রুচি কারো সাথেই মিলে না বুঝি । দাওয়াত দিলে অনুষ্ঠানে দেখা মিলে সবার সনে সবাই থাকে একলা একা মিলাদ ছাড়াও হয় না দেখা । ঘরের সাথে ঘর দরজা লাগালেই পর ঢাকায় নাকি টাকা উড়ে! ধরতে পারলে শান্তি ফিরে? ঢাকার এত যান জট মনের সাথে খায় [ বিস্তারিত ]
কেউ বলছে দেশটা আমার বাপের টাকায় কেনা, কেউ বলছে না না আমার স্বামীর ষোল আনা। কেউ বলছে আমিই বন্ধু শহর এবং গ্রামে, দেশের দলিল হওয়া উচিত শুধুই আমার নামে। কেউ বলছে আমরা ডান দেশটা ডানে যাক, বামের জনও বলছে ঠিকই দেশটা বামেই থাক। রাজাকারের জারজ দল আজ জঙ্গীবাদে মদদবাদ, সোনার বাংলা না গেয়ে গায় পাক [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

সপ্তাহের আলোচিত লেখা